ফেনীতে স্কুলছাত্র নির্যাতনের অভিযোগে শিক্ষক কারাগারে
jugantor
ফেনীতে স্কুলছাত্র নির্যাতনের অভিযোগে শিক্ষক কারাগারে

  ফেনী প্রতিনিধি  

০৬ জুলাই ২০২১, ১৫:১১:৪৮  |  অনলাইন সংস্করণ

ফেনীতে ফজলুল আহমদ আদর নামে এক স্কুলছাত্রকে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় জেলা সরকারি পাইলট স্কুলের শিক্ষক শাহ আলমকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এ ঘটনায় আহত ছাত্রের বাবা মো. সেলিম উদ্দিন বাদী হয়ে সোমবার থানায় লিখিত অভিযোগ করলে তাকে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠানো হয়।

শিক্ষক শাহ আলমের গ্রামের বাড়ি ফেনী সদর ধলিয়া ৭নং ওয়ার্ড রাজারহাটের পূর্ব পাশে।

জানা যায়, সোমবার সকালে প্রাইভেট পড়তে গিয়ে অঙ্কে ভুল করায় ছাত্রকে পিটিয়ে রক্তাক্ত আহত করেন ওই শিক্ষক। দেশব্যাপী কঠোর লকডাউন থাকলেও ফেনী সরকারি পাইলট হাইস্কুলের গণিতের শিক্ষক শাহ আলম তার বাসায় গ্রুপ করে প্রাইভেট পড়ান। প্রাইভেটে ছাত্রটিকে বেদম পিটিয়ে আহত করা হয়।

শিক্ষার্থীর নির্যাতনের অভিযোগে ফেনী মডেল থানায় সোমবার দুপুরে মামলা করেন ওই ছাত্রের অভিভাবক । ফেনী মডেল থানার পুলিশ শিশু নির্যাতনের অপরাধ আইনে শিক্ষক শাহ আলমকে গ্রেফতার করে। এর পর আদালত তাকে জেলহাজতে পাঠিয়েছেন।

আরও জানা যায়, আহত ছাত্রের বাবা মো. সেলিম উদ্দিন অভিযোগ—শিক্ষক শাহ আলমকে আটক করা হলেও ফেনী মডেল থানার পুলিশ আটকের তথ্য গোপন করে রাখার চেষ্টা করে। সোমবার আদালতের মাধ্যমে ওই শিক্ষককে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়।

ফেনী মডেল থানার ওসি নিজাম উদ্দিন বলেন, বিষয়টি সমাধান করতে চেষ্টা চলছিল। তাই গণমাধ্যমকে বিষয়টি জানানো হয়নি।

ফেনীতে স্কুলছাত্র নির্যাতনের অভিযোগে শিক্ষক কারাগারে

 ফেনী প্রতিনিধি 
০৬ জুলাই ২০২১, ০৩:১১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ফেনীতে ফজলুল আহমদ আদর নামে এক স্কুলছাত্রকে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় জেলা সরকারি পাইলট স্কুলের শিক্ষক শাহ আলমকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এ ঘটনায় আহত ছাত্রের বাবা মো. সেলিম উদ্দিন বাদী হয়ে সোমবার থানায় লিখিত অভিযোগ করলে তাকে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠানো হয়।

শিক্ষক শাহ আলমের গ্রামের বাড়ি ফেনী সদর ধলিয়া ৭নং ওয়ার্ড রাজারহাটের পূর্ব পাশে।

জানা যায়, সোমবার সকালে প্রাইভেট পড়তে গিয়ে অঙ্কে ভুল করায় ছাত্রকে পিটিয়ে রক্তাক্ত আহত করেন ওই শিক্ষক। দেশব্যাপী কঠোর লকডাউন থাকলেও ফেনী সরকারি পাইলট হাইস্কুলের গণিতের শিক্ষক শাহ আলম তার বাসায় গ্রুপ করে প্রাইভেট পড়ান। প্রাইভেটে ছাত্রটিকে বেদম পিটিয়ে আহত করা হয়।

শিক্ষার্থীর নির্যাতনের অভিযোগে ফেনী মডেল থানায় সোমবার দুপুরে  মামলা করেন ওই ছাত্রের অভিভাবক । ফেনী মডেল থানার পুলিশ শিশু নির্যাতনের অপরাধ আইনে শিক্ষক শাহ আলমকে গ্রেফতার করে। এর পর আদালত তাকে জেলহাজতে পাঠিয়েছেন।

আরও জানা যায়, আহত ছাত্রের বাবা মো. সেলিম উদ্দিন অভিযোগ—শিক্ষক শাহ আলমকে আটক করা হলেও ফেনী মডেল থানার পুলিশ আটকের তথ্য গোপন করে রাখার চেষ্টা করে। সোমবার আদালতের মাধ্যমে ওই শিক্ষককে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়।

ফেনী মডেল থানার ওসি নিজাম উদ্দিন বলেন, বিষয়টি সমাধান করতে চেষ্টা চলছিল। তাই গণমাধ্যমকে বিষয়টি জানানো হয়নি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন