পিতা জেলে, স্ত্রী-সন্তান ১১৫ পিস ইয়াবাসহ আটক
jugantor
পিতা জেলে, স্ত্রী-সন্তান ১১৫ পিস ইয়াবাসহ আটক

  ভাঙ্গুড়া (পাবনা) প্রতিনিধি  

১১ জুন ২০২১, ০৩:৪৮:০৯  |  অনলাইন সংস্করণ

পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলায় ইয়াবা মামলায় জেলে থাকা হোসেন আলীর (৪৫) স্ত্রী আজিরন খাতুন (৩৮) ও ছেলে আশিককে (২০) ১১৫ পিস ইয়াবাসহ আটক করেছে ভাঙ্গুড়া থানা পুলিশ।

পাবনা পুলিশ সুপার মহিবুল ইসলাম খানের (বিপিএম) নির্দেশনায় ভাঙ্গুড়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মুহম্মদ আনোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম বৃহস্পিতার রাত সাড়ে এগারোটার দিকে ইয়াবা ব্যবসায়ী মা ও ছেলেকে তাদের নিজ বাড়ি থেকে আটক করেন। আটকের বিষয়টি তিনি নিজেই নিশ্চিত করেছেন।

ভাঙ্গুড়া থানা পুলিশের বরাতে জানা যায়, উপজেলার কুখ্যাত ইয়াবা করাবারী হোসেন আলী ছয় মাস আগে পুলিশের হাতে আটক হয়ে জেলে রয়েছে। এছাড়া অন্য একটি মামলায় ছয় মাসের সাজা খাটছে হোসেন।

তার অবর্তমানে ইয়াবার কারবার সচল রাখেন তার স্ত্রী আজিরন ও ছেলে আশিক। তাদের পাশ্ববর্তী চাটমোহর উপজেলায়ও ইয়াবা ব্যবসা রয়েছে। অল্প কিছুদিন আগে আশিক মাদক মামলায় জেল থেকে ছাড়া ফিরেছে। এরপর ছেলেকে সঙ্গে নিয়ে আরও বেপরোয়াভাবে ইয়াবার কারবার চালাতে থাকেন তারা।

বিষয়টি জানাতে পেরে দীর্ঘ দেড় মাস ধরে ভাঙ্গুড়া থানা পুলিশ তাদের গতিবিধি পর্যবেক্ষন করে। অবশেষে বৃস্পতিবার রাত সাড়ে এগাগোটায় উপজেলার সদর ইউপির নৌবাড়িয়ায় আজিরনের নিজ বাড়ি থেকে তাদের আটক করে। আটকের সময় তাদের কাছ থেকে ১১৫ পিছ ইয়াবা উদ্ধার করে।

ভাঙ্গুড়া থানা ভারপ্রাপ্ত (ওসি) মুহম্মদ আনোয়ার হোসেন যুগান্তরকে বলেন, মাদকের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে রয়েছে ভাঙ্গুড়া থানা পুলিশ।

তিনি আরও বলেন, আটক হওয়া পরিবারটি সম্পূর্ণরুপে মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত। দীর্ঘদিন তাদের গতিবিধি দেখা হচ্ছিল হাতেনাতে ধরতে। অবশেষে তার ফল পাওয়া গেছে। আশাকরি বিজ্ঞ আদালত তাদের বিষয়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নেবেন।

পিতা জেলে, স্ত্রী-সন্তান ১১৫ পিস ইয়াবাসহ আটক

 ভাঙ্গুড়া (পাবনা) প্রতিনিধি 
১১ জুন ২০২১, ০৩:৪৮ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলায় ইয়াবা মামলায় জেলে থাকা হোসেন আলীর (৪৫) স্ত্রী আজিরন খাতুন (৩৮) ও ছেলে আশিককে (২০) ১১৫ পিস ইয়াবাসহ আটক করেছে ভাঙ্গুড়া থানা পুলিশ। 

পাবনা পুলিশ সুপার মহিবুল ইসলাম খানের (বিপিএম) নির্দেশনায় ভাঙ্গুড়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মুহম্মদ আনোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম বৃহস্পিতার রাত সাড়ে এগারোটার দিকে ইয়াবা ব্যবসায়ী মা ও ছেলেকে তাদের নিজ বাড়ি থেকে আটক করেন। আটকের বিষয়টি তিনি নিজেই নিশ্চিত করেছেন।

ভাঙ্গুড়া থানা পুলিশের বরাতে জানা যায়, উপজেলার কুখ্যাত ইয়াবা করাবারী হোসেন আলী ছয় মাস আগে পুলিশের হাতে আটক হয়ে জেলে রয়েছে। এছাড়া অন্য একটি মামলায় ছয় মাসের সাজা খাটছে হোসেন। 

তার অবর্তমানে  ইয়াবার কারবার সচল রাখেন তার স্ত্রী আজিরন ও ছেলে আশিক। তাদের পাশ্ববর্তী চাটমোহর উপজেলায়ও ইয়াবা ব্যবসা রয়েছে। অল্প কিছুদিন আগে আশিক মাদক মামলায় জেল থেকে ছাড়া ফিরেছে। এরপর ছেলেকে সঙ্গে নিয়ে আরও বেপরোয়াভাবে ইয়াবার কারবার চালাতে থাকেন তারা। 

বিষয়টি জানাতে পেরে দীর্ঘ দেড় মাস ধরে ভাঙ্গুড়া থানা পুলিশ তাদের গতিবিধি পর্যবেক্ষন করে। অবশেষে বৃস্পতিবার রাত সাড়ে এগাগোটায় উপজেলার সদর ইউপির নৌবাড়িয়ায় আজিরনের নিজ বাড়ি থেকে তাদের আটক করে। আটকের সময় তাদের কাছ থেকে ১১৫ পিছ ইয়াবা উদ্ধার করে।

ভাঙ্গুড়া থানা ভারপ্রাপ্ত (ওসি) মুহম্মদ আনোয়ার হোসেন যুগান্তরকে বলেন, মাদকের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে রয়েছে ভাঙ্গুড়া থানা পুলিশ। 

তিনি আরও বলেন, আটক হওয়া পরিবারটি সম্পূর্ণরুপে মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত। দীর্ঘদিন তাদের গতিবিধি দেখা হচ্ছিল হাতেনাতে ধরতে। অবশেষে তার ফল পাওয়া গেছে। আশাকরি বিজ্ঞ আদালত তাদের বিষয়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নেবেন।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন