জাদুকাটা নদী থেকে শ্রমিকের লাশ উদ্ধার
jugantor
জাদুকাটা নদী থেকে শ্রমিকের লাশ উদ্ধার

  যুগান্তর প্রতিবেদন, তাহিরপুর  

১৯ জুন ২০২১, ২০:১৬:৩৮  |  অনলাইন সংস্করণ

নিখোঁজের একদিন পর জাদুকাটা নদীতে খননকৃত কোয়ারির গভীর তলদেশ থেকে হাসিনুর মিয়া নামে এক শ্রমিকের লাশ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল।

শনিবার বেলা ১টার দিকে সীমান্ত নদী জাদুকাটার বড়টেক এলাকার তীরবর্তী মাঝেরচর হতে ওই শ্রমিকের লাশ উদ্ধার করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন থানার ওসি মো.আব্দুল লতিফ তরফদার। নিহত হাসিনুর উপজেলার বাদাঘাট ইউনিয়নের ঘাগটিয়া টেকেরগাঁওয়ের আক্কাস আলীর ছেলে।

প্রসঙ্গত, শুক্রবার দুপুরের দিকে জাদুকাটা নদীর বড়টেকের মাঝেরচর এলাকায় লাকড়িবোঝাই একটি নৌকা ডুবে যায়। এ সময় পানিতে ডুবে যান হাসিনুরসহ তিন শ্রমিক।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শুক্রবার সকালের দিকে জাদুকাটা নদীতে ওপারের পাহাড়ি ঢলে ভেসে আসা লাকড়ি উত্তোলনে যান টেকেরগাঁওয়ের হাসিনুরসহ তিন শ্রমিক।

লাকড়ি উত্তোলন শেষে দুপুরে নৌকা নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে বড়গোফের (বারেকটিলা) খেয়াঘাট হতে তিনটি স্পিডবোড দ্রুতগতিতে জাদুকাটা নদী অতিক্রমকালে প্রবল ঢেউয়ের তোড়ে লাকড়িবোঝাই নৌকাসহ তিন শ্রমিক পানিতে ডুবে যান।

এরপর দুই শ্রমিক সাঁতরে তীরে উঠলেও সাথে থাকা অপর শ্রমিক হাসিনুর জাদুকাটায় নিখোঁজ হন। স্থানীয় লোকজন নৌকাটি ঘণ্টাখানেক চেষ্টা চালিয়ে উদ্ধার করেন।

শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে জেলার বিশ্বম্ভরপুর থেকে ফায়ার সার্ভিসের পাঁচ সদস্যের ডুবুরি দল নদীতে নেমে নিখোঁজ হাসিনুরের সন্ধানে নামলেও রাতে বৈরী আবহাওয়ার কারণে উদ্ধার অভিযান বন্ধ করে দেওয়া হয়।

শনিবার ভোরে জাদুকাটায় ফের ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল উদ্ধার অভিযানে নামে। নদীর বড়টেক এলাকার মাঝেরচরে অতীতে অবৈধভাবে খননকৃত খনিজ বালু-পাথরের একটি কোয়ারির গভীর তলদেশ থেকে হাসিনুরের লাশ বেলা ১টার দিকে উদ্ধার করা হয়।

জাদুকাটা নদী থেকে শ্রমিকের লাশ উদ্ধার

 যুগান্তর প্রতিবেদন, তাহিরপুর 
১৯ জুন ২০২১, ০৮:১৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নিখোঁজের একদিন পর জাদুকাটা নদীতে খননকৃত কোয়ারির গভীর তলদেশ থেকে হাসিনুর মিয়া নামে এক শ্রমিকের লাশ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল।

শনিবার বেলা ১টার দিকে সীমান্ত নদী জাদুকাটার বড়টেক এলাকার তীরবর্তী মাঝেরচর হতে ওই শ্রমিকের লাশ উদ্ধার করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন থানার ওসি মো.আব্দুল লতিফ তরফদার। নিহত হাসিনুর উপজেলার বাদাঘাট ইউনিয়নের ঘাগটিয়া টেকেরগাঁওয়ের আক্কাস আলীর ছেলে।

প্রসঙ্গত, শুক্রবার দুপুরের দিকে জাদুকাটা নদীর বড়টেকের মাঝেরচর এলাকায় লাকড়িবোঝাই একটি নৌকা ডুবে যায়। এ সময় পানিতে ডুবে যান হাসিনুরসহ তিন শ্রমিক।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শুক্রবার সকালের দিকে জাদুকাটা নদীতে ওপারের পাহাড়ি ঢলে ভেসে আসা লাকড়ি উত্তোলনে যান টেকেরগাঁওয়ের হাসিনুরসহ তিন শ্রমিক।

লাকড়ি উত্তোলন শেষে দুপুরে নৌকা নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে বড়গোফের (বারেকটিলা) খেয়াঘাট হতে তিনটি স্পিডবোড দ্রুতগতিতে জাদুকাটা নদী অতিক্রমকালে প্রবল ঢেউয়ের তোড়ে লাকড়িবোঝাই নৌকাসহ তিন শ্রমিক পানিতে ডুবে যান।

এরপর দুই শ্রমিক সাঁতরে তীরে উঠলেও সাথে থাকা অপর শ্রমিক হাসিনুর জাদুকাটায় নিখোঁজ হন। স্থানীয় লোকজন নৌকাটি ঘণ্টাখানেক চেষ্টা চালিয়ে উদ্ধার করেন।

শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে জেলার বিশ্বম্ভরপুর থেকে ফায়ার সার্ভিসের পাঁচ সদস্যের ডুবুরি দল নদীতে নেমে নিখোঁজ হাসিনুরের সন্ধানে নামলেও রাতে বৈরী আবহাওয়ার কারণে উদ্ধার অভিযান বন্ধ করে দেওয়া হয়।

শনিবার ভোরে জাদুকাটায় ফের ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল উদ্ধার অভিযানে নামে। নদীর বড়টেক এলাকার মাঝেরচরে অতীতে অবৈধভাবে খননকৃত খনিজ বালু-পাথরের একটি কোয়ারির গভীর তলদেশ থেকে হাসিনুরের লাশ বেলা ১টার দিকে উদ্ধার করা হয়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন