নরসিংদীতে প্রতিপক্ষের হামলায় কিশোরী নিহত
jugantor
নরসিংদীতে প্রতিপক্ষের হামলায় কিশোরী নিহত

  নরসিংদী প্রতিনিধি  

২৮ জুন ২০২১, ১৫:৪৯:২৪  |  অনলাইন সংস্করণ

লাশ উদ্ধার

নরসিংদীর রায়পুরায় আধিপত্য বিস্তার কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় এক কিশোরী নিহত হয়েছেন। এ সময় ১৫-২০ বাড়িঘর ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করা হয়।

সোমবার সকালে রায়পুরা উপজেলার পাড়াতলী ইউনিয়নের কাছারিকান্দি গ্রামে একটি বিল থেকে কিশোরীর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহত আফসানা আক্তার (১৮) কাছারিকান্দি গ্রামের নান্নু মিয়ার মেয়ে।

স্থানীয় এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরেই এলাকায় স্থানীয় আধিপত্য বিস্তার কেন্দ্র করে প্রয়াত ফজলু মেম্বারের সমর্থিতদের সঙ্গে শাহ আলম মেম্বারের দ্বন্দ্ব চলে আসছিল। এর জের ধরে গত মাসে দুপক্ষের মধ্যে টানা তিন দিন সংঘর্ষ হয়। এতে ওই সংঘর্ষে তিনজন নিহতসহ শতাধিক লোক হতাহত হন।

এরই মধ্যে রোববার রাতে প্রয়াত ফজলু মেম্বারের সমর্থকরা শাহ আলম মেম্বারের সমর্থকদের বাড়িঘরে হামলা চালায়। ওই সময় ১৫ থেকে ২০টি বাড়ি ভাঙচুরসহ অগ্নিসংযোগ করা হয়। এ সময় প্রতিপক্ষদের বাধা দিতে গেলে কাছারিকান্দি গ্রামের নান্নু মিয়ার মেয়ে আফসানা আক্তারকে ধরে নিয়ে যায়। সকালে কাচীকান্দি মাদ্রসাসংলগ্ন একটি চকের মাঝ খানে আফসানার লাশ দেখতে পান স্থানীয়রা। পরে পুলিশ এসে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। এ ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

রায়পুরা থানার ওসি গোলাম মোস্তফা বলেন, এলাকার আধিপত্য নিয়ে দুপক্ষের মধ্যে আগে থেকেই দ্বন্দ্ব চলে আসছিল। এরই মধ্যে প্রয়াত ফজলু মেম্বারের সমর্থকরা শাহ আলম সমর্থকদের ওপর হামলা চালায়।

ধারণা কার হচ্ছে, ওই সময় বাড়িতে কোনো পুরুষ লোক ছিল না। ওই কিশোরী বাধা দিতে আসার কারণে তাকে ধরে নিয়ে যায়। বিষয়টি নিয়ে এলাকা থেকে বেশ কয়েকজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

নরসিংদীতে প্রতিপক্ষের হামলায় কিশোরী নিহত

 নরসিংদী প্রতিনিধি 
২৮ জুন ২০২১, ০৩:৪৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
লাশ উদ্ধার
ছবি: যুগান্তর

নরসিংদীর রায়পুরায় আধিপত্য বিস্তার কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় এক কিশোরী নিহত হয়েছেন। এ সময় ১৫-২০ বাড়িঘর ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করা হয়।  

সোমবার সকালে রায়পুরা উপজেলার পাড়াতলী ইউনিয়নের কাছারিকান্দি গ্রামে একটি বিল থেকে কিশোরীর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহত আফসানা আক্তার (১৮) কাছারিকান্দি গ্রামের নান্নু মিয়ার মেয়ে।

স্থানীয় এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরেই এলাকায় স্থানীয় আধিপত্য বিস্তার কেন্দ্র করে প্রয়াত ফজলু মেম্বারের সমর্থিতদের সঙ্গে  শাহ আলম মেম্বারের দ্বন্দ্ব চলে আসছিল। এর জের ধরে গত মাসে দুপক্ষের মধ্যে টানা তিন দিন সংঘর্ষ হয়। এতে ওই সংঘর্ষে তিনজন নিহতসহ শতাধিক লোক হতাহত হন।

এরই মধ্যে রোববার রাতে প্রয়াত ফজলু মেম্বারের সমর্থকরা শাহ আলম মেম্বারের সমর্থকদের বাড়িঘরে হামলা চালায়। ওই সময় ১৫ থেকে ২০টি বাড়ি ভাঙচুরসহ অগ্নিসংযোগ করা হয়। এ সময় প্রতিপক্ষদের বাধা দিতে গেলে কাছারিকান্দি গ্রামের নান্নু মিয়ার মেয়ে আফসানা আক্তারকে ধরে নিয়ে যায়। সকালে কাচীকান্দি মাদ্রসাসংলগ্ন একটি চকের মাঝ খানে আফসানার লাশ দেখতে পান স্থানীয়রা। পরে পুলিশ এসে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। এ ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

রায়পুরা থানার ওসি গোলাম মোস্তফা বলেন, এলাকার আধিপত্য নিয়ে দুপক্ষের মধ্যে আগে থেকেই দ্বন্দ্ব চলে আসছিল। এরই মধ্যে প্রয়াত ফজলু মেম্বারের সমর্থকরা শাহ আলম সমর্থকদের ওপর হামলা চালায়।

ধারণা কার হচ্ছে, ওই সময় বাড়িতে কোনো পুরুষ লোক ছিল না। ওই কিশোরী বাধা দিতে আসার কারণে তাকে ধরে নিয়ে যায়। বিষয়টি নিয়ে এলাকা থেকে বেশ কয়েকজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন