২০ গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে আহত অর্ধশতাধিক
jugantor
২০ গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে আহত অর্ধশতাধিক

  ভাঙ্গা (ফরিদপুর) ও টেকেরহাট (মাদারীপুর) প্রতিনিধি  

২৫ জুন ২০২১, ২২:৫২:২৫  |  অনলাইন সংস্করণ

তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্রে করে ফরিদপুরের ভাঙ্গা ও মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার ২০ গ্রামবাসীর মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার সকালে আমিজনগর মোড়া এলাকায় প্রায় ৩ ঘণ্টাব্যাপী এ সংঘর্ষে অর্ধশতাধিক ব্যক্তি আহত হয়।

সংঘর্ষে গুরুতর আহতদের ভাঙ্গা, ফরিদপুর ও রাজৈর মাদারীপুরের চারটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সংবাদ পেয়ে ভাঙ্গা ও রাজৈর থানা পুলিশ এবং মাদারীপুর থেকে র‌্যাব-৮ ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রায় ৩০ রাউন্ড গুলি, ৬টি সাউন্ড গ্রেনেড নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ভাঙ্গা উপজেলার লস্করদিয়া গ্রামের অটো মেকানিক আক্কাচের কাছে রাজৈর উপজেলার চরসারিস্তাবাদ গ্রামের জাহাঙ্গীর মেকানিক সপ্তাহখানেক আগে ৪ হাজার টাকায় একটি চার্জার মেশিন কেনেন। কিন্তু আক্কাচ জাহাঙ্গীরকে মেশিন না দিয়ে বিলম্ব শুরু করলে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় দু’জনের মধ্যে কথাকাটাকাটি ও হাতাহাতি হয়।

এরপর শুক্রবার সকালে ভাঙ্গা উপজেলার আমিজনগর মোড়া এলাকায় স্থানীয় মাতবররা রাজৈর উপজেলার চরসারিস্তাবাদ বাজারে মাতবরদের কাছে বিচার চাইতে গেলেতাদের অপমান করা হয়। এ সময় খালের দুইপারের দুই থানার প্রায় ২০ গ্রামবাসী বিভক্ত হয়ে ঢাল, সড়কি, টেঁটা, ইটপাটকেল নিয়ে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া শুরু করে।

এ বিষয়ে ভাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ লুৎফর রহমান জানান, খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করা হয়। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত আছে। এখন পর্যন্ত কেউ অভিযোগ করেননি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

২০ গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে আহত অর্ধশতাধিক

 ভাঙ্গা (ফরিদপুর) ও টেকেরহাট (মাদারীপুর) প্রতিনিধি 
২৫ জুন ২০২১, ১০:৫২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্রে করে ফরিদপুরের ভাঙ্গা ও মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার ২০ গ্রামবাসীর মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার সকালে আমিজনগর মোড়া এলাকায় প্রায় ৩ ঘণ্টাব্যাপী এ সংঘর্ষে অর্ধশতাধিক ব্যক্তি আহত হয়। 

সংঘর্ষে গুরুতর আহতদের ভাঙ্গা, ফরিদপুর ও রাজৈর মাদারীপুরের চারটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। 

সংবাদ পেয়ে ভাঙ্গা ও রাজৈর থানা পুলিশ এবং মাদারীপুর থেকে র‌্যাব -৮ ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রায় ৩০ রাউন্ড গুলি, ৬টি সাউন্ড গ্রেনেড নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। 

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ভাঙ্গা উপজেলার লস্করদিয়া গ্রামের অটো মেকানিক আক্কাচের কাছে রাজৈর উপজেলার চরসারিস্তাবাদ গ্রামের জাহাঙ্গীর মেকানিক সপ্তাহখানেক আগে ৪ হাজার টাকায় একটি চার্জার মেশিন কেনেন। কিন্তু আক্কাচ জাহাঙ্গীরকে মেশিন না দিয়ে বিলম্ব শুরু করলে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় দু’জনের মধ্যে কথাকাটাকাটি ও হাতাহাতি হয়।

এরপর শুক্রবার সকালে ভাঙ্গা উপজেলার আমিজনগর মোড়া এলাকায় স্থানীয় মাতবররা রাজৈর উপজেলার চরসারিস্তাবাদ বাজারে মাতবরদের কাছে বিচার চাইতে গেলে তাদের অপমান করা হয়। এ সময় খালের দুইপারের দুই থানার প্রায় ২০ গ্রামবাসী বিভক্ত হয়ে ঢাল, সড়কি, টেঁটা, ইটপাটকেল নিয়ে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া শুরু করে।

এ বিষয়ে ভাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ লুৎফর রহমান জানান, খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করা হয়। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত আছে। এখন পর্যন্ত কেউ অভিযোগ করেননি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন