বরগুনায় আ.লীগ প্রার্থীর ৫ কর্মীকে কুপিয়ে জখমের অভিযোগ
jugantor
বরগুনায় আ.লীগ প্রার্থীর ৫ কর্মীকে কুপিয়ে জখমের অভিযোগ

  বেতাগী (বরগুনা) প্রতিনিধি  

১৩ জুন ২০২১, ১১:৪০:০২  |  অনলাইন সংস্করণ

প্রতীকী ছবি

বরগুনার বেতাগীতে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সহিংসতার জেরে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের প্রার্থীর পাঁচ কর্মীকে কুপিয়ে জখম করার অভিযোগ উঠেছে।

উপজেলার মোকামিয়া ইউনিয়নে শনিবার রাত ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন- মোশারেফ হাওলাদার সজিব (২৬), সাইদুল ইসলাম (২০), মো. বেলাল (১৯), শাকিল (১৮) ও মুফরাদ (২০)।

এর মধ্যে সজিবের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে বরিশালে শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

আহত সজিব বলেন, আমরা মোকামিয়া বাজারে খাঁনেরহাট বাজার থেকে মাদ্রাসা বাজারে আসার পথে লোকজন দেখে গাড়ি থামাই। কিছু বুঝে ওঠার আগেই তারা অন্ধকারে এলোপাথাড়ি মারধর ও কোপাতে শুরু করে। আমাদের চিৎকারে লোকজন আসলে তারা পালিয়ে যায়।

আওয়ামী লীগ প্রার্থী গাজী জালাল আহম্মেদ অভিযোগ করে বলেন, ওই এলাকায় তার যাওয়ার খবর পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকরা অন্ধকারের মধ্যে তার কর্মীদের গতিরোধ করে মারধর ও কুপিয়ে জখম এবং গাড়ি ভাঙচুর করেছে।

তবে স্বতন্ত্র প্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান মাহবুব আলম সুজন মল্লিক বলেন, প্রতিপক্ষের লোকজন নিজেরাই নিজেদের ওপর হামলা করে আমাদের ওপর দোষ চাপাচ্ছে।

তিনি বলেন, গত সোমবার আমার লোকদের কুপিয়ে জখম করেছিল তারা। ওই ঘটনায় মামলা হয়েছে। এখন পাল্টা মামলার জন্য তারা নাটক সাজিয়েছে।

বেতাগী থানার ওসি কাজী সাখাওয়াত হোসেন তপু বলেন, ঘটনার সঙ্গে সঙ্গে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বরগুনায় আ.লীগ প্রার্থীর ৫ কর্মীকে কুপিয়ে জখমের অভিযোগ

 বেতাগী (বরগুনা) প্রতিনিধি 
১৩ জুন ২০২১, ১১:৪০ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
প্রতীকী ছবি
প্রতীকী ছবি

বরগুনার বেতাগীতে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সহিংসতার জেরে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের প্রার্থীর পাঁচ কর্মীকে কুপিয়ে জখম করার অভিযোগ উঠেছে। 

উপজেলার মোকামিয়া ইউনিয়নে শনিবার রাত ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। 

আহতরা হলেন- মোশারেফ হাওলাদার সজিব (২৬), সাইদুল ইসলাম (২০), মো. বেলাল (১৯), শাকিল (১৮) ও মুফরাদ (২০)। 

এর মধ্যে সজিবের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে বরিশালে শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। 

আহত সজিব বলেন, আমরা মোকামিয়া বাজারে খাঁনেরহাট বাজার থেকে মাদ্রাসা বাজারে আসার পথে লোকজন দেখে গাড়ি থামাই। কিছু বুঝে ওঠার আগেই তারা অন্ধকারে এলোপাথাড়ি মারধর ও কোপাতে শুরু করে। আমাদের চিৎকারে লোকজন আসলে তারা পালিয়ে যায়।

আওয়ামী লীগ প্রার্থী গাজী জালাল আহম্মেদ অভিযোগ করে বলেন, ওই এলাকায় তার যাওয়ার খবর পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকরা অন্ধকারের মধ্যে তার কর্মীদের গতিরোধ করে মারধর ও কুপিয়ে জখম এবং গাড়ি ভাঙচুর করেছে।

তবে স্বতন্ত্র প্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান মাহবুব আলম সুজন মল্লিক বলেন, প্রতিপক্ষের লোকজন নিজেরাই নিজেদের ওপর হামলা করে আমাদের ওপর দোষ চাপাচ্ছে। 

তিনি বলেন, গত সোমবার আমার লোকদের কুপিয়ে জখম করেছিল তারা। ওই ঘটনায় মামলা হয়েছে। এখন পাল্টা মামলার জন্য তারা নাটক সাজিয়েছে। 
 
বেতাগী থানার ওসি কাজী সাখাওয়াত হোসেন তপু বলেন, ঘটনার সঙ্গে সঙ্গে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন