হঠাৎ বিদ্যুৎ আসায় প্রাণ গেল মামা-ভাগ্নের
jugantor
হঠাৎ বিদ্যুৎ আসায় প্রাণ গেল মামা-ভাগ্নের

  উলিপুর (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি   

২৮ মে ২০২১, ১৮:০৯:২৭  |  অনলাইন সংস্করণ

কুড়িগ্রামের উলিপুরে বিদ্যুতের সরবরাহ লাইন বন্ধ থাকায় মামা তৈয়ব আলী (৪৫) ও ভাগ্নে হাকিম উদ্দিন (৫৫) বৈদ্যুতিক মিটার সংযোগ লাইনে মেরামত কাজ করছিলেন। হঠাৎ করে বিদ্যুৎ চলে আসায় দুজনেই বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা যান। শুক্রবার দুপুরে নগরপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত তৈয়ব আলী থেতরাই ইউনিয়নের নগরপাড়া গ্রামের আব্দুল মজিদের ছেলে এবং হাকিম উদ্দিন ইসলাম উদ্দিনের ছেলে। তারা দুজনেই পাশাপাশি বাড়িতে থাকেন এবং সম্পর্কে আপন মামা-ভাগ্নে।

থেতরাই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আইয়ুব আলী সরকার জানান, ইউনিয়নের নগরপাড়া গ্রামে শুক্রবার দুপুরে বিদ্যুতের সরবরাহ লাইন বন্ধ থাকায় মামা-ভাগ্নে তৈয়ব আলীর বাড়িতে অবস্থিত বৈদ্যুতিক মিটার সংযোগ লাইনে মেরামত কাজ করছিলেন।

কাজ করার সময় হঠাৎ করে বিদ্যুৎ চলে আসায় দুজনেই বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন। এ সময় তাদের উদ্ধার করতে তৈয়ব আলীর স্ত্রী জামেনা বেগম এগিয়ে আসলে তিনিও বিদ্যুতায়িত হন। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তৈয়ব আলী ও হাকিম উদ্দিনকে মৃত ঘোষণা করেন। গুরুতর আহত জামেনা বেগম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা ডা. মাঈদুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসার আগেই তৈয়ব আলী ও হাকিম উদ্দিন নামে দুজনের মৃত্যু হয়েছে। বর্তমানে তৈয়ব আলীর স্ত্রী চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

উলিপুর থানার ওসি ইমতিয়াজ কবির জানান, এ ব্যাপারে থানায় ইউডি মামলা দায়ের হয়েছে।

হঠাৎ বিদ্যুৎ আসায় প্রাণ গেল মামা-ভাগ্নের

 উলিপুর (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি  
২৮ মে ২০২১, ০৬:০৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কুড়িগ্রামের উলিপুরে বিদ্যুতের সরবরাহ লাইন বন্ধ থাকায় মামা তৈয়ব আলী (৪৫) ও ভাগ্নে হাকিম উদ্দিন (৫৫) বৈদ্যুতিক মিটার সংযোগ লাইনে মেরামত কাজ করছিলেন। হঠাৎ করে বিদ্যুৎ চলে আসায় দুজনেই বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা যান। শুক্রবার দুপুরে নগরপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। 

নিহত তৈয়ব আলী থেতরাই ইউনিয়নের নগরপাড়া গ্রামের আব্দুল মজিদের ছেলে এবং হাকিম উদ্দিন ইসলাম উদ্দিনের ছেলে। তারা দুজনেই পাশাপাশি বাড়িতে থাকেন এবং সম্পর্কে আপন মামা-ভাগ্নে।

থেতরাই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আইয়ুব আলী সরকার জানান, ইউনিয়নের নগরপাড়া গ্রামে শুক্রবার দুপুরে বিদ্যুতের সরবরাহ লাইন বন্ধ থাকায় মামা-ভাগ্নে তৈয়ব আলীর বাড়িতে অবস্থিত বৈদ্যুতিক মিটার সংযোগ লাইনে মেরামত কাজ করছিলেন। 

কাজ করার সময় হঠাৎ করে বিদ্যুৎ চলে আসায় দুজনেই বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন। এ সময় তাদের উদ্ধার করতে তৈয়ব আলীর স্ত্রী জামেনা বেগম এগিয়ে আসলে তিনিও বিদ্যুতায়িত হন। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তৈয়ব আলী ও হাকিম উদ্দিনকে মৃত ঘোষণা করেন। গুরুতর আহত জামেনা বেগম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা ডা. মাঈদুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসার আগেই তৈয়ব আলী ও হাকিম উদ্দিন নামে দুজনের মৃত্যু হয়েছে। বর্তমানে তৈয়ব আলীর স্ত্রী চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

উলিপুর থানার ওসি ইমতিয়াজ কবির জানান, এ ব্যাপারে থানায় ইউডি মামলা দায়ের হয়েছে। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন