সাত বছরের ভাতিজীকে ধর্ষণকারী কিশোর গ্রেফতার
jugantor
সাত বছরের ভাতিজীকে ধর্ষণকারী কিশোর গ্রেফতার

  কিশোরগঞ্জ ব্যুরো ও পাকুন্দিয়া প্রতিনিধি  

২৭ মে ২০২১, ২০:১৬:৩৬  |  অনলাইন সংস্করণ

কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়ায় সাত বছরের ঘুমন্ত ভাতিজীকে ধর্ষণের অভিযোগে রিমন মিয়া (১৬) নামে এক কিশোরকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বুধবার রাতে বিশেষ অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত রিমন মিয়া উপজেলার চণ্ডিপাশা ইউনিয়নের ঘাগড়া গ্রামের নাজিম উদ্দিনের ছেলে। সে স্থানীয় হাইস্কুলের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী।

শিশুকন্যাকে ধর্ষণের অভিযোগে ভিকটিমের মা রিমনকে অভিযুক্ত করে গত সোমবার পাকুন্দিয়া থানায় মামলা করেন। ওই মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়।

কিশোরগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. ইব্রাহীম হোসেন এবং পাকুন্দিয়া থানার ওসি মো. সারোয়ার জাহান রিমন মিয়াকে গ্রেফতারের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তারা জানান, রাত সাড়ে ১১টার দিকে ভৈরব-ময়মনসিংহ সড়কের পুলেরঘাট বাজারের একটি ফল দোকানের সামনে থেকে রিমনকে গ্রেফতার করা হয়।

উল্লেখ্য, রোববার রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার ঘাগড়া গ্রামের এক কুয়েত প্রবাসীর সাত বছরের এক শিশুকন্যা ঘরে ঘুমচ্ছিল। এ সময় মা বাড়ির উঠানে কাজে ব্যস্ত থাকার সুযোগে ওই ঘরে ঢুকে শিশুকন্যাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে বখাটে রিমন মিয়া। শিশুটির ডাক-চিৎকারে তার মা ও স্বজনরা এগিয়ে গেলে রিমন পালিয়ে যায়।

গুরুতর আহত অবস্থায় শিশুটিকে উদ্ধার করে প্রথমে পাকুন্দিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে নিয়ে গেলে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে কিশোরগঞ্জ জেলা সদর আধুনিক হাসপাতালে রেফার্ড করেন কর্তব্যরত চিকিৎসক। শিশুটি বর্তমানে সেখানেই চিকিৎসাধীন রয়েছে।

সাত বছরের ভাতিজীকে ধর্ষণকারী কিশোর গ্রেফতার

 কিশোরগঞ্জ ব্যুরো ও পাকুন্দিয়া প্রতিনিধি 
২৭ মে ২০২১, ০৮:১৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়ায় সাত বছরের ঘুমন্ত ভাতিজীকে ধর্ষণের অভিযোগে রিমন মিয়া (১৬) নামে এক কিশোরকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বুধবার রাতে বিশেষ অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত রিমন মিয়া উপজেলার চণ্ডিপাশা ইউনিয়নের ঘাগড়া গ্রামের নাজিম উদ্দিনের ছেলে। সে স্থানীয় হাইস্কুলের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী।

শিশুকন্যাকে ধর্ষণের অভিযোগে ভিকটিমের মা রিমনকে অভিযুক্ত করে গত সোমবার পাকুন্দিয়া থানায় মামলা করেন। ওই মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়।

কিশোরগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. ইব্রাহীম হোসেন এবং পাকুন্দিয়া থানার ওসি মো. সারোয়ার জাহান রিমন মিয়াকে গ্রেফতারের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। 

তারা জানান, রাত সাড়ে ১১টার দিকে ভৈরব-ময়মনসিংহ সড়কের পুলেরঘাট বাজারের একটি ফল দোকানের সামনে থেকে রিমনকে গ্রেফতার করা হয়।

উল্লেখ্য, রোববার রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার ঘাগড়া গ্রামের এক কুয়েত প্রবাসীর সাত বছরের এক শিশুকন্যা ঘরে ঘুমচ্ছিল। এ সময় মা বাড়ির উঠানে কাজে ব্যস্ত থাকার সুযোগে ওই ঘরে ঢুকে শিশুকন্যাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে বখাটে রিমন মিয়া। শিশুটির ডাক-চিৎকারে তার মা ও স্বজনরা এগিয়ে গেলে রিমন পালিয়ে যায়।

গুরুতর আহত অবস্থায় শিশুটিকে উদ্ধার করে প্রথমে পাকুন্দিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে নিয়ে গেলে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে কিশোরগঞ্জ জেলা সদর আধুনিক হাসপাতালে রেফার্ড করেন কর্তব্যরত চিকিৎসক। শিশুটি বর্তমানে সেখানেই চিকিৎসাধীন রয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন