প্রথমবারের মতো ইভিএমে ভোট দিলেন নৌ প্রতিমন্ত্রী
jugantor
প্রথমবারের মতো ইভিএমে ভোট দিলেন নৌ প্রতিমন্ত্রী

  দিনাজপুর ও বিরল প্রতিনিধি  

২১ জুন ২০২১, ২১:৩৫:৫৪  |  অনলাইন সংস্করণ

প্রথমবারের মতো ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোট দিলেন নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী। নিজ নির্বাচনী এলাকা দিনাজপুরের সেতাবগঞ্জ পৌরসভায় সাধারণ মানুষের মতো দীর্ঘক্ষণ লাইনে দাঁড়িয়ে থেকেই সোমবার এই ভোট দানে অংশ নেন তিনি।

দীর্ঘ ১০ বছর পর সোমবার অনুষ্ঠিত হয় দিনাজপুর জেলার সেতাবগঞ্জ পৌরসভার ভোটগ্রহণ। এই পৌরসভায় প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হয় ইভিএমে ভোটগ্রহণ। সকাল ৯টায় নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী ভোট দিতে যান তার নির্বাচন কেন্দ্র ধনতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে।

এ সময় সাধারণ মানুষের সঙ্গে লাইনে দাঁড়িয়েই ভোট দেয়ার জন্য অপেক্ষা করেন তিনি। দীর্ঘক্ষণ লাইনে থাকার পর ইভিএমে নিজের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন তিনি।

ভোট দেয়ার পর নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী সাংবাদিকদের বলেন, ভোট দিয়ে ভালো লাগলো এই কারণেই যে, আমি প্রথম বারের মতো ইভিএম-এ ভোট দিলাম। এটি খুবই একটি সুন্দর পদ্ধতি। এই পদ্ধতিতে ভোট দিতে সময় নষ্ট হচ্ছে না, ঝামেলা কম, ভোট নষ্ট হওয়ার কোনো সুযোগ নেই এবং খুব দ্রুতই আমরা ফলাফল পেয়ে যাব।

এটি একটি ভালো পদ্ধতি উল্লেখ করে তিনি বলেন, খুব দ্রুতই সবাই ভোট দিয়ে ভোট কেন্দ্র থেকে বের হয়ে আসছে।

এদিকে দীর্ঘ ১০ বছর পর সোমবার অনুষ্ঠিত হয় দিনাজপুরের সেতাবগঞ্জ পৌরসভার ভোটগ্রহণ। সকাল ৮টায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়, একটানা চলে বিকাল ৪টা পর্যন্ত।

সেতাবগঞ্জ পৌরসভার ১২টি ওয়ার্ডে মোট ২১ হাজার ৩৫৮ জন ভোটারের জন্য স্থাপন করা হয় ১০টি ভোটকেন্দ্র। নির্বাচনে মেয়র পদে ৫ জন, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৫১ জন এবং সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ১২ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণের জন্য নেয়া হয় ব্যাপক নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা।

উল্লেখ্য, ২০১১ সালে অনুষ্ঠিত হয় এই পৌরসভার নির্বাচন। এরপর সীমানা জটিলতার কারণে নির্দিষ্ট সময়ে অনুষ্ঠিত হয়নি ভোটগ্রহণ।

প্রথমবারের মতো ইভিএমে ভোট দিলেন নৌ প্রতিমন্ত্রী

 দিনাজপুর ও বিরল প্রতিনিধি 
২১ জুন ২০২১, ০৯:৩৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

প্রথমবারের মতো ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোট দিলেন নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী। নিজ নির্বাচনী এলাকা দিনাজপুরের সেতাবগঞ্জ পৌরসভায় সাধারণ মানুষের মতো দীর্ঘক্ষণ লাইনে দাঁড়িয়ে থেকেই সোমবার এই ভোট দানে অংশ নেন তিনি।

দীর্ঘ ১০ বছর পর সোমবার অনুষ্ঠিত হয় দিনাজপুর জেলার সেতাবগঞ্জ পৌরসভার ভোটগ্রহণ। এই পৌরসভায় প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হয় ইভিএমে ভোটগ্রহণ। সকাল ৯টায় নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী ভোট দিতে যান তার নির্বাচন কেন্দ্র ধনতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে।

এ সময় সাধারণ মানুষের সঙ্গে লাইনে দাঁড়িয়েই ভোট দেয়ার জন্য অপেক্ষা করেন তিনি। দীর্ঘক্ষণ লাইনে থাকার পর ইভিএমে নিজের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন তিনি।

ভোট দেয়ার পর নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী সাংবাদিকদের বলেন, ভোট দিয়ে ভালো লাগলো এই কারণেই যে, আমি প্রথম বারের মতো ইভিএম-এ ভোট দিলাম। এটি খুবই একটি সুন্দর পদ্ধতি। এই পদ্ধতিতে ভোট দিতে সময় নষ্ট হচ্ছে না, ঝামেলা কম, ভোট নষ্ট হওয়ার কোনো সুযোগ নেই এবং খুব দ্রুতই আমরা ফলাফল পেয়ে যাব।

এটি একটি ভালো পদ্ধতি উল্লেখ করে তিনি বলেন, খুব দ্রুতই সবাই ভোট দিয়ে ভোট কেন্দ্র থেকে বের হয়ে আসছে।

এদিকে দীর্ঘ ১০ বছর পর সোমবার অনুষ্ঠিত হয় দিনাজপুরের সেতাবগঞ্জ পৌরসভার ভোটগ্রহণ। সকাল ৮টায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়, একটানা চলে বিকাল ৪টা পর্যন্ত।

সেতাবগঞ্জ পৌরসভার ১২টি ওয়ার্ডে মোট ২১ হাজার ৩৫৮ জন ভোটারের জন্য স্থাপন করা হয় ১০টি ভোটকেন্দ্র। নির্বাচনে মেয়র পদে ৫ জন, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৫১ জন এবং সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ১২ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণের জন্য নেয়া হয় ব্যাপক নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা।

উল্লেখ্য, ২০১১ সালে অনুষ্ঠিত হয় এই পৌরসভার নির্বাচন। এরপর সীমানা জটিলতার কারণে নির্দিষ্ট সময়ে অনুষ্ঠিত হয়নি ভোটগ্রহণ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন