মুমূর্ষু বাবার কোলেই ছটফট করে মারা যায় স্বর্ণা
jugantor
মুমূর্ষু বাবার কোলেই ছটফট করে মারা যায় স্বর্ণা

  পটুয়াখালী ও দক্ষিণ প্রতিনিধি  

০২ জুন ২০২১, ২২:৪৫:৫১  |  অনলাইন সংস্করণ

পটুয়াখালীতে মোটরসাইকেল ও মালবাহী ট্রলির মুখোমুখি সংঘর্ষে আট বছরের শিশুসহ দুইজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় গুরুতর আহত হন শিশুটির বাবা। মুমূর্ষু বাবার কোলেই ছটফট করতে করতে মারা যায় স্বর্ণা।

বুধবার বেলা ১১টার দিকে পটুয়াখালী-কুয়াকাটা মহাসড়কের পক্ষিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ ট্রলিটি জব্দ করলেও দোষীরা গা-ঢাকা দিয়েছে বলে জানান গলাচিপা থানার এসআই সাখাওয়াত।

নিহতরা হলেন- গলাচিপা উপজেলার উলিয়ানিয়া এলাকার কার্তিক রায়ের মেয়ে স্বর্ণা রায় (৮) ও মোটরসাইকেলচালক মো. শিমুল (২৮)। এদিকে দুর্ঘটনার শিকার মুমূর্ষু কার্তিক রায়কে বরিশালে পাঠানো হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, বুধবার সকালে কার্তিক রায় তার স্ত্রী শিল্পী রানী (৩০) ও ৮ বছরের শিশুসন্তান স্বর্ণাকে নিয়ে গলাচিপা উপজেলার উলিয়ানিয়া থেকে ভাড়াটে মোটরসাইকেলে রওনা দেয়। গলাচিপা হরিদেবপুর ফেরিঘাট পৌঁছলে নদীর ওপরপ্রান্ত থেকে দ্বিতীয় ভাড়াটে মোটরসাইকেলে ওঠেন বাকেরগঞ্জে এক আত্মীয় বিয়েতে অংশ নেওয়ার জন্য। এ সময় পটুয়াখালী-কুয়াকাটা মহাসড়কের পক্ষিয়া এলাকায় অতিক্রমকালে উল্টোদিক থেকে আসা একটি মালবাহী ট্রলির সঙ্গে ওই মোটরসাইকেলের সংঘর্ষ হয়।

ওই সংঘর্ষে আহত স্বর্ণার মাথায় প্রচণ্ড রক্তক্ষরণ হয়। সেখানেই মুমূর্ষু বাবা কার্তিকের কোলের মধ্যে ছটফট করতে করতে মারা যায় স্বর্ণা। ডান পায়ে ট্রলির চাকা উঠিয়ে দিলে পা ভেঙে যায় কার্তিকের। এ সময় মাথায় মারাত্মক জখম হয় মোটরসাইকেল চালক শিমুলের। কার্তিকের স্ত্রী শিল্পী পেছনের মোটরসাইকেলে থাকায় অল্পের জন্য প্রাণে রক্ষা পান।

স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে নিহত স্বর্ণার কাকা প্রশান্ত জানান, শিশু স্বর্ণা প্রচণ্ড রক্তক্ষরণ হয়ে মুমূর্ষু অবস্থায় বাবা-মায়ের কোলে ছটফট করে মারা যায়। তার পাশেই ভাঙা পা নিয়ে ছটফট করছিলেন বাবা কার্তিক।

এদিকে মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত হলে স্থানীয়রা মোটরসাইকেলচালক শিমুলকে পটুয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসেন। অবস্থার অবনতি দেখে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাকে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠালে পথিমধ্যেই মারা যান শিমুল। একইসঙ্গে মুমূর্ষু অবস্থায় স্বর্ণার বাবাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশালে পাঠানো হয়।

মুমূর্ষু বাবার কোলেই ছটফট করে মারা যায় স্বর্ণা

 পটুয়াখালী ও দক্ষিণ প্রতিনিধি 
০২ জুন ২০২১, ১০:৪৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পটুয়াখালীতে মোটরসাইকেল ও মালবাহী ট্রলির মুখোমুখি সংঘর্ষে আট বছরের শিশুসহ দুইজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় গুরুতর আহত হন শিশুটির বাবা। মুমূর্ষু বাবার কোলেই ছটফট করতে করতে মারা যায় স্বর্ণা।

বুধবার বেলা ১১টার দিকে পটুয়াখালী-কুয়াকাটা মহাসড়কের পক্ষিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ ট্রলিটি জব্দ করলেও দোষীরা গা-ঢাকা দিয়েছে বলে জানান গলাচিপা থানার এসআই  সাখাওয়াত।

নিহতরা হলেন- গলাচিপা উপজেলার উলিয়ানিয়া এলাকার কার্তিক রায়ের মেয়ে স্বর্ণা রায় (৮) ও মোটরসাইকেলচালক মো. শিমুল (২৮)। এদিকে দুর্ঘটনার শিকার মুমূর্ষু কার্তিক রায়কে বরিশালে পাঠানো হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, বুধবার সকালে কার্তিক রায় তার স্ত্রী শিল্পী রানী (৩০) ও ৮ বছরের শিশুসন্তান স্বর্ণাকে নিয়ে গলাচিপা উপজেলার উলিয়ানিয়া থেকে ভাড়াটে মোটরসাইকেলে রওনা দেয়। গলাচিপা হরিদেবপুর ফেরিঘাট পৌঁছলে নদীর ওপরপ্রান্ত থেকে দ্বিতীয় ভাড়াটে মোটরসাইকেলে ওঠেন বাকেরগঞ্জে এক আত্মীয় বিয়েতে অংশ নেওয়ার জন্য। এ সময় পটুয়াখালী-কুয়াকাটা মহাসড়কের পক্ষিয়া এলাকায় অতিক্রমকালে উল্টোদিক থেকে আসা একটি মালবাহী ট্রলির সঙ্গে ওই মোটরসাইকেলের সংঘর্ষ হয়। 

ওই সংঘর্ষে আহত স্বর্ণার মাথায় প্রচণ্ড রক্তক্ষরণ হয়। সেখানেই মুমূর্ষু বাবা কার্তিকের কোলের মধ্যে ছটফট করতে করতে মারা যায় স্বর্ণা। ডান পায়ে ট্রলির চাকা উঠিয়ে দিলে পা ভেঙে যায় কার্তিকের। এ সময় মাথায় মারাত্মক জখম হয় মোটরসাইকেল চালক শিমুলের। কার্তিকের স্ত্রী শিল্পী পেছনের মোটরসাইকেলে থাকায় অল্পের জন্য প্রাণে রক্ষা পান।

স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে নিহত স্বর্ণার কাকা প্রশান্ত জানান, শিশু স্বর্ণা প্রচণ্ড রক্তক্ষরণ হয়ে মুমূর্ষু অবস্থায় বাবা-মায়ের কোলে ছটফট করে মারা যায়। তার পাশেই ভাঙা পা নিয়ে ছটফট করছিলেন বাবা কার্তিক।

এদিকে মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত হলে স্থানীয়রা মোটরসাইকেলচালক শিমুলকে পটুয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসেন। অবস্থার অবনতি দেখে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাকে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠালে পথিমধ্যেই মারা যান শিমুল। একইসঙ্গে মুমূর্ষু অবস্থায় স্বর্ণার বাবাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশালে পাঠানো হয়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন