খেলতে গিয়ে পুকুরে পড়ে ভাই-বোনের মৃত্যু
jugantor
খেলতে গিয়ে পুকুরে পড়ে ভাই-বোনের মৃত্যু

  গাজীপুর প্রতিনিধি  

০৭ জুন ২০২১, ২০:৪৯:৪৪  |  অনলাইন সংস্করণ

গাজীপুরের ফাওকাল এলাকায় খেলতে গিয়ে পুকুরের পানিতে ডুবে দুই সহোদর ভাই-বোনের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার দুপুর দেড়টার দিকে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ফাওকাল পূর্বপাড়া চৌধুরীর পুকুরে ডুবে তাদের এ মর্মান্তিক মৃত্যু হয়।

নিহত সুমাইয়া (৮) ও ফয়সাল আহম্মেদ (৫) ওই এলাকার নুরুল ইসলামের সন্তান।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নিহতদের বাবা একজন দিনমজুর এবং মা গার্মেন্টস কর্মী। প্রতিদিনের ন্যায় নিহতের মা কাজে চলে যায় এবং বাবা শনিবার সারা রাত বাড়ির পাশে গরু পাহারা দেয়ায় দিনে ঘুমিয়ে ছিলেন। দুপুরের কোনো এক সময় সুমাইয়া এবং ফয়সাল তাদের বাড়ির দক্ষিণে মসজিদের পাশে চৌধুরীর পুকুর পাড়ে অন্যান্য শিশুদের সঙ্গে খেলতে যায়।

খেলার এক পর্যায়ে তিন শিশু পুকুরের পানিতে পরে যায়। বিষয়টি মসজিদের মুসল্লিদের নজরে আসলে তারা পানিতে নেমে তিন শিশুকে উদ্ধার করেন। উদ্ধারের পূর্বেই সুমাইয়া এবং ফয়সাল মারা যায়। অপর শিশু ওই এলাকার আব্দুর রাজ্জাকের মেয়ে তোয়াকে (৭) অসুস্থ অবস্থায় উদ্ধার করা হলে প্রাথমিক চিকিৎসায় সুস্থ হয়।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সৈয়দ রফিউল করিম জানান, খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে যাওয়ার পূর্বেই স্থানীয়রা মৃত শিশুদের উদ্ধার করেছেন। মৃত শিশুদের পরিববারের সদস্যদের সঙ্গে আলোচনা করে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

খেলতে গিয়ে পুকুরে পড়ে ভাই-বোনের মৃত্যু

 গাজীপুর প্রতিনিধি 
০৭ জুন ২০২১, ০৮:৪৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

গাজীপুরের ফাওকাল এলাকায় খেলতে গিয়ে পুকুরের পানিতে ডুবে দুই সহোদর ভাই-বোনের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার দুপুর দেড়টার দিকে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ফাওকাল পূর্বপাড়া চৌধুরীর পুকুরে ডুবে তাদের এ মর্মান্তিক মৃত্যু হয়।

নিহত সুমাইয়া (৮) ও ফয়সাল আহম্মেদ (৫) ওই এলাকার নুরুল ইসলামের সন্তান।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নিহতদের বাবা একজন দিনমজুর এবং মা গার্মেন্টস কর্মী। প্রতিদিনের ন্যায় নিহতের মা কাজে চলে যায় এবং বাবা শনিবার সারা রাত বাড়ির পাশে গরু পাহারা দেয়ায় দিনে ঘুমিয়ে ছিলেন। দুপুরের কোনো এক সময় সুমাইয়া এবং ফয়সাল তাদের বাড়ির দক্ষিণে মসজিদের পাশে চৌধুরীর পুকুর পাড়ে অন্যান্য শিশুদের সঙ্গে খেলতে যায়।

খেলার এক পর্যায়ে তিন শিশু পুকুরের পানিতে পরে যায়। বিষয়টি মসজিদের মুসল্লিদের নজরে আসলে তারা পানিতে নেমে তিন শিশুকে উদ্ধার করেন। উদ্ধারের পূর্বেই সুমাইয়া এবং ফয়সাল মারা যায়। অপর শিশু ওই এলাকার আব্দুর রাজ্জাকের মেয়ে তোয়াকে (৭) অসুস্থ অবস্থায় উদ্ধার করা হলে প্রাথমিক চিকিৎসায় সুস্থ হয়।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সৈয়দ রফিউল করিম জানান, খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে যাওয়ার পূর্বেই স্থানীয়রা মৃত শিশুদের উদ্ধার করেছেন। মৃত শিশুদের পরিববারের সদস্যদের সঙ্গে আলোচনা করে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন