খালে ভেসে এলো ভারতীয় নারীর লাশ
jugantor
খালে ভেসে এলো ভারতীয় নারীর লাশ

  কুমিল্লা ব্যুরো  

০৭ জুলাই ২০২১, ২৩:০২:০২  |  অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত এলাকায় খালের পানিতে ভেসে আসে এক নারীর (৫৫) লাশ। এরপর লাশটি উদ্ধারের জন্য বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ও ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) মধ্যে দীর্ঘসময় ধরে পতাকা বৈঠক হয়। তবে দীর্ঘ বৈঠকের পরও ওই নারীর লাশ গ্রহণ করতে রাজি হয়নি বিএসএফ সদস্যরা।

সর্বশেষ বেওয়ারিশ হিসেবে বুধবার বিকালে ভারতীয় ওই নারীর লাশটি উদ্ধার করে জেলার চৌদ্দগ্রাম থানায় নিয়ে আসা হয়। এদিন সন্ধ্যা পর্যন্ত ওই নারীর পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

বুধবার সন্ধ্যায় বিষয়টি নিশ্চিত করে কুমিল্লা-১০ বিজিবির আমানগন্ডা সীমান্ত ফাঁড়ির কমান্ডার সুবেদার জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, বুধবার সকালে থেকে বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তের ২১০৬ ও ২১০৭ নম্বর পিলারের মধ্যবর্তী স্থানে চৌদ্দগ্রাম উপজেলার নাটাপাড়া এলাকায় অজ্ঞাতনামা ওই নারীর মরদেহটি পড়ে থাকতে দেখা যায়। পরে স্থানীয়রা খবর দিলে ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশটি হিন্দু নারীর বলে নিশ্চিত হওয়া যায়। এরপর লাশটি কোন দেশ নেবে, এ নিয়ে বিজিবি ও বিএসএফের পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বিকালে চৌদ্দগ্রাম থানা পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে।

চৌদ্দগ্রাম থানার এসআই আরিফ হোসেন বলেন, ধারণা করা হচ্ছে-পাহাড়ি ঢলে ভারত থেকে ওই নারীর লাশটি ভেসে আসে বাংলাদেশ সীমান্তে। সুরতহাল শেষে লাশটি ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে। এছাড়াও লাশের পরিচয় শনাক্তের চেষ্টা চলছে।

খালে ভেসে এলো ভারতীয় নারীর লাশ

 কুমিল্লা ব্যুরো 
০৭ জুলাই ২০২১, ১১:০২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত এলাকায় খালের পানিতে ভেসে আসে এক নারীর (৫৫) লাশ। এরপর লাশটি উদ্ধারের জন্য বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ও ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) মধ্যে দীর্ঘসময় ধরে পতাকা বৈঠক হয়। তবে দীর্ঘ বৈঠকের পরও ওই নারীর লাশ গ্রহণ করতে রাজি হয়নি বিএসএফ সদস্যরা।

সর্বশেষ বেওয়ারিশ হিসেবে বুধবার বিকালে ভারতীয় ওই নারীর লাশটি উদ্ধার করে জেলার চৌদ্দগ্রাম থানায় নিয়ে আসা হয়। এদিন সন্ধ্যা পর্যন্ত ওই নারীর পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

বুধবার সন্ধ্যায় বিষয়টি নিশ্চিত করে কুমিল্লা-১০ বিজিবির আমানগন্ডা সীমান্ত ফাঁড়ির কমান্ডার সুবেদার জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, বুধবার সকালে থেকে বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তের ২১০৬ ও ২১০৭ নম্বর পিলারের মধ্যবর্তী স্থানে চৌদ্দগ্রাম উপজেলার নাটাপাড়া এলাকায় অজ্ঞাতনামা ওই নারীর মরদেহটি পড়ে থাকতে দেখা যায়। পরে স্থানীয়রা খবর দিলে ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশটি হিন্দু নারীর বলে নিশ্চিত হওয়া যায়। এরপর লাশটি কোন দেশ নেবে, এ নিয়ে বিজিবি ও বিএসএফের পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বিকালে চৌদ্দগ্রাম থানা পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে।

চৌদ্দগ্রাম থানার এসআই  আরিফ হোসেন বলেন, ধারণা করা হচ্ছে-পাহাড়ি ঢলে ভারত থেকে ওই নারীর লাশটি ভেসে আসে বাংলাদেশ সীমান্তে। সুরতহাল শেষে লাশটি ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে। এছাড়াও লাশের পরিচয় শনাক্তের চেষ্টা চলছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন