রোহিঙ্গা দম্পতির ঘরের মেঝে খুঁড়ে মিলল অঢেল সম্পদ! (ভিডিও)
jugantor
রোহিঙ্গা দম্পতির ঘরের মেঝে খুঁড়ে মিলল অঢেল সম্পদ! (ভিডিও)

  কক্সবাজার ও উখিয়া প্রতিনিধি  

২০ জুন ২০২১, ২১:৫৬:২৪  |  অনলাইন সংস্করণ

কক্সবাজারের উখিয়া কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ৫নং ক্যাম্পে রোহিঙ্গা দম্পতির ঘরের মেঝে খুঁড়ে মিলল ৭০ ভরি স্বর্ণ, মিয়ানমারের ৩১ লাখ ৭৪ হজার ৮শ' কিয়েট এবং বাংলাদেশি ২৬ লাখ ৩ হাজার ১২০ টাকা।

শনিবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ক্যাম্প-৫-এর ‘এ’ ব্লকে অভিযান চালিয়ে রোহিঙ্গা দম্পতিকে আটক করেছে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে কর্মরত এপিবিএনের সদস্যরা।

আটককৃতরা হলেন- ক্যাম্প-৫-এর মো. ইসলামের ছেলে মো. আইয়ুব (৩৪) এবং আইয়ুবের স্ত্রী নুরু নেসা (৩৩)।

১৪ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক (এসপি) মো. নাইমুল হক তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আর্মড পুলিশের সদস্যরা জানতে পারেন যে স্বর্ণ চোরাকারবারী রোহিঙ্গা আইয়ুবের বসত ঘরে স্বর্ণের মজুদ রয়েছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে তার বাড়িতে অভিযান পরিচালনা করে তাকে আটক করা হয়।

পরে তার দেয়া তথ্যমতে বসত ঘরের অভ্যন্তরে মাটি খুঁড়ে মিয়ানমারের ৩১ লাখ ৭৪ হাজার ৮শ' কিয়েট এবং ২৬ লাখ ৩ হাজার ১২০ বিশ টাকা, ৩টি স্বর্ণের বার, ১৯টি আংটি, ২ জোড়া কানের দুল, ২টি ছোট টিকলি, ১টি ব্রেসলেট, ৪টি চেইন (লকেটসহ ৩টি এবং লকেট ছাড়া ১টি), চুলের ক্লিপ ২টি, চুড়ি ৮টি, নাকের ফুল ১টি এবং গলার নেকলেস ১টিসহ ৭০ ভরি স্বর্ণ উদ্ধার করা হয়। আটক করা হয় তার স্ত্রীকেও।

এপিবিএনের এই কর্মকর্তা বলেন, স্বর্ণ চোরাচালানের সঙ্গে জড়িতদের চিহ্নিত করার চেষ্টা চলছে। এর পেছনে অন্য কোনো কারণ রয়েছে কিনা তাও খুঁজে বের করতে কাজ করছে এপিবিএন।

আইনগত প্রক্রিয়া শেষে আটককৃতদের উখিয়া থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

জানতে চাইলে উখিয়া থানার ওসি মো. সঞ্জুর মোর্শেদ বলেন, বিপুল পরিমাণ মিয়ানমারের কিয়েট, স্বর্ণ এবং বাংলাদেশি টাকাসহ রোহিঙ্গা দম্পতিকে আটক করেছে বলে জেনেছি। তবে এখনো আমাদের কাছে হস্তান্তর করা হয়নি।

রোহিঙ্গা দম্পতির ঘরের মেঝে খুঁড়ে মিলল অঢেল সম্পদ! (ভিডিও)

 কক্সবাজার ও উখিয়া প্রতিনিধি 
২০ জুন ২০২১, ০৯:৫৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কক্সবাজারের উখিয়া কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ৫নং ক্যাম্পে রোহিঙ্গা দম্পতির ঘরের মেঝে খুঁড়ে মিলল ৭০ ভরি স্বর্ণ, মিয়ানমারের ৩১ লাখ ৭৪ হজার ৮শ' কিয়েট এবং বাংলাদেশি ২৬ লাখ ৩ হাজার ১২০ টাকা।

শনিবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ক্যাম্প-৫-এর ‘এ’ ব্লকে অভিযান চালিয়ে রোহিঙ্গা দম্পতিকে আটক করেছে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে কর্মরত এপিবিএনের সদস্যরা।

আটককৃতরা হলেন- ক্যাম্প-৫-এর মো. ইসলামের ছেলে মো. আইয়ুব (৩৪) এবং আইয়ুবের স্ত্রী নুরু নেসা (৩৩)।

১৪ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক (এসপি) মো. নাইমুল হক তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আর্মড পুলিশের সদস্যরা জানতে পারেন যে স্বর্ণ চোরাকারবারী রোহিঙ্গা আইয়ুবের বসত ঘরে স্বর্ণের মজুদ রয়েছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে তার বাড়িতে অভিযান পরিচালনা করে তাকে আটক করা হয়। 

পরে তার দেয়া তথ্যমতে বসত ঘরের অভ্যন্তরে মাটি খুঁড়ে মিয়ানমারের ৩১ লাখ ৭৪ হাজার ৮শ' কিয়েট এবং ২৬ লাখ ৩ হাজার ১২০ বিশ টাকা, ৩টি স্বর্ণের বার, ১৯টি আংটি, ২ জোড়া কানের দুল, ২টি ছোট টিকলি, ১টি ব্রেসলেট, ৪টি চেইন (লকেটসহ ৩টি এবং লকেট ছাড়া ১টি), চুলের ক্লিপ ২টি, চুড়ি ৮টি, নাকের ফুল ১টি এবং গলার নেকলেস ১টিসহ ৭০ ভরি স্বর্ণ উদ্ধার করা হয়। আটক করা হয় তার স্ত্রীকেও।

এপিবিএনের এই কর্মকর্তা বলেন, স্বর্ণ চোরাচালানের সঙ্গে জড়িতদের চিহ্নিত করার চেষ্টা চলছে। এর পেছনে অন্য কোনো কারণ রয়েছে কিনা তাও খুঁজে বের করতে কাজ করছে এপিবিএন।

আইনগত প্রক্রিয়া শেষে আটককৃতদের উখিয়া থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

জানতে চাইলে উখিয়া থানার ওসি মো. সঞ্জুর মোর্শেদ বলেন, বিপুল পরিমাণ মিয়ানমারের কিয়েট, স্বর্ণ এবং বাংলাদেশি টাকাসহ রোহিঙ্গা দম্পতিকে আটক করেছে বলে জেনেছি। তবে এখনো আমাদের কাছে হস্তান্তর করা হয়নি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন