হোটেলের মোগলাই খেয়ে যমজ দুই বোনের মৃত্যু, মা অসুস্থ
jugantor
হোটেলের মোগলাই খেয়ে যমজ দুই বোনের মৃত্যু, মা অসুস্থ

  চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি  

০৬ জুলাই ২০২১, ২৩:৩০:০৬  |  অনলাইন সংস্করণ

চাঁপাইনবাবগঞ্জ শহরের কালীতলা এলাকায় হোটেল থেকে আনা খাবার মোগলাই-পরোটা খেয়ে দুই যমজ বোনের মৃত্যু হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে হোটেল থেকে আনা খাবারে বিষক্রিয়ায় তাদের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় মা-সহ দুইজন অসুস্থ রয়েছে।

নিহতরা হলো- জেলা শহরের কালীতলা মহল্লার সাদিকুল ইসলাম রবির কলেজ পড়ুয়া দুই যমজকন্যা স্বর্ণা (১৭) ও সম্পা (১৭)। মৃত দুই যমজ বোন নবাবগঞ্জ সরকারি কলেজের মানবিক বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্রী ছিল। তারা দুই বোন একই সাথে লেখাপড়া করত।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে স্বর্ণা ও বেলা দেড়টার দিকে সম্পা মারা যায়। এ ঘটনায় তাদের মা ও এক আত্মীয় অসুস্থ রয়েছেন।

মৃত স্বর্ণা ও সম্পার পিতা সাদিকুল ইসলাম রবি জানান, সোমবার বিকালে শহরের পুরাতন বাজার এলাকার হোটেল শাহজাহান সুইটস থেকে মোগলাই পরাটা কিনে বাড়িতে এনে পরিবারসহ তিনি খান। এরপর রাতে তার স্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিন, মেয়ে স্বর্ণা ও সম্পা এবং আত্মীয় সিফাত অসুস্থ হয়ে পড়েন।

পরে তাদের চাঁপাইনবাবগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে স্বর্ণা ও তার মাকে চিকিৎসাসেবা দিয়ে ছেড়ে দেয়া হয় এবং সম্পা ও সিফাতকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এদিকে বাড়ি আসার পরেই স্বর্ণা মারা যায়। অন্যদিকে সম্পার অবস্থা আশঙ্কাজনক হলে দুপুরে তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হয় এবং সেখানে নেয়ার পথে বেলা দেড়টার দিকে সেও মারা যায়।

হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক ডা. নুরুন্নাহার নাসু জানান, সকাল ৯টায় স্বর্ণাকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয় এবং সম্পা ফুড পয়জনিং নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি ছিল। পরে তার অবস্থাও ধীরে ধীরে খারাপ হলে তাকে আমরা রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করি।

এ বিষয়ে শাহজাহান সুইট হোটেলের মালিক জামাল উদ্দিন নাসের জানান, তার দোকানের মোগলাই-পরোটা খেয়ে অন্য আর কেউ অসুস্থ হননি। তবে আসলেই তার দোকান থেকে মোগলাই কিনে নিয়ে গিয়েছিল কিনা তা হোটেলের সিসিটিভি ভিডিও ফুটেজ দেখলেই জানা যাবে বলে জানান তিনি।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মিন্টু রহমান জানান, এ ঘটনায় এখনো কেউ থানায় কোনো অভিযোগ করেননি। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

হোটেলের মোগলাই খেয়ে যমজ দুই বোনের মৃত্যু, মা অসুস্থ

 চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি 
০৬ জুলাই ২০২১, ১১:৩০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

চাঁপাইনবাবগঞ্জ শহরের কালীতলা এলাকায় হোটেল থেকে আনা খাবার মোগলাই-পরোটা খেয়ে দুই যমজ বোনের মৃত্যু হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে হোটেল থেকে আনা খাবারে বিষক্রিয়ায় তাদের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় মা-সহ দুইজন অসুস্থ রয়েছে।

নিহতরা হলো- জেলা শহরের কালীতলা মহল্লার সাদিকুল ইসলাম রবির কলেজ পড়ুয়া দুই যমজকন্যা স্বর্ণা (১৭) ও সম্পা (১৭)। মৃত দুই যমজ বোন নবাবগঞ্জ সরকারি কলেজের মানবিক বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্রী ছিল। তারা দুই বোন একই সাথে লেখাপড়া করত।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে স্বর্ণা ও বেলা দেড়টার দিকে সম্পা মারা যায়। এ ঘটনায় তাদের মা ও এক আত্মীয় অসুস্থ রয়েছেন।

মৃত স্বর্ণা ও সম্পার পিতা সাদিকুল ইসলাম রবি জানান, সোমবার বিকালে শহরের পুরাতন বাজার এলাকার হোটেল শাহজাহান সুইটস থেকে মোগলাই পরাটা কিনে বাড়িতে এনে পরিবারসহ তিনি খান। এরপর রাতে তার স্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিন, মেয়ে স্বর্ণা ও সম্পা এবং আত্মীয় সিফাত অসুস্থ হয়ে পড়েন।

পরে তাদের চাঁপাইনবাবগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে স্বর্ণা ও তার মাকে চিকিৎসাসেবা দিয়ে ছেড়ে দেয়া হয় এবং সম্পা ও সিফাতকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এদিকে বাড়ি আসার পরেই স্বর্ণা মারা যায়। অন্যদিকে সম্পার অবস্থা আশঙ্কাজনক হলে দুপুরে তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হয় এবং সেখানে নেয়ার পথে বেলা দেড়টার দিকে সেও মারা যায়।

হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক ডা. নুরুন্নাহার নাসু জানান, সকাল ৯টায় স্বর্ণাকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয় এবং সম্পা ফুড পয়জনিং নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি ছিল। পরে তার অবস্থাও ধীরে ধীরে খারাপ হলে তাকে আমরা রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করি।

এ বিষয়ে শাহজাহান সুইট হোটেলের মালিক জামাল উদ্দিন নাসের জানান, তার দোকানের মোগলাই-পরোটা খেয়ে অন্য আর কেউ অসুস্থ হননি। তবে আসলেই তার দোকান থেকে মোগলাই কিনে নিয়ে গিয়েছিল কিনা তা হোটেলের সিসিটিভি ভিডিও ফুটেজ দেখলেই জানা যাবে বলে জানান তিনি।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মিন্টু রহমান জানান, এ ঘটনায় এখনো কেউ থানায় কোনো অভিযোগ করেননি। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন