অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু
jugantor
অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু

  লাকসাম (কুমিল্লা) প্রতিনিধি   

০৪ জুন ২০২১, ২০:৪২:২৯  |  অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লার লাকসাম উপজেলায় নিজ ঘর থেকে জান্নাত আক্তার (২৩) নামে অন্তঃসত্ত্বা এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার সকালে কান্দিরপাড়া ইউনিয়ন ইরুয়াইন উত্তরপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত জান্নাত ইরুয়াইন উত্তরপাড়া শহিদ উল্লাহর ছেলে রাজমিস্ত্রি সাইফুল ইসলামের স্ত্রী।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, সাইফুল একজন রাজমিস্ত্রি। ৮ মাস আগে সাইফুল ইসলামের সঙ্গে একই উপজেলা গোবিন্দপুর ইউনিয়নে ইছাপুরা গ্রামের সৈয়দ আহমেদ মেয়ে জান্নাত আক্তারের বিয়ে হয়। বিয়ের তিন মাস পর গর্ভবতী হন জান্নাত আক্তার। তিনি বর্তমানে ৫ মাসের অন্তঃসত্ত্বা।

জান্নাতের স্বামী দাবি করেন, সকালের নাস্তার জন্য দোকান থেকে ছয়টি পরোটা নিয়ে আসেন স্বামী সাইফুল। স্ত্রী জান্নাতের সঙ্গে নাস্তা শেষ করে ৮টার দিকে পাশের বাড়িতে রাজমিস্ত্রির কাজে যান তিনি। সকাল ১০টার দিকে সাইফুলের মা হালিমা বেগম এসে বলেন বৌমাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।

খবর পেয়ে বাড়িতে এসে নিজ ঘরে দেখতে পান তার স্ত্রী জান্নাত গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলছে। তার চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে গৃহবধূকে হাসপাতালে নিলে কর্মরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ বিষয়ে লাকসাম থানার ওসি মেজবাহ উদ্দিন ভুইয়া বলেন, গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মর্গে পাঠানো হয়েছে। এখন পর্যন্ত নিহত পরিবারের কেউ থানায় অভিযোগ করেনি। অভিযোগ ও ময়নাতদন্তের রিপোর্ট এলে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু

 লাকসাম (কুমিল্লা) প্রতিনিধি  
০৪ জুন ২০২১, ০৮:৪২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লার লাকসাম উপজেলায় নিজ ঘর থেকে জান্নাত আক্তার (২৩) নামে অন্তঃসত্ত্বা এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার সকালে কান্দিরপাড়া ইউনিয়ন ইরুয়াইন উত্তরপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। 

নিহত জান্নাত ইরুয়াইন উত্তরপাড়া শহিদ উল্লাহর ছেলে রাজমিস্ত্রি সাইফুল ইসলামের স্ত্রী। 

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, সাইফুল একজন রাজমিস্ত্রি। ৮ মাস আগে সাইফুল ইসলামের সঙ্গে একই উপজেলা গোবিন্দপুর ইউনিয়নে ইছাপুরা গ্রামের সৈয়দ আহমেদ মেয়ে জান্নাত আক্তারের বিয়ে হয়। বিয়ের তিন মাস পর গর্ভবতী হন জান্নাত আক্তার। তিনি বর্তমানে ৫ মাসের অন্তঃসত্ত্বা। 

জান্নাতের স্বামী দাবি করেন, সকালের নাস্তার জন্য দোকান থেকে ছয়টি পরোটা নিয়ে আসেন স্বামী সাইফুল। স্ত্রী জান্নাতের সঙ্গে নাস্তা শেষ করে ৮টার দিকে পাশের বাড়িতে রাজমিস্ত্রির কাজে যান তিনি। সকাল ১০টার দিকে সাইফুলের মা হালিমা বেগম এসে বলেন বৌমাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। 

খবর পেয়ে বাড়িতে এসে নিজ ঘরে দেখতে পান তার স্ত্রী জান্নাত গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলছে। তার চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে গৃহবধূকে হাসপাতালে নিলে কর্মরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। 

এ বিষয়ে লাকসাম থানার ওসি মেজবাহ উদ্দিন ভুইয়া বলেন, গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মর্গে পাঠানো হয়েছে। এখন পর্যন্ত নিহত পরিবারের কেউ থানায় অভিযোগ করেনি। অভিযোগ ও ময়নাতদন্তের রিপোর্ট এলে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন