নিজের গলায় ছুরি চালালেন নারী, লাশ নিয়ে পালাল পরিবার
jugantor
নিজের গলায় ছুরি চালালেন নারী, লাশ নিয়ে পালাল পরিবার

  যুগান্তর প্রতিবেদন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া  

০৩ জুন ২০২১, ১৯:৩৪:২৫  |  অনলাইন সংস্করণ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আলেয়া বেগম (৫০) নামের এক নারী নিজের গলায় ছুরিকাঘাত করে আত্মহত্যা করেছেন। তবে হাসপাতালে নিয়ে গেলে মৃত ঘোষণার পর লাশ নিয়ে পালিয়ে যায় ওই নারীর পরিবার।

বুধবার রাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার সুহিলপুর ইউনিয়নের চান্দেরহাটি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত আলেয়া ওই এলাকার আলী মিয়ার স্ত্রী। তিনি মানসিক ভারসাম্যহীন ছিলেন বলে জানা গেছে।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, রাতে সিএনজিযোগে কয়েকজন লোক এক নারীকে গলাকাটা অবস্থায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসেন। হাসপাতালে নিয়ে আসার আগেই ওই নারীর মৃত্যু হয়েছে বলে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক নিশ্চিত করেন।

চিকিৎসক ডা. জামাল ভূঁইয়া বলেন, যতটুকু দেখলাম নিহত আলেয়া বেগমের গলায় ধারালো অস্ত্রের আঘাত আছে। গলার বেশ অংশই কেটে গেছে। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ ও শ্বাসকষ্টের কারণে তার মৃত্যু হয়েছে। মৃত্যুর কথা শুনে পরিবারের লোকেরা লাশ নিয়ে পালিয়ে যায়।

নিহত আলেয়া বেগমের ভাসুরের ছেলে কালু সাংবাদিকদের জানান, আমার চাচি মানসিক ভারসাম্যহীন ছিলেন। বুধবার রাতে তিনি নিজের গলায় ছুরিকাঘাত করে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। পরে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তারপর আমরা লাশ নিয়ে বাড়ি চলে আসি।

সদর মডেল থানার ওসি এমরানুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

নিজের গলায় ছুরি চালালেন নারী, লাশ নিয়ে পালাল পরিবার

 যুগান্তর প্রতিবেদন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া 
০৩ জুন ২০২১, ০৭:৩৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আলেয়া বেগম (৫০) নামের এক নারী নিজের গলায় ছুরিকাঘাত করে আত্মহত্যা করেছেন। তবে হাসপাতালে নিয়ে গেলে মৃত ঘোষণার পর লাশ নিয়ে পালিয়ে যায় ওই নারীর পরিবার।

বুধবার রাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার সুহিলপুর ইউনিয়নের চান্দেরহাটি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত আলেয়া ওই এলাকার আলী মিয়ার স্ত্রী। তিনি মানসিক ভারসাম্যহীন ছিলেন বলে জানা গেছে।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, রাতে সিএনজিযোগে কয়েকজন লোক এক নারীকে গলাকাটা অবস্থায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসেন। হাসপাতালে নিয়ে আসার আগেই ওই নারীর মৃত্যু হয়েছে বলে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক নিশ্চিত করেন।

চিকিৎসক ডা. জামাল ভূঁইয়া বলেন, যতটুকু দেখলাম নিহত আলেয়া বেগমের গলায় ধারালো অস্ত্রের আঘাত আছে। গলার বেশ অংশই কেটে গেছে। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ ও শ্বাসকষ্টের কারণে তার মৃত্যু হয়েছে। মৃত্যুর কথা শুনে পরিবারের লোকেরা লাশ নিয়ে পালিয়ে যায়।

নিহত আলেয়া বেগমের ভাসুরের ছেলে কালু সাংবাদিকদের জানান, আমার চাচি মানসিক ভারসাম্যহীন ছিলেন। বুধবার রাতে তিনি নিজের গলায় ছুরিকাঘাত করে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। পরে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তারপর আমরা লাশ নিয়ে বাড়ি চলে আসি। 

সদর মডেল থানার ওসি এমরানুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন