'ছেলেদের মতো মেয়েদেরও স্বাধীনভাবে বাড়ার সুযোগ দিতে হবে'
jugantor
'ছেলেদের মতো মেয়েদেরও স্বাধীনভাবে বাড়ার সুযোগ দিতে হবে'

  চিলমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি  

১০ জুন ২০২১, ২০:৪৪:০১  |  অনলাইন সংস্করণ

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন বলেছেন, ছেলেদের মতো করে মেয়েদেরও স্বাধীনভাবে বেড়ে ওঠার সুযোগ দিতে হবে। মেয়ে শিক্ষিত হলে সব জায়গায় নিজেদের স্থান করে নিতে পারবে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে আরডিআরএস চিলমারী অফিস চত্বরে সিডা ও প্ল্যান ইন্টারন্যাশনালের সহযোগিতায় বিল্ডিং বেটার ফিউচার ফর গার্লস বিবিএফজি প্রকল্পের উদ্যোগে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মাহবুবুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শওকত আলী সরকার বীরবিক্রম।

বক্তব্য রাখেন- মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা সখিনা খাতুন, চিলমারী প্রেস ক্লাব সভাপতি এসএম নুরুল আমিন সরকার, বিবিএফজি প্রকল্পের সমন্বয়কারী মো. আব্দুল্লাহ আল মামুন, প্রজেক্ট অফিসার রেদওয়ান সাথিল, উপজেলা সমন্বয়কারী ফারজানা ফৌজিয়া, চ্যাম্পিয়ন বাবা মো. আমিনুল ইসলাম, মো. ইনছাব আলী, মো. রফিকুল ইসলাম, মাওলানা মো. গোলাম মোস্তফা প্রমুখ। পরে চিলমারী উপজেলার ৫৪ জন চ্যাম্পিয়ন বাবার মাঝে ব্যাগ ও ছাতা উপহার প্রদান করা হয়।

'ছেলেদের মতো মেয়েদেরও স্বাধীনভাবে বাড়ার সুযোগ দিতে হবে'

 চিলমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি 
১০ জুন ২০২১, ০৮:৪৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন বলেছেন, ছেলেদের মতো করে মেয়েদেরও স্বাধীনভাবে বেড়ে ওঠার সুযোগ দিতে হবে। মেয়ে শিক্ষিত হলে সব জায়গায় নিজেদের স্থান করে নিতে পারবে। 

বৃহস্পতিবার দুপুরে আরডিআরএস চিলমারী অফিস চত্বরে সিডা ও প্ল্যান ইন্টারন্যাশনালের সহযোগিতায় বিল্ডিং বেটার ফিউচার ফর গার্লস বিবিএফজি প্রকল্পের উদ্যোগে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। 

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মাহবুবুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শওকত আলী সরকার বীরবিক্রম।

বক্তব্য রাখেন- মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা সখিনা খাতুন, চিলমারী প্রেস ক্লাব সভাপতি এসএম নুরুল আমিন সরকার, বিবিএফজি প্রকল্পের সমন্বয়কারী মো. আব্দুল্লাহ আল মামুন, প্রজেক্ট অফিসার রেদওয়ান সাথিল, উপজেলা সমন্বয়কারী ফারজানা ফৌজিয়া, চ্যাম্পিয়ন বাবা মো. আমিনুল ইসলাম, মো. ইনছাব আলী, মো. রফিকুল ইসলাম, মাওলানা মো. গোলাম মোস্তফা প্রমুখ। পরে চিলমারী উপজেলার ৫৪ জন চ্যাম্পিয়ন বাবার মাঝে ব্যাগ ও ছাতা উপহার প্রদান করা হয়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন