শ্বশুরকে মাদক ব্যবসায়ী বলায় সংঘর্ষ, প্রাণ গেল যুবকের
jugantor
শ্বশুরকে মাদক ব্যবসায়ী বলায় সংঘর্ষ, প্রাণ গেল যুবকের

  যুগান্তর প্রতিবেদন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া:   

১৫ জুন ২০২১, ২২:৪৪:৫৩  |  অনলাইন সংস্করণ

জিহাদ মিয়া ও মালু মিয়া

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগরে দুই বেয়াই পক্ষের লোকজনের সংঘর্ষে জিহাদ নামের এক যুবক নিহত হয়েছে। মঙ্গলবার বিকালে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। নিহত জিহাদ ওই এলাকার মালেক মিয়ার ছেলে।

ঘটনায় সম্পৃক্ততার থাকার অভিযোগে মালু মিয়াকে নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, কাশিনগরের ইব্রাহিম মিয়ার মেয়ে নিপা আক্তারকে বিয়ে করেন একই এলাকার মালু মিয়ার ছেলে প্রবাসী সেলিম মিয়া। সম্প্রতি নিপার সঙ্গে সেলিমের মনোমালিন্য চলছিল। এ নিয়ে দুই পরিবারের মধ্য সম্পর্কের অবনতি হয়।

সোমবার প্রবাসে থাকা সেলিমের সঙ্গে মোবাইলে স্ত্রী নিপার তর্ক-বিতর্ক চলাকালে সেলিম তার শ্বশুরকে মাদক ব্যবসায়ী বলে আখ্যায়িত করেন। বিষয়টি নিপা তার বাবা ইব্রাহিমকে জানালে তার লোকজন সেলিমের বাড়িতে গিয়ে হামলা করে।

মঙ্গলবার সকালে ইব্রাহিমের লোকজনকে স্থানীয় বাজারে পেয়ে মালু মিয়ার লোকজন পাল্টা হামলা করে। এ নিয়ে গ্রামের সড়কে দুই পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এ সময় ইব্রাহিমের পক্ষের জিহাদ মিয়াকে ছুরিকাঘাত কারা হলে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে তাকে ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে বিকেল সোয়া ৩টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

এ বিষয়ে বিজয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা লোকমান হোসেন বলেন, খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়। ইব্রাহিম মিয়ার বেয়াই মালু মিয়াকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মরদেহ জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে ময়নাতদন্তের জন্য রাখা হয়েছে।

শ্বশুরকে মাদক ব্যবসায়ী বলায় সংঘর্ষ, প্রাণ গেল যুবকের

 যুগান্তর প্রতিবেদন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া:  
১৫ জুন ২০২১, ১০:৪৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
জিহাদ মিয়া ও মালু মিয়া
নিহত জিহাদ মিয়া ও গ্রেফতার মালু মিয়া

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগরে দুই বেয়াই পক্ষের লোকজনের সংঘর্ষে জিহাদ নামের এক যুবক  নিহত হয়েছে। মঙ্গলবার বিকালে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। নিহত জিহাদ ওই এলাকার মালেক মিয়ার ছেলে।

ঘটনায় সম্পৃক্ততার থাকার অভিযোগে মালু মিয়াকে নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, কাশিনগরের ইব্রাহিম মিয়ার মেয়ে নিপা আক্তারকে বিয়ে করেন একই এলাকার মালু মিয়ার ছেলে প্রবাসী সেলিম মিয়া। সম্প্রতি নিপার সঙ্গে সেলিমের মনোমালিন্য চলছিল। এ নিয়ে দুই পরিবারের মধ্য সম্পর্কের অবনতি হয়। 

সোমবার প্রবাসে থাকা সেলিমের সঙ্গে মোবাইলে স্ত্রী নিপার তর্ক-বিতর্ক চলাকালে সেলিম তার শ্বশুরকে মাদক ব্যবসায়ী বলে আখ্যায়িত করেন। বিষয়টি নিপা তার বাবা ইব্রাহিমকে জানালে তার লোকজন সেলিমের বাড়িতে গিয়ে হামলা করে।

মঙ্গলবার সকালে ইব্রাহিমের লোকজনকে স্থানীয় বাজারে পেয়ে মালু মিয়ার লোকজন পাল্টা হামলা করে। এ নিয়ে গ্রামের সড়কে দুই পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।  এ সময় ইব্রাহিমের পক্ষের জিহাদ মিয়াকে ছুরিকাঘাত কারা হলে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে তাকে ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে বিকেল সোয়া ৩টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

এ বিষয়ে বিজয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা লোকমান হোসেন বলেন, খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়। ইব্রাহিম মিয়ার বেয়াই মালু মিয়াকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মরদেহ জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে ময়নাতদন্তের জন্য রাখা হয়েছে।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন