ফেসবুকে ঘোষণা দিয়ে দোকানে হামলা ভাংচুর লুটপাট
jugantor
ফেসবুকে ঘোষণা দিয়ে দোকানে হামলা ভাংচুর লুটপাট

  ছাতক (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি  

০৮ জুলাই ২০২১, ১৮:৩৪:১৪  |  অনলাইন সংস্করণ

সুনামগঞ্জের ছাতকে ফেসবুকে ঘোষণা দিয়ে ব্যবসা-প্রতিষ্ঠানে হামলা ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। প্রতিপক্ষের হামলায় দোকানের মালিক শামীম ও কর্মচারী তোফায়েল আহমদসহ তিনজন আহত হয়েছেন।

এ ঘটনায় মামলার পর বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার ধারণ গ্রামের জামিল মিয়া ও জিতু মিয়ার বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ৪ হাত লম্বা ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার বিকালে উপজেলার গোবিন্দগঞ্জ-সৈদেরগাঁও ইউনিয়নের ধারণবাজারে এ হামলার ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহতদের কৈতক হাসপাতালে ভর্তি করলে তাদের মধ্যে একজনের অবস্থায় আশঙ্কাজনক থাকায় বুধবার রাতে তাকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান চিকিৎসক।

জানা যায়, জায়গা জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে শামীমের সঙ্গে একই গ্রামের বাদশা মিয়ার মাঝে বিরোধ চলে আসছে। মঙ্গলবার দুপুরে জিতু মিয়া তার নিজ ফেসবুক আইডি থেকে শামীমকে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। বিকালে শামীমের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান নাহিয়ান ট্রেডার্সে জামিল ও জিতু মিয়ার নেতৃত্বে ৪-৫ মিলে দেশীয় অস্ত্র, স্টিলের পাইপ, ধারালো রামদা দিয়ে হামলা ভাংচুর ও লুটপাট করে। দোকানের ক্যাশবাক্স ভেঙে প্রায় দেড় লক্ষাধিক টাকা লুটপাট করে নেয় প্রতিপক্ষের লোকজন।

ছাতক থানার (ওসি) শেখ নাজিম উদ্দিন বলেন, এ হামলার ঘটনায় ইমরান হোসেন শামীম বাদী হয়ে জামিল মিয়া ও জিতু মিয়াসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেছে।

ফেসবুকে ঘোষণা দিয়ে দোকানে হামলা ভাংচুর লুটপাট

 ছাতক (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি 
০৮ জুলাই ২০২১, ০৬:৩৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সুনামগঞ্জের ছাতকে ফেসবুকে ঘোষণা দিয়ে ব্যবসা-প্রতিষ্ঠানে হামলা ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। প্রতিপক্ষের হামলায় দোকানের মালিক শামীম ও কর্মচারী তোফায়েল আহমদসহ  তিনজন আহত হয়েছেন।

এ ঘটনায় মামলার পর বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার ধারণ গ্রামের জামিল মিয়া ও জিতু মিয়ার বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ৪ হাত লম্বা ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার বিকালে উপজেলার গোবিন্দগঞ্জ-সৈদেরগাঁও ইউনিয়নের ধারণবাজারে এ হামলার ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহতদের কৈতক হাসপাতালে ভর্তি করলে তাদের মধ্যে একজনের অবস্থায় আশঙ্কাজনক থাকায় বুধবার রাতে তাকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান চিকিৎসক।

জানা যায়, জায়গা জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে শামীমের সঙ্গে একই গ্রামের বাদশা মিয়ার মাঝে বিরোধ চলে আসছে। মঙ্গলবার দুপুরে জিতু মিয়া তার নিজ ফেসবুক আইডি থেকে শামীমকে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। বিকালে শামীমের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান নাহিয়ান ট্রেডার্সে জামিল ও জিতু মিয়ার নেতৃত্বে ৪-৫ মিলে দেশীয় অস্ত্র, স্টিলের পাইপ, ধারালো রামদা দিয়ে হামলা ভাংচুর ও লুটপাট করে। দোকানের ক্যাশবাক্স ভেঙে প্রায় দেড় লক্ষাধিক টাকা লুটপাট করে নেয় প্রতিপক্ষের লোকজন।

ছাতক থানার (ওসি) শেখ নাজিম উদ্দিন বলেন, এ হামলার ঘটনায় ইমরান হোসেন শামীম বাদী হয়ে জামিল মিয়া ও জিতু মিয়াসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন