ধাওয়া করায় চোরের হাতে প্রাণ গেল যুবকের
jugantor
ধাওয়া করায় চোরের হাতে প্রাণ গেল যুবকের

  সিংগাইর (মানিকগঞ্জ) প্রতিনিধি  

০৬ জুন ২০২১, ১৭:৩৫:৩৪  |  অনলাইন সংস্করণ

মানিকগঞ্জের সিংগাইরে চোরকে ধাওয়া করে চোরের হাতে প্রাণ গেল মো. তারা মিয়া (৪০) নামে এক যুবকের। শনিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার বায়রা ইউনিয়নের গারাদিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় জড়িত থাকায় ৩ জনকে আটক করেছে পুলিশ। নিহত তারা মিয়া মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার বেতিলা-মিতরা ইউনিয়নের অরঙ্গবাদ এলাকার মৃত নোমাজ আলীর ছেলে।

আটককৃতরা হলেন- পূর্ব অরঙ্গবাদ গ্রামের মোকসেদ আলীর ছেলে জাহিদুল ইসলাম (২৫), একই গ্রামের রাইজুদ্দিনের ছেলে শরিফ হোসেন (২৫) ও চুরির সঙ্গে জড়িত থাকায় আক্কাছের ছেলে আমজাদকে (৩০) আটক করেন।

সংশ্লিষ্টরা জানায়, গত শনিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১০টার দিকে মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার বেতিলা-মিতরা ইউনিয়নের অরঙ্গবাদ গ্রামের মৃত নোমাজ আলীর ছেলে আব্দুল মালেকের বাড়িতে চোর ঢুকে। এসময় মালেক সজাগ থাকায় টের পেয়ে ধাওয়া করেন। ২ জন চোর দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করে।

চোর চোর বলে তাদের পিছু নেন মালেকের ছোট ভাই তারা মিয়া। এক পর্যায়ে সিংগাইর উপজেলা বায়রা ইউনিয়নের গারাদিয়া এলাকায় পৌঁছলে চোরদের হাতে থাকা লোহার রড দিয়ে তারা মিয়ার মাথায় আঘাত করে পালিয়ে যায়। তার চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে আসে তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করেন। পরে পরিবারের লোকজন সিংগাইর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে কর্তৃব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় খবর পেয়ে ওই গত রাতেই বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে খুনের সঙ্গে জড়িত ২ জন ও চুরির সঙ্গে জড়িত ১ জনকে আটক করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে সিংগাইর থানার ওসি শফিকুল ইসলাম মোল্লা যুগান্তরকে বলেন, আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদের পর আরও কেউ জড়িত থাকলে অভিযান অব্যাহত থাকবে। আসামিদের আদালতে প্ররণ করা হবে।

ধাওয়া করায় চোরের হাতে প্রাণ গেল যুবকের

 সিংগাইর (মানিকগঞ্জ) প্রতিনিধি 
০৬ জুন ২০২১, ০৫:৩৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

মানিকগঞ্জের সিংগাইরে চোরকে ধাওয়া করে চোরের হাতে প্রাণ গেল মো. তারা মিয়া (৪০) নামে এক যুবকের। শনিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার বায়রা ইউনিয়নের গারাদিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। 

এ ঘটনায় জড়িত থাকায় ৩ জনকে আটক করেছে পুলিশ। নিহত তারা মিয়া  মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার বেতিলা-মিতরা ইউনিয়নের অরঙ্গবাদ এলাকার মৃত নোমাজ আলীর ছেলে।

আটককৃতরা হলেন- পূর্ব অরঙ্গবাদ গ্রামের মোকসেদ আলীর ছেলে জাহিদুল ইসলাম (২৫), একই গ্রামের রাইজুদ্দিনের ছেলে শরিফ হোসেন (২৫) ও চুরির সঙ্গে জড়িত থাকায় আক্কাছের ছেলে আমজাদকে (৩০) আটক করেন।

সংশ্লিষ্টরা জানায়, গত শনিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১০টার দিকে মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার বেতিলা-মিতরা ইউনিয়নের অরঙ্গবাদ গ্রামের মৃত নোমাজ আলীর ছেলে আব্দুল মালেকের বাড়িতে চোর ঢুকে। এসময় মালেক সজাগ থাকায় টের পেয়ে ধাওয়া করেন। ২ জন চোর দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করে। 

চোর চোর বলে তাদের পিছু নেন মালেকের ছোট ভাই তারা মিয়া। এক পর্যায়ে সিংগাইর উপজেলা বায়রা ইউনিয়নের গারাদিয়া এলাকায় পৌঁছলে চোরদের হাতে থাকা লোহার রড দিয়ে তারা মিয়ার মাথায় আঘাত করে পালিয়ে যায়। তার চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে আসে তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করেন। পরে পরিবারের লোকজন সিংগাইর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে কর্তৃব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। 

এ ঘটনায় খবর পেয়ে ওই গত রাতেই বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে খুনের সঙ্গে জড়িত ২ জন ও চুরির সঙ্গে জড়িত ১ জনকে আটক করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে সিংগাইর থানার ওসি শফিকুল ইসলাম মোল্লা যুগান্তরকে বলেন, আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদের পর আরও কেউ জড়িত থাকলে অভিযান অব্যাহত থাকবে। আসামিদের আদালতে প্ররণ করা হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন