রাস্তায় সাইড দেওয়াকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, অটোচালক নিহত  
jugantor
রাস্তায় সাইড দেওয়াকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, অটোচালক নিহত  

  কেন্দুয়া (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি   

২৩ জুলাই ২০২১, ০০:৩৭:৩১  |  অনলাইন সংস্করণ

অটোচালক ইমরান হোসেন বাবু

নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে এক অটোচালক নিহত হয়েছেন। নিহত ইমরান হোসেন বাবু (২৪) উপজেলার চেংজানা গ্রামের শামীমের ছেলে।

বৃহস্পতিবার উপজেলার সাহিতপুর বাজারের অটোরিকশা স্ট্যান্ড এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় লোকজন ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার বিকালেউপজেলার সাহিতপুর বাজারে অটোচালক ও বাইসাইকেল চালকের মধ্যে সাইড দেওয়া নিয়ে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে ঝগড়া হয়। বাজারের লোকজন বিষয়টি মীমাংসা করে দেন।

কিন্তু কিছুক্ষণ পরে আটিগ্রামের বাইসাইকেল চালক দলবল নিয়ে চেংজানা গ্রামের অটোচালক ইমরান হোসেন বাবু ও তার চাচা এখলাছ উদ্দিনের ওপর হামলা করেন। তাদেরকে ছুরিকাঘাত করা হয়।

স্থানীয়রা আহতদেরকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায়ইমরান হোসেন বাবু মারা যান।

ইমরানের মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে চেংজানা গ্রামবাসীর মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। দু'গ্রামের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কার খবর পেয়ে তৎক্ষণাৎঘটনাস্থলে উপস্থিত হন কেন্দুয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মো. মইন উদ্দিন ওসিকাজী শাহনেওয়াজ। তারা পরিস্থিতি শান্ত করেন।

রাস্তায় সাইড দেওয়াকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, অটোচালক নিহত  

 কেন্দুয়া (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি  
২৩ জুলাই ২০২১, ১২:৩৭ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
অটোচালক ইমরান হোসেন বাবু
নিহত অটোচালক ইমরান হোসেন বাবু। ছবি: যুগান্তর  

নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে এক অটোচালক নিহত হয়েছেন। নিহত ইমরান হোসেন বাবু (২৪) উপজেলার চেংজানা গ্রামের শামীমের ছেলে।

বৃহস্পতিবার উপজেলার সাহিতপুর বাজারের অটোরিকশা স্ট্যান্ড এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। 

স্থানীয় লোকজন ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার বিকালে উপজেলার সাহিতপুর বাজারে অটোচালক ও বাইসাইকেল চালকের মধ্যে সাইড দেওয়া নিয়ে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে ঝগড়া হয়। বাজারের লোকজন বিষয়টি মীমাংসা করে দেন। 

কিন্তু কিছুক্ষণ পরে আটিগ্রামের বাইসাইকেল চালক দলবল নিয়ে চেংজানা গ্রামের অটোচালক ইমরান হোসেন বাবু ও তার চাচা এখলাছ উদ্দিনের ওপর হামলা করেন। তাদেরকে ছুরিকাঘাত করা হয়।

স্থানীয়রা আহতদেরকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইমরান হোসেন বাবু মারা যান।

ইমরানের মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে চেংজানা গ্রামবাসীর মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। দু'গ্রামের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কার খবর পেয়ে তৎক্ষণাৎ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন কেন্দুয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মো. মইন উদ্দিন ওসি কাজী শাহনেওয়াজ। তারা পরিস্থিতি শান্ত করেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন