দক্ষিণ আফ্রিকায় ডাকাতের গুলিতে বাংলাদেশি নিহত
jugantor
দক্ষিণ আফ্রিকায় ডাকাতের গুলিতে বাংলাদেশি নিহত

  দাগনভুঞা (ফেনী) প্রতিনিধি  

১৯ জুন ২০২১, ২০:৪৬:১৭  |  অনলাইন সংস্করণ

দাগনভূঞার এয়াকুবপুর ইউনিয়নের মিদ্দারহাট এলাকার হুমায়ুন কবির তানিমকে (২৯) কৃষ্ণাঙ্গ ডাকাতরা গুলি করে হত্যা এবং দোকানের মালামাল লুট করে নিয়ে গেছে। ঘটনাটি শুক্রবার বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা ঘটে।

লুটকৃত দোকানের মালিক আবদুল আউয়াল তানসেন যুগান্তরকে জানান, চার বছর আগে আমি আমার ভাগিনা হুমায়ুন কবিরকে পারিবারিক সুখের জন্য আমার মালিকানায় দোকান রুদ্র জেনারেল ট্রেডিংয়ে নিয়ে যাই।

গত মাসে আমি ভাগিনা হুমায়ুনকে দোকানের দায়িত্বে রেখে বাড়ি আসি। আমার দোকানটা ছিল দক্ষিণ আফ্রিকার রাজধানীর জোহানসবার্গের উপশহর লেনিশিয়ায়। গত শনিবার সন্ধ্যায় আফ্রিকার কৃষ্ণাঙ্গ ডাকাতরা আমার দোকানে ঢুকে লুটপাট শুরু করলে ভাগিনা হুমায়ুন বাধা দেয়। তাতে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে খুব কাছ থেকে তাকে গুলি করে দোকানের নগদ অর্থসহ মালামাল লুটপাট করে নিয়ে যায়।

দোকানের অন্যান্য কর্মচারীরা রক্তাক্ত অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার হুমায়ুনকে মৃত ঘোষণা করেন। নিহত হুমায়ুন কবির তানিম উপজেলার মিদ্দারহাট এলাকার মৃত আবুল কাশেমের পুত্র। উপার্জনক্ষম ছেলের মৃত্যুতে মা জোসনা আরা বেগম বারবার মূর্ছা যাচ্ছেন। এলাকায় ও স্বজনদের মাঝে শোকের মাতম চলছে।

দক্ষিণ আফ্রিকায় ডাকাতের গুলিতে বাংলাদেশি নিহত

 দাগনভুঞা (ফেনী) প্রতিনিধি 
১৯ জুন ২০২১, ০৮:৪৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

দাগনভূঞার এয়াকুবপুর ইউনিয়নের মিদ্দারহাট এলাকার হুমায়ুন কবির তানিমকে (২৯) কৃষ্ণাঙ্গ ডাকাতরা গুলি করে হত্যা এবং দোকানের মালামাল লুট করে নিয়ে গেছে। ঘটনাটি শুক্রবার বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা ঘটে।

লুটকৃত দোকানের মালিক আবদুল আউয়াল তানসেন যুগান্তরকে জানান, চার বছর আগে আমি আমার ভাগিনা হুমায়ুন কবিরকে পারিবারিক সুখের জন্য আমার মালিকানায় দোকান রুদ্র জেনারেল ট্রেডিংয়ে নিয়ে যাই। 

গত মাসে আমি ভাগিনা হুমায়ুনকে দোকানের দায়িত্বে রেখে বাড়ি আসি। আমার দোকানটা ছিল দক্ষিণ আফ্রিকার রাজধানীর জোহানসবার্গের উপশহর লেনিশিয়ায়। গত শনিবার সন্ধ্যায় আফ্রিকার কৃষ্ণাঙ্গ ডাকাতরা আমার দোকানে ঢুকে লুটপাট শুরু করলে ভাগিনা হুমায়ুন বাধা দেয়। তাতে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে খুব কাছ থেকে তাকে গুলি করে দোকানের নগদ অর্থসহ মালামাল লুটপাট করে নিয়ে যায়। 

দোকানের অন্যান্য কর্মচারীরা রক্তাক্ত অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার হুমায়ুনকে মৃত ঘোষণা করেন। নিহত হুমায়ুন কবির তানিম উপজেলার মিদ্দারহাট এলাকার মৃত আবুল কাশেমের পুত্র। উপার্জনক্ষম ছেলের মৃত্যুতে মা জোসনা আরা বেগম বারবার মূর্ছা যাচ্ছেন। এলাকায় ও স্বজনদের মাঝে শোকের মাতম চলছে।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন