জুমার বয়ান কেন্দ্র করে ইমামকে হুমকি, আওয়ামী লীগ নেতা লাঞ্ছিত
jugantor
জুমার বয়ান কেন্দ্র করে ইমামকে হুমকি, আওয়ামী লীগ নেতা লাঞ্ছিত

  বরিশাল ব্যুরো   

১২ জুন ২০২১, ১৮:৩৪:৫২  |  অনলাইন সংস্করণ

জুমার বয়ানকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মী ও মুসল্লিদের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার বরিশাল নগরীর ১ নম্বর ওয়ার্ড পশ্চিম কাউনিয়া আওফ ইবনে সালামা (রা) সৌদি জামে মসজিদে এ ঘটে।

উপস্থিত মুসল্লিরা জানান, জুমার নামাজের বয়ান শেষে বরিশাল মহানগর পুলিশ কমিশনারের করোনায়স্বাস্থ্যবিধি নির্দেশনা সম্বলিত নোটিশ পড়ছিলেন মসজিদের ইমাম হাফেজ মাওলানা মো. মুজিবুর রহমান। এসময় উপস্থিত সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মাহাবুবুর রহমান (মধু) ইমাম খুতবায় জঙ্গিবাদী ও সরকার বিরোধী বক্তব্য দিয়েছেন বলে অভিযোগ তোলেন। এ ঘটনার উপস্থিত মুসল্লিরা তাৎক্ষণিক প্রতিবাদ করেন। একপর্যায় মুসল্লিদের সঙ্গে আওয়ামী সমর্থকদের কথা কাটাকাটি ও পরে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে।

পরিস্থিতি থামাতে ইমাম মজিবুর রহমান দ্রুত নামাজে দাঁড়িয়ে যান।কিন্তু কিছু মুসল্লি নামাজ না পড়েই মসজিদ ত্যাগ করেন। এ ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা দেখা দিলে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা ঘটনাস্থল পরির্দশন করেন

ঘটনার বিষয়ে বরিশাল সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মাহাবুবুর রহমান বলেন, ইমাম মুজিবুর রহমান মসজিদে জুমার দিন সরকার বিরোধী এবং জঙ্গিবাদী বক্তব্য দিয়ে আসছিলেন। এ নিয়ে মসজিদ সভাপতি ও তিনি প্রতিবাদ করেন। কিন্তু কিছু মুসল্লি তার ওপর হামলা করে।

ঘটনার পর আইনশঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পাশাপাশি মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর হোসেন, উপজেলা চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান রিন্টুসহ মহানগর আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা ঘটনাস্থল পরির্দশন করেন। স্থানীয় আওয়ামী লীগ রাতে ওই ইমামকে আরেক মসজিদে বদলি করার সিদ্ধান্ত নেন।

জুমার বয়ান কেন্দ্র করে ইমামকে হুমকি, আওয়ামী লীগ নেতা লাঞ্ছিত

 বরিশাল ব্যুরো  
১২ জুন ২০২১, ০৬:৩৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

জুমার বয়ানকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মী ও মুসল্লিদের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার বরিশাল নগরীর ১ নম্বর ওয়ার্ড পশ্চিম কাউনিয়া আওফ ইবনে সালামা (রা) সৌদি জামে মসজিদে এ ঘটে। 

উপস্থিত মুসল্লিরা জানান, জুমার নামাজের বয়ান শেষে বরিশাল মহানগর পুলিশ কমিশনারের করোনায় স্বাস্থ্যবিধি নির্দেশনা সম্বলিত নোটিশ পড়ছিলেন মসজিদের ইমাম হাফেজ মাওলানা মো. মুজিবুর রহমান। এসময় উপস্থিত সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মাহাবুবুর রহমান (মধু) ইমাম খুতবায় জঙ্গিবাদী ও সরকার বিরোধী বক্তব্য দিয়েছেন বলে অভিযোগ তোলেন। এ ঘটনার উপস্থিত মুসল্লিরা তাৎক্ষণিক প্রতিবাদ করেন। একপর্যায় মুসল্লিদের সঙ্গে আওয়ামী সমর্থকদের কথা কাটাকাটি ও পরে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। 

পরিস্থিতি থামাতে ইমাম মজিবুর রহমান দ্রুত নামাজে দাঁড়িয়ে যান। কিন্তু কিছু মুসল্লি নামাজ না পড়েই মসজিদ ত্যাগ করেন। এ ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা দেখা দিলে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা ঘটনাস্থল পরির্দশন করেন

ঘটনার বিষয়ে বরিশাল সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মাহাবুবুর রহমান বলেন, ইমাম মুজিবুর রহমান মসজিদে জুমার দিন সরকার বিরোধী এবং জঙ্গিবাদী বক্তব্য দিয়ে আসছিলেন। এ নিয়ে মসজিদ সভাপতি ও তিনি প্রতিবাদ করেন। কিন্তু কিছু মুসল্লি তার ওপর হামলা করে। 

ঘটনার পর আইনশঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পাশাপাশি মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর হোসেন, উপজেলা চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান রিন্টুসহ মহানগর আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা ঘটনাস্থল পরির্দশন করেন। স্থানীয় আওয়ামী লীগ রাতে ওই ইমামকে আরেক মসজিদে বদলি করার সিদ্ধান্ত নেন। 
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন