প্রণোদনা তালিকায় নাম না দেয়ায় হামলা
jugantor
প্রণোদনা তালিকায় নাম না দেয়ায় হামলা

  হাজীগঞ্জ (চাঁদপুর) প্রতিনিধি  

২৬ মে ২০২১, ১৭:০০:০৩  |  অনলাইন সংস্করণ

হাজীগঞ্জে প্রণোদনা তালিকায় নাম না থাকায় সোশ্যাল ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশন (এসডিএফ) অফিসে হামলার ঘটনা ঘটেছে।

বুধবার সকালে হাজীগঞ্জ উপজেলার ৬নং পূর্ব বড়কুল ইউনিয়নের কোন্দ্রা গ্রাম সমিতি (এসডিএফ) অফিসে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানায়, এসডিএফে আমেরিকান প্রকল্প থেকে বাংলাদেশ অর্থ মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে করোনাকালীন প্রণোদনার ৯ লাখ ২০ হাজার টাকা গ্রাহকদের মাঝে বিতরণ করার তালিকা তৈরির প্রস্তুতি চলছিল। এসডিএফের করোনাকালীন ১৮০ সদস্যদের মধ্যে যাচাই-বাছাই করে ১১৫ জনের তালিকা তৈরি করে গ্রাহকদের মাঝে ওই টাকা বিতরণ করবে।

কিন্তু ১১৫ জনের তালিকার মধ্যে একই পরিবারের তিনজনের নাম রয়েছে। ওই পরিবারের আরেকজন গ্রাহকের নাম তালিকায় না থাকায় ক্ষুব্ধ গ্রাহকরা সংঘবদ্ধভাবে ওই কার্যালয়ে হামলার ঘটনা ঘটায়।

এসডিএফের সভাপতি রাশেদা, গ্রাম সমিতির সভাপতি মমতাজ ও গ্রাম সমিতির ক্যাশিয়ার জাহানারা বলেন, আমরা ১৮০ জন সদস্যদের মাঝে যাচাই-বাছাই করে তালিকা প্রস্তুত করছি। হঠাৎ করে হামলাকারীরা আমাদের নারী সদস্যদের ওপর হামলা চালায়। একপর্যায়ে অফিসেও ভাংচুর চালায়। সেই সঙ্গে বঙ্গবন্ধুর ছবি ভাংচুর করে হামলাকারীরা।

হামলাকারীরা হলেন- কোন্দ্রা হাজীবাড়ির মুকসুদের ছেলে রবিউল (২৫), মজুমদার বাড়ির মৃত হারুন মজুমদারের ছেলে বোরহান (২৭), কাশেম (৪৫), বকুল (৪২), আমেনা (৪০) ও আছমা (৪০)। খবর পেয়ে হাজীগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।

এ ব্যাপারে হাজীগঞ্জ থানার ওসি হারুনুর রশীদ যুগান্তরকে জানান,বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

প্রণোদনা তালিকায় নাম না দেয়ায় হামলা

 হাজীগঞ্জ (চাঁদপুর) প্রতিনিধি 
২৬ মে ২০২১, ০৫:০০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

হাজীগঞ্জে প্রণোদনা তালিকায় নাম না থাকায় সোশ্যাল ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশন (এসডিএফ) অফিসে হামলার ঘটনা ঘটেছে। 

বুধবার সকালে হাজীগঞ্জ উপজেলার ৬নং পূর্ব বড়কুল ইউনিয়নের  কোন্দ্রা  গ্রাম সমিতি (এসডিএফ) অফিসে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানায়, এসডিএফে আমেরিকান প্রকল্প থেকে বাংলাদেশ অর্থ মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে করোনাকালীন প্রণোদনার ৯ লাখ ২০ হাজার টাকা গ্রাহকদের মাঝে বিতরণ করার তালিকা তৈরির প্রস্তুতি চলছিল। এসডিএফের করোনাকালীন ১৮০ সদস্যদের মধ্যে যাচাই-বাছাই করে ১১৫ জনের তালিকা তৈরি করে গ্রাহকদের মাঝে ওই টাকা বিতরণ করবে।

কিন্তু ১১৫ জনের তালিকার মধ্যে একই পরিবারের তিনজনের নাম রয়েছে। ওই পরিবারের আরেকজন গ্রাহকের নাম তালিকায় না থাকায় ক্ষুব্ধ গ্রাহকরা সংঘবদ্ধভাবে ওই কার্যালয়ে হামলার ঘটনা ঘটায়।

এসডিএফের সভাপতি রাশেদা, গ্রাম সমিতির সভাপতি মমতাজ ও গ্রাম সমিতির ক্যাশিয়ার জাহানারা বলেন, আমরা ১৮০ জন সদস্যদের মাঝে যাচাই-বাছাই করে তালিকা প্রস্তুত করছি। হঠাৎ করে হামলাকারীরা  আমাদের নারী সদস্যদের ওপর হামলা চালায়। একপর্যায়ে অফিসেও ভাংচুর চালায়। সেই সঙ্গে বঙ্গবন্ধুর ছবি ভাংচুর করে হামলাকারীরা।

হামলাকারীরা হলেন- কোন্দ্রা হাজীবাড়ির মুকসুদের ছেলে রবিউল (২৫), মজুমদার বাড়ির মৃত হারুন মজুমদারের ছেলে বোরহান (২৭), কাশেম (৪৫), বকুল (৪২), আমেনা (৪০) ও আছমা (৪০)। খবর পেয়ে হাজীগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।

এ ব্যাপারে হাজীগঞ্জ থানার ওসি হারুনুর রশীদ যুগান্তরকে জানান,বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন