দুর্গাপুরে চেয়ারে বসা নিয়ে সংঘর্ষে যুবক নিহত
jugantor
দুর্গাপুরে চেয়ারে বসা নিয়ে সংঘর্ষে যুবক নিহত

  দুর্গাপুর (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি  

২৫ জুন ২০২১, ০৬:৩৭:০০  |  অনলাইন সংস্করণ

নেত্রকোনার দুর্গাপুরে চেয়ারে বসাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে আনোয়ার হোসেন (২৫) নামে এক যুবক নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

গুরুতর আহত অবস্থায় অপর দুইজনকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে বাকলজোড়া ইউনিয়নের বড়ইউন্দ বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও নিহতের স্বজন সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বড়ইউন্দ বাজারে এক ওষুধের দোকানে চেয়ারে বসা নিয়ে দুই পক্ষ তর্কে জড়িয়ে গেলে পাশ্ববর্তী নাজিরপুর ইউনিয়নের আনন্দপুর গ্রামের মরম আলীর ছেলে সোহেল মিয়া (২২) দেশীয় ধারালো অস্ত্রের আঘাতে মকবুল হোসেনের ছেলে আনোয়ার হোসেনকে (২৫) ছুরিকাঘাত করলে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়েন।

এ সময় আনোয়ারের ওপর হামলার কথা শুনে বাজারে থাকা তার বাবা মকবুল হোসেন (৫৫) ও তার ছোট ছেলে মনির হোসেন (২২) ঘটনার প্রতিবাদ করতে গেলে তাদের ওপরও অতর্কিত হামলা চালায় সোহেল।

বাজারে থাকা লোকজন গুরুতর আহত তিনজনকে দুর্গাপুর উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আনোয়ারকে মৃত ঘোষণা করেন। গুরুতর আহত অপর দুজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

নিহতের চাচাতো ভাই হানিফ মিয়া বলেন, আমরাও বাজারে ছিলাম। আমার চাচার ওপর হামলা হয়েছে শুনে ঘটনাস্থলে গেলে সোহেল মিয়া ও তার সঙ্গীরা পালিয়ে যায়।

দুর্গাপুর থানার ওসি শাহনুর এ আলম জানান, ঘটনা শুনে লাশ উদ্ধার ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করাসহ অভিযুক্তদের ধরতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

দুর্গাপুরে চেয়ারে বসা নিয়ে সংঘর্ষে যুবক নিহত

 দুর্গাপুর (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি 
২৫ জুন ২০২১, ০৬:৩৭ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নেত্রকোনার দুর্গাপুরে চেয়ারে বসাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে আনোয়ার হোসেন (২৫) নামে এক যুবক নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

গুরুতর আহত অবস্থায় অপর দুইজনকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে বাকলজোড়া ইউনিয়নের বড়ইউন্দ বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও নিহতের স্বজন সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বড়ইউন্দ বাজারে এক ওষুধের দোকানে চেয়ারে বসা নিয়ে দুই পক্ষ তর্কে জড়িয়ে গেলে পাশ্ববর্তী নাজিরপুর ইউনিয়নের আনন্দপুর গ্রামের মরম আলীর ছেলে সোহেল মিয়া (২২) দেশীয় ধারালো অস্ত্রের আঘাতে মকবুল হোসেনের ছেলে আনোয়ার হোসেনকে (২৫) ছুরিকাঘাত করলে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়েন।

এ সময় আনোয়ারের ওপর হামলার কথা শুনে বাজারে থাকা তার বাবা মকবুল হোসেন (৫৫) ও তার ছোট ছেলে মনির হোসেন (২২) ঘটনার প্রতিবাদ করতে গেলে তাদের ওপরও অতর্কিত হামলা চালায় সোহেল।

বাজারে থাকা লোকজন গুরুতর আহত তিনজনকে দুর্গাপুর উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আনোয়ারকে মৃত ঘোষণা করেন। গুরুতর আহত অপর দুজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

নিহতের চাচাতো ভাই হানিফ মিয়া বলেন, আমরাও বাজারে ছিলাম। আমার চাচার ওপর হামলা হয়েছে শুনে ঘটনাস্থলে গেলে সোহেল মিয়া ও তার সঙ্গীরা পালিয়ে যায়।

দুর্গাপুর থানার ওসি শাহনুর এ আলম জানান, ঘটনা শুনে লাশ উদ্ধার ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করাসহ অভিযুক্তদের ধরতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন