তাহিরপুরের সাবেক ইউএনওর বিরুদ্ধে দুদকের তদন্ত শুরু
jugantor
তাহিরপুরের সাবেক ইউএনওর বিরুদ্ধে দুদকের তদন্ত শুরু

  যুগান্তর প্রতিবেদন, তাহিরপুর (সুনামগঞ্জ)  

১৪ জুন ২০২১, ২২:২০:৪৩  |  অনলাইন সংস্করণ

পদ্মাসন সিংহ

সুনামগঞ্জের তাহিরপুর থেকে বদলিকৃত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনওর) বিরুদ্ধে দুদকের অভিযোগের তদন্ত শুরু হয়েছে। সোমবার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মো. জসীম উদ্দিন সরেজমিনে এসে তদন্তশুরু করেন। এ সময় ইউএনও নিজে তাহিরপুর উপজেলা সদরে উপস্থিত ছিলেন।

সম্প্রতি ইউএনও পদ্মাসন সিংহকে জেলার তাহিরপুর হতে জগন্নাথপুর উপজেলায় বদলি করা হয়।

দুদকেরঅভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, পদ্মাসন সিংহ তাহিরপুর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) থাকার সময় উপজেলার বড়দল উত্তর ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য গোলাম কিবরিয়া মেম্বারের সাথে যোগসাজশে বালুমহাল হতে অবৈধভাবে উত্তোলন বালু নিলামে বিক্রির প্রক্রিয়া বাধাগ্রস্ত করে সিন্ডিকেটের মাধ্যমে গোপনে বিক্রি করে আয়করসহ রাজস্ব ফাঁকি দেওয়ার চেষ্টা করেন।

পরবর্তীতে ইউএনওর সঙ্গেগোপন সমঝোতায় সরকারি কাজের অজুহাত তৈরি করে কিবরিয়া মেম্বার টানা কয়েকমাস ট্রলার (নৌযান) বোঝাই করে সরকারি মূল্য, ভ্যাট আয়কর বা কোন রকম রাজস্ব ছাড়াই কোটি টাকার বালু সরিয়ে অন্যত্র বিক্রি করেন।

সোমবার একাধিকবার ইউএনও পদ্মাসন সিংহ’র মুঠোফোনে কল দিয়েবক্তব্য জানার চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোনরিসিভ করেননি। এরপর ক্ষুদেবার্তা পাঠানো হলেও তিনি কোনো মন্তব্য করেননি।

সোমবার সন্ধ্যায় সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো. জসীম উদ্দিনের নিকট তদন্তের অগ্রগতি সম্পর্কে জানতে চাইলে যুগান্তরকে তিনি বলেন, সরেজমিনে তদন্ত কাজ প্রায় শেষ করেছি। এখন জেলা প্রশাসকের নিকট তদন্ত রিপোর্ট জমা দেওয়ার পর তিনি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন এবং তদন্ত প্রতিবেদন দুদকে প্রেরণ করবেন।

তাহিরপুরের সাবেক ইউএনওর বিরুদ্ধে দুদকের তদন্ত শুরু

 যুগান্তর প্রতিবেদন, তাহিরপুর (সুনামগঞ্জ) 
১৪ জুন ২০২১, ১০:২০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
পদ্মাসন সিংহ
পদ্মাসন সিংহ। ফাইল ছবি

সুনামগঞ্জের তাহিরপুর থেকে বদলিকৃত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনওর) বিরুদ্ধে দুদকের অভিযোগের তদন্ত শুরু হয়েছে। সোমবার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মো. জসীম উদ্দিন সরেজমিনে এসে তদন্ত শুরু করেন। এ সময় ইউএনও নিজে তাহিরপুর উপজেলা সদরে উপস্থিত ছিলেন। 

সম্প্রতি ইউএনও পদ্মাসন সিংহকে জেলার তাহিরপুর হতে জগন্নাথপুর উপজেলায় বদলি করা হয়।

দুদকের অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, পদ্মাসন সিংহ তাহিরপুর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) থাকার সময় উপজেলার বড়দল উত্তর ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য গোলাম কিবরিয়া মেম্বারের সাথে যোগসাজশে বালু মহাল হতে অবৈধভাবে উত্তোলন বালু নিলামে বিক্রির প্রক্রিয়া বাধাগ্রস্ত করে সিন্ডিকেটের মাধ্যমে গোপনে বিক্রি করে আয়করসহ রাজস্ব ফাঁকি দেওয়ার চেষ্টা করেন। 

পরবর্তীতে ইউএনওর সঙ্গে গোপন সমঝোতায় সরকারি কাজের অজুহাত তৈরি করে কিবরিয়া মেম্বার টানা কয়েকমাস ট্রলার (নৌযান) বোঝাই করে সরকারি মূল্য, ভ্যাট আয়কর বা কোন রকম রাজস্ব ছাড়াই কোটি টাকার বালু সরিয়ে অন্যত্র বিক্রি করেন।

সোমবার একাধিকবার ইউএনও পদ্মাসন সিংহ’র মুঠোফোনে কল দিয়ে বক্তব্য জানার চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি। এরপর ক্ষুদে বার্তা পাঠানো হলেও তিনি কোনো মন্তব্য করেননি।  

সোমবার সন্ধ্যায় সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো. জসীম উদ্দিনের নিকট তদন্তের অগ্রগতি সম্পর্কে জানতে চাইলে যুগান্তরকে তিনি বলেন, সরেজমিনে তদন্ত কাজ প্রায় শেষ করেছি। এখন জেলা প্রশাসকের নিকট তদন্ত রিপোর্ট জমা দেওয়ার পর তিনি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন এবং তদন্ত প্রতিবেদন দুদকে প্রেরণ করবেন।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন