এক ঘণ্টার পথ লাগে তিন ঘণ্টা
jugantor
এক ঘণ্টার পথ লাগে তিন ঘণ্টা

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

১৫ জুন ২০২১, ২২:০০:০৩  |  অনলাইন সংস্করণ

গাজীপুরে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে ব্যাপক যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। গতকাল সোমবার রাত থেকে বৃষ্টি শুরু হওয়ায় মহাসড়কের বিভিন্ন স্থানে পানি জমে আছে। এর প্রভাবে মঙ্গলবার সকাল থেকে মহাসড়কে যানজটের সৃষ্টি হয়।

ঘণ্টার পর ঘণ্টা যানজটে আটকে থেকে যাত্রীদের চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। মহাসড়কে এক ঘণ্টার পথ যেতে লাগছে তিন ঘণ্টা।

আউচপাড়া এলাকার ব্যবসায়ী মনির হোসেন বলেন, গাজীপুরের ভোগড়া এলাকা থেকে টঙ্গী স্টেশন রোড পর্যন্ত যেতেই আড়াই ঘণ্টার বেশি সময় লেগেছে। সাধারণত চান্দনা চৌরাস্তা থেকে আবদুল্লাহপুর পর্যন্ত যেতে সময় লাগে সর্বোচ্চ এক ঘণ্টা। কিন্তু বৃষ্টি আর গর্তে পানি জমে সেখানে সময় লাগছে তিন ঘণ্টারও বেশি।

মহানগরীর সাতাইশ এলাকার বাসিন্দা আবদুল লতিফ বলেন, সকালে স্টেশন রোড এলাকায় বালুভর্তি একটি বড় ট্রাক উল্টে যায়। এ কারণে দীর্ঘসময় ওই রাস্তায় যান চলাচল করতে পারেনি। বিআরটি প্রকল্পের কাজ চলমান থাকায় দুর্ভোগ বেড়েছে। মহাসড়কের দুই পাশে গভীর ড্রেনেজ ব্যবস্থা করা হলেও সেগুলো এখনো সচল হয়নি।

গাজীপুর মেট্রোপলিটনের ট্রাফিক পরিদর্শক সাহাদত হোসেন জানান, বৃষ্টির পানি নেমে গেলে বিকাল ৩টার দিকে গাজীপুরের ভোগড়া থেকে এরশাদনগর পর্যন্ত যানবাহন চলাচল কিছুটা স্বাভাবিক হয়। তবে চেরাগআলী থেকে আবদুল্লাহপুর পর্যন্ত থেমে থেমে যানজট লেগেই ছিল।

এ বিষয়ে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র জাহাঙ্গীর আলম জানান, বিআরটি প্রকল্পের কারণে জনগণের ভোগান্তি দিন দিন বেড়েই চলেছে। বিআরটি কর্মকর্তাদের উচিত তাড়াতাড়ি সড়কের সংস্কার কাজ করা।

এক ঘণ্টার পথ লাগে তিন ঘণ্টা

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
১৫ জুন ২০২১, ১০:০০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

গাজীপুরে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে ব্যাপক যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। গতকাল সোমবার রাত থেকে বৃষ্টি শুরু হওয়ায় মহাসড়কের বিভিন্ন স্থানে পানি জমে আছে। এর প্রভাবে মঙ্গলবার সকাল থেকে মহাসড়কে যানজটের সৃষ্টি হয়।

ঘণ্টার পর ঘণ্টা যানজটে আটকে থেকে যাত্রীদের চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। মহাসড়কে এক ঘণ্টার পথ যেতে লাগছে তিন ঘণ্টা।

আউচপাড়া এলাকার ব্যবসায়ী মনির হোসেন বলেন, গাজীপুরের ভোগড়া এলাকা থেকে টঙ্গী স্টেশন রোড পর্যন্ত যেতেই আড়াই ঘণ্টার বেশি সময় লেগেছে। সাধারণত চান্দনা চৌরাস্তা থেকে আবদুল্লাহপুর পর্যন্ত যেতে সময় লাগে সর্বোচ্চ এক ঘণ্টা। কিন্তু বৃষ্টি আর গর্তে পানি জমে সেখানে সময় লাগছে তিন ঘণ্টারও বেশি।

মহানগরীর সাতাইশ এলাকার বাসিন্দা আবদুল লতিফ বলেন, সকালে স্টেশন রোড এলাকায় বালুভর্তি একটি বড় ট্রাক উল্টে যায়। এ কারণে দীর্ঘসময় ওই রাস্তায় যান চলাচল করতে পারেনি। বিআরটি প্রকল্পের কাজ চলমান থাকায় দুর্ভোগ বেড়েছে। মহাসড়কের দুই পাশে গভীর ড্রেনেজ ব্যবস্থা করা হলেও সেগুলো এখনো সচল হয়নি।

গাজীপুর মেট্রোপলিটনের ট্রাফিক পরিদর্শক সাহাদত হোসেন জানান, বৃষ্টির পানি নেমে গেলে বিকাল ৩টার দিকে গাজীপুরের ভোগড়া থেকে এরশাদনগর পর্যন্ত যানবাহন চলাচল কিছুটা স্বাভাবিক হয়। তবে চেরাগআলী থেকে আবদুল্লাহপুর পর্যন্ত থেমে থেমে যানজট লেগেই ছিল।

এ বিষয়ে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র জাহাঙ্গীর আলম জানান, বিআরটি প্রকল্পের কারণে জনগণের ভোগান্তি দিন দিন বেড়েই চলেছে। বিআরটি কর্মকর্তাদের উচিত তাড়াতাড়ি সড়কের সংস্কার কাজ করা।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন