লাঠি দিয়ে মাকে পিটিয়ে হাসপাতালে পাঠাল ছেলে
jugantor
লাঠি দিয়ে মাকে পিটিয়ে হাসপাতালে পাঠাল ছেলে

  সুজানগর (পাবনা) প্রতিনিধি   

২৪ জুন ২০২১, ১৯:১৫:২৮  |  অনলাইন সংস্করণ

পাবনার সুজানগরে বৃদ্ধা মাকে লাঠি দিয়ে বেধড়ক পিটিয়ে আহত করেছে ছেলে ভূষণ কুমার সরকার। এ ঘটনার বিচার চেয়ে বৃহস্পতিবার থানায় অভিযোগ দিয়েছেন ভুক্তভোগী মা মিনতী বালা সরকার।

গত বুধবার রাত ৯টার দিকে উপজেলার ভাঁয়না ইউনিয়নের ভাঁয়না গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পরে স্থানীয়রা মিনতী বালা সরকারকে উদ্ধার করে সুজানগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

কান্নাজড়িত কণ্ঠে ভুক্তভোগী মিনতী বালা সরকার বলেন, ১০ মাস যাকে গর্ভে ধারণ করে পৃথিবীর আলো দেখিয়েছি। ছেলে ছোট থাকা অবস্থায় স্বামী মারা যাওয়ার পরও খেয়ে না খেয়ে যাকে কোলেপিঠে করে বড় করেছি- সেই ছেলে এখন বড় হয়ে আমাকে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে আহত করল। কাকে জানাব এ লজ্জার কথা।

পারিবারিক তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে তাকে মারধর করা হয় বলে জানান তিনি। এছাড়া এর আগেও ছেলে ও পুত্রবধূ তাকে অনেক নির্যাতন করেছে বলে জানান তিনি।

স্থানীয় এলাকাবাসী জানান, বিষয়টি নিয়ে চাঞ্চল্যকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। ভূষণ কুমার সরকার এলাকার কোনো মানুষকেই তোয়াক্কা করছে না। ছেলে ও পুত্রবধূর হাতে ওই বৃদ্ধা মায়ের নির্যাতনের কথা এলাকার সবার জানা। তাই ওই কুলাঙ্গার ছেলে ও পুত্রবধূর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হওয়া দরকার।

সুজানগর থানার ওসি মিজানুর রহমান জানান, ছেলের বিরুদ্ধে ভুক্তভোগী মা একটি অভিযোগ দিয়েছেন, তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

লাঠি দিয়ে মাকে পিটিয়ে হাসপাতালে পাঠাল ছেলে

 সুজানগর (পাবনা) প্রতিনিধি  
২৪ জুন ২০২১, ০৭:১৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পাবনার সুজানগরে বৃদ্ধা মাকে লাঠি দিয়ে বেধড়ক পিটিয়ে আহত করেছে ছেলে ভূষণ কুমার সরকার। এ ঘটনার বিচার চেয়ে বৃহস্পতিবার থানায় অভিযোগ দিয়েছেন ভুক্তভোগী মা মিনতী বালা সরকার।

গত বুধবার রাত ৯টার দিকে উপজেলার ভাঁয়না ইউনিয়নের ভাঁয়না গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পরে স্থানীয়রা মিনতী বালা সরকারকে উদ্ধার করে সুজানগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। 

কান্নাজড়িত কণ্ঠে ভুক্তভোগী মিনতী বালা সরকার বলেন, ১০ মাস যাকে গর্ভে ধারণ করে পৃথিবীর আলো দেখিয়েছি। ছেলে ছোট থাকা অবস্থায় স্বামী মারা যাওয়ার পরও খেয়ে না খেয়ে  যাকে কোলেপিঠে করে বড় করেছি- সেই ছেলে এখন বড় হয়ে আমাকে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে আহত করল। কাকে জানাব এ লজ্জার কথা। 

পারিবারিক তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে তাকে মারধর করা হয় বলে জানান তিনি। এছাড়া এর আগেও ছেলে ও পুত্রবধূ তাকে অনেক নির্যাতন করেছে বলে জানান তিনি।

স্থানীয় এলাকাবাসী জানান, বিষয়টি নিয়ে চাঞ্চল্যকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। ভূষণ কুমার সরকার এলাকার কোনো মানুষকেই তোয়াক্কা করছে না। ছেলে ও পুত্রবধূর হাতে ওই বৃদ্ধা মায়ের নির্যাতনের কথা এলাকার সবার জানা। তাই ওই কুলাঙ্গার ছেলে ও পুত্রবধূর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হওয়া দরকার। 

সুজানগর থানার ওসি মিজানুর রহমান জানান, ছেলের বিরুদ্ধে ভুক্তভোগী মা একটি অভিযোগ দিয়েছেন, তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন