অবৈধ পথে আনা ভারতীয় গরু উদ্ধার
jugantor
অবৈধ পথে আনা ভারতীয় গরু উদ্ধার

  জলঢাকা (নীলফামারী) প্রতিনিধি  

০৬ জুলাই ২০২১, ২১:০৯:৩৪  |  অনলাইন সংস্করণ

নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলায় অবৈধ পথে আসা ৬টি ভারতীয় গরু উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে ৪ গরু ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

সোমবার সন্ধ্যায় জলঢাকা উপজেলার শিমুলবাড়ি ইউনিয়নের ডিয়াবাড়ি গ্রাম থেকে গরুসহ তাদের আটক করে মীরগঞ্জ পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ। আটক ব্যক্তিদের মঙ্গলবার আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

তারা হলেন- উপজেলার শিমুলবাড়ি ইউনিয়নের আরাজি শিমুলবাড়ি গ্রামের খয়ের উদ্দিনের ছেলে আমিজার রহমান (৫০), পাচার মামুদের ছেলে আলী হোসেন (৪২), নোয়াখালী জেলার সোনাইমুড়ি উপজেলার আটগাঁও এলাকার সালেহ আহমেদের ছেলে ইসমাইল হোসেন (৪৫) এবং ভদ্রগাহ এলাকার সফিউল্লাহর ছেলে দাউদ হোসেন (৪২)।

মীরগঞ্জ পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ আব্দুর রহিম বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে গরুসহ তাদের আটক করা হয়। এ সময় জলঢাকা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মাহাবুব হাসান, সহকারী কমিশনার (ভূমি) সিফাত মো. ইশতিয়াক ভূঞা অভিযানের নেতৃত্ব দেন। এ ঘটনায় তদন্ত কেন্দ্রের উপ-পরিদর্শক শফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে জলঢাকা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে জলঢাকা থানার ওসি মো. ফিরোজ কবির বলেন, ভারতীয় এসব গরু অবৈধ পথে আনা হয়েছিল। আটক ব্যক্তিদের মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে মঙ্গলবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

অবৈধ পথে আনা ভারতীয় গরু উদ্ধার

 জলঢাকা (নীলফামারী) প্রতিনিধি 
০৬ জুলাই ২০২১, ০৯:০৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলায় অবৈধ পথে আসা ৬টি ভারতীয় গরু উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে ৪ গরু ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

সোমবার সন্ধ্যায় জলঢাকা উপজেলার শিমুলবাড়ি ইউনিয়নের ডিয়াবাড়ি গ্রাম থেকে গরুসহ তাদের আটক করে মীরগঞ্জ পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ। আটক ব্যক্তিদের মঙ্গলবার আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

তারা হলেন- উপজেলার শিমুলবাড়ি ইউনিয়নের আরাজি শিমুলবাড়ি গ্রামের খয়ের উদ্দিনের ছেলে আমিজার রহমান (৫০), পাচার মামুদের ছেলে আলী হোসেন (৪২), নোয়াখালী জেলার সোনাইমুড়ি উপজেলার আটগাঁও এলাকার সালেহ আহমেদের ছেলে ইসমাইল হোসেন (৪৫) এবং ভদ্রগাহ এলাকার সফিউল্লাহর ছেলে দাউদ হোসেন (৪২)।

মীরগঞ্জ পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ আব্দুর রহিম বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে গরুসহ তাদের আটক করা হয়। এ সময় জলঢাকা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মাহাবুব হাসান, সহকারী কমিশনার (ভূমি) সিফাত মো. ইশতিয়াক ভূঞা অভিযানের নেতৃত্ব দেন। এ ঘটনায় তদন্ত কেন্দ্রের উপ-পরিদর্শক শফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে জলঢাকা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে জলঢাকা থানার ওসি  মো. ফিরোজ কবির বলেন, ভারতীয় এসব গরু অবৈধ পথে আনা হয়েছিল। আটক ব্যক্তিদের মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে মঙ্গলবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন