তাহাজ্জুদের নামাজরত অবস্থায় যুবকের মৃত্যু
jugantor
তাহাজ্জুদের নামাজরত অবস্থায় যুবকের মৃত্যু

  ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি  

২৩ জুলাই ২০২১, ২২:১১:২০  |  অনলাইন সংস্করণ

ঢাকার ধামরাইয়ে গভীর রাতে তাহাজ্জুদের নামাজ পড়া অবস্থায় মো. ফরহাদ হোসেন (৪২) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার রাতে মৃত্যুর এ ঘটনা ঘটেছে। ফরহাদ হোসেন ধামরাই পৌর শহরের বরাতনগর মহল্লার বাসিন্দা ও ধামরাই থানার সামনে কুমিল্লা ডিপার্টমেন্টাল স্টোরের মালিক।

এলাকাবাসী জানান, কুমিল্লা জেলা সদরের বাসিন্দা মো. ফরহাদ হোসেন ঢাকা জেলার ধামরাইয়ে স্বনির্ভর বাংলাদেশ আন্দোলন নামে একটি বেসরকারি এনজিওতে চাকরি করতেন। এনজিওর সুদের ব্যবসার কারণে ফরহাদ ওই এনজিওর চাকরি ছেড়ে দেন। এরপর তিনি ধামরাই থানার সামনে কুমিল্লা ডিপার্টমেন্টাল স্টোর নামে একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলে ব্যবসা শুরু করেন।

ফরহাদের স্ত্রী বলেন, প্রতি রাতেই ফরহাদ হোসেন তাহাজ্জুদ নামাজ আদায় করতেন। বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকেই আমি ও আমার মেয়ে ঘুমিয়ে পড়ি। রাত গভীরকালে হঠাৎ হাউমাউ কান্নার শব্দ পেয়ে ঘুম ভেঙে যায় আমাদের। এরপর দেখি কলেমা পড়তে পড়তে মৃত্যুকোলে ঢলে পড়েন আমার স্বামী ফরহাদ।

আমরা দ্রুত লোকজনকে ডাকাডাকি করলে তারা আমাদের রুমে আসেন। সবাই মিলে রসুন তেল গরম করে তার শরীর ও হাতে-পায়ে মালিশ করলেও তার আর জ্ঞান ফেরেনি। হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তাহাজ্জুদের নামাজরত অবস্থায় যুবকের মৃত্যু

 ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি 
২৩ জুলাই ২০২১, ১০:১১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ঢাকার ধামরাইয়ে গভীর রাতে তাহাজ্জুদের নামাজ পড়া অবস্থায় মো. ফরহাদ হোসেন (৪২) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার রাতে মৃত্যুর এ ঘটনা ঘটেছে। ফরহাদ হোসেন ধামরাই পৌর শহরের বরাতনগর মহল্লার বাসিন্দা ও ধামরাই থানার সামনে কুমিল্লা ডিপার্টমেন্টাল স্টোরের মালিক। 

এলাকাবাসী জানান, কুমিল্লা জেলা সদরের বাসিন্দা মো. ফরহাদ হোসেন ঢাকা জেলার ধামরাইয়ে স্বনির্ভর বাংলাদেশ আন্দোলন নামে একটি বেসরকারি এনজিওতে চাকরি করতেন। এনজিওর সুদের ব্যবসার কারণে ফরহাদ ওই এনজিওর চাকরি ছেড়ে দেন। এরপর তিনি ধামরাই থানার সামনে কুমিল্লা ডিপার্টমেন্টাল স্টোর নামে একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলে ব্যবসা শুরু করেন। 

ফরহাদের স্ত্রী বলেন, প্রতি রাতেই ফরহাদ হোসেন তাহাজ্জুদ নামাজ আদায় করতেন। বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকেই আমি ও আমার মেয়ে ঘুমিয়ে পড়ি। রাত গভীরকালে হঠাৎ হাউমাউ কান্নার শব্দ পেয়ে ঘুম ভেঙে যায় আমাদের। এরপর দেখি কলেমা পড়তে পড়তে মৃত্যুকোলে ঢলে পড়েন আমার স্বামী ফরহাদ। 

আমরা দ্রুত লোকজনকে ডাকাডাকি করলে তারা আমাদের রুমে আসেন। সবাই মিলে রসুন তেল গরম করে তার শরীর ও হাতে-পায়ে মালিশ করলেও তার আর জ্ঞান ফেরেনি। হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন