কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানেই ৩ ভাইয়ের চিরবিদায়
jugantor
কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানেই ৩ ভাইয়ের চিরবিদায়

  নাটোর প্রতিনিধি  

০৯ জুলাই ২০২১, ২২:৪৯:৫৯  |  অনলাইন সংস্করণ

শরিফুল ইসলাম পচু

নাটোরের বৃহত্তম হোটেল ইসলামীয়ার মালিক শরিফুল ইসলাম পচু (৫৬) মারা যাওয়ার খবরে তার আপন বড়ভাই বাবুলুর রহমান (৫৮) স্ট্রোক করে মারা গেছেন। তাদের অপর ছোটভাই মো. জাহাঙ্গীর হোসেন (৫০) রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সিসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার রাত ৮টার দিকে মারা গেছেন। চার ভাইয়ের মধ্যে বেঁচে রইলেন একমাত্র বড়ভাই জীবন হোসেন (৬১)। তারা সবাই নাটোর শহরের বলারীপাড়ার ডাক্তার আব্দুর রশিদের সন্তান।

পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, নাটোর শহরের চকরামপুরে অবস্থিত জেলার বৃহত্তম খাবার হোটেল ইসলামীয়ার মালিক শরিফুল ইসলাম পচু করোনা আক্রান্ত হয়ে ঢাকার একটি হাসপাতালে বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে মারা যান। এই খবর নাটোরে আসলে শুক্রবার ভোরে তার আপন বড়ভাই বাবলুর রহমান স্টোক করে তাৎক্ষণিক মারা গেছেন।

এদিকে তাদের অপর ছোটভাই মো. জাহাঙ্গীর হোসেন করোনা আক্রান্ত হয়ে আগে থেকেই রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সিসিইউতে চিকিৎসাধীন ছিলেন। সেখানে অবস্থায় চিকিৎসাধীন দুই বড় ভাইয়ের মৃত্যুর দিন শুক্রবার রাত ৮টার দিকে মারা গেছেন।

শুক্রবার জুমার নামাজের পর নাটোর পৌরসভার মসজিদের মাঠে জানাজা শেষে শহরের গাড়িখানা গোরস্থানে তাদের বড় দুই ভাইয়ের কবর দেয়া হয়েছে। রাত ৯টায় এ রিপোর্ট লেখার সময় ছোটভাই জাহাঙ্গীর হোসেনের লাশ রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে আনার প্রস্তুতি চলছিল।

নাটোরের সচেতন মহলের অতি পরিচিত এই পরিবারে একই দিনে এমন মৃত্যুর খবরে শহরজুড়ে শোকের ছায়া নেমে আসে। ভালো ব্যবহার আর সততার মাধ্যমে ব্যবসা করে অতি সাধারণ থেকে অনেক বড় হোটেল মালিক হওয়ায় নাটোর জেলা এবং উত্তরবঙ্গজুড়ে ইসলামীয়া হোটেলের মালিক শরিফুল ইসলাম প্রচুর ব্যাপক খ্যাতি রয়েছে।

কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানেই ৩ ভাইয়ের চিরবিদায়

 নাটোর প্রতিনিধি 
০৯ জুলাই ২০২১, ১০:৪৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
শরিফুল ইসলাম পচু
শরিফুল ইসলাম পচু। ফাইল ছবি

নাটোরের বৃহত্তম হোটেল ইসলামীয়ার মালিক শরিফুল ইসলাম পচু (৫৬) মারা যাওয়ার খবরে তার আপন বড়ভাই বাবুলুর রহমান (৫৮) স্ট্রোক করে মারা গেছেন। তাদের অপর ছোটভাই মো. জাহাঙ্গীর হোসেন (৫০) রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সিসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার রাত ৮টার দিকে মারা গেছেন। চার ভাইয়ের মধ্যে বেঁচে রইলেন একমাত্র বড়ভাই জীবন হোসেন (৬১)। তারা সবাই নাটোর শহরের বলারীপাড়ার ডাক্তার আব্দুর রশিদের সন্তান।

পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, নাটোর শহরের চকরামপুরে অবস্থিত জেলার বৃহত্তম খাবার হোটেল ইসলামীয়ার মালিক শরিফুল ইসলাম পচু করোনা আক্রান্ত হয়ে ঢাকার একটি হাসপাতালে বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে মারা যান। এই খবর নাটোরে আসলে শুক্রবার ভোরে তার আপন বড়ভাই বাবলুর রহমান স্টোক করে তাৎক্ষণিক মারা গেছেন। 

এদিকে তাদের অপর ছোটভাই মো. জাহাঙ্গীর হোসেন করোনা আক্রান্ত হয়ে আগে থেকেই রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সিসিইউতে চিকিৎসাধীন ছিলেন। সেখানে অবস্থায় চিকিৎসাধীন দুই বড় ভাইয়ের মৃত্যুর দিন শুক্রবার রাত ৮টার দিকে মারা গেছেন। 

শুক্রবার জুমার নামাজের পর নাটোর পৌরসভার মসজিদের মাঠে জানাজা শেষে শহরের গাড়িখানা গোরস্থানে তাদের বড় দুই ভাইয়ের কবর দেয়া হয়েছে। রাত ৯টায় এ রিপোর্ট লেখার সময় ছোটভাই জাহাঙ্গীর হোসেনের লাশ রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে আনার প্রস্তুতি চলছিল। 

নাটোরের সচেতন মহলের অতি পরিচিত এই পরিবারে একই দিনে এমন মৃত্যুর খবরে শহরজুড়ে শোকের ছায়া নেমে আসে। ভালো ব্যবহার আর সততার মাধ্যমে ব্যবসা করে অতি সাধারণ থেকে অনেক বড় হোটেল মালিক হওয়ায় নাটোর জেলা এবং উত্তরবঙ্গজুড়ে ইসলামীয়া হোটেলের মালিক শরিফুল ইসলাম প্রচুর ব্যাপক খ্যাতি রয়েছে।  

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন