রাতের আঁধারে ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে হত্যা
jugantor
রাতের আঁধারে ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে হত্যা

  হাতিয়া প্রতিনিধি  

১০ জুন ২০২১, ১০:৩৩:৪০  |  অনলাইন সংস্করণ

রবীন্দ্র দাস

নোয়াখালীর বিচ্ছিন্ন দ্বীপ হাতিয়া উপজেলায় রবীন্দ্র দাস (৩৫) নামে এক ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

বুধবার দিবাগত রাত ২টার দিকে উপজেলার চরঈশ্বর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত রবীন্দ্র চন্দ্র দাস হাতিয়া উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহসভাপতি ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য। তিনি উপজেলার চরঈশ্বর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের সতীশ চন্দ্র দাসের ছেলে।

জানা যায়, দিবাগত রাত ২টার দিকে চরঈশ্বর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডে নিজ বাড়িতে যাওয়ার পথে একদল দুর্বৃত্ত হঠাৎ তার ওপর চড়াও হয়। এ সময় তারা রবীন্দ্র দাসকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করে।

রবীন্দ্র দাসের চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে হাতিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

হাতিয়া থানার ওসি আবুল খায়ের যুগান্তরকে বলেন, নিহতের লাশ পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য নোয়াখালী সদরে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় এখনও কোনো মামলা হয়নি।

রাতের আঁধারে ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে হত্যা

 হাতিয়া প্রতিনিধি 
১০ জুন ২০২১, ১০:৩৩ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
রবীন্দ্র দাস
রবীন্দ্র দাস। ছবি: যুগান্তর

নোয়াখালীর বিচ্ছিন্ন দ্বীপ হাতিয়া উপজেলায় রবীন্দ্র দাস (৩৫) নামে এক ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।  

বুধবার দিবাগত রাত ২টার দিকে উপজেলার চরঈশ্বর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত রবীন্দ্র চন্দ্র দাস হাতিয়া উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহসভাপতি ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য। তিনি উপজেলার চরঈশ্বর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের সতীশ চন্দ্র দাসের ছেলে।

জানা যায়, দিবাগত রাত ২টার দিকে চরঈশ্বর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডে নিজ বাড়িতে যাওয়ার পথে একদল দুর্বৃত্ত হঠাৎ তার ওপর চড়াও হয়। এ সময় তারা রবীন্দ্র দাসকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করে।

রবীন্দ্র দাসের চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে হাতিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

হাতিয়া থানার ওসি আবুল খায়ের যুগান্তরকে বলেন, নিহতের লাশ পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য নোয়াখালী সদরে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় এখনও কোনো মামলা হয়নি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন