ট্রাকে মাছের ড্রামের ভেতর মানুষ! (ভিডিও)
jugantor
ট্রাকে মাছের ড্রামের ভেতর মানুষ! (ভিডিও)

  গাজীপুর প্রতিনিধি  

২৪ জুলাই ২০২১, ০০:৪৭:৩৩  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনাভাইরাস সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে সারা দেশের ন্যায় গাজীপুরেও সরকার ঘোষিত ১৪ দিনের কঠোর লকডাউন শুরু হয়েছে। প্রথম দিন শুক্রবার সকাল থেকে রাস্তায় জরুরি সেবার গাড়ি ছাড়া অন্য কোনো যানবাহন চলাচল করতে দেখা যায়নি।

মহাসড়কে মানুষের চলাচল ছিল না বললেই চলে। ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট গুলোতে রয়েছে চেক পোস্ট। এছাড়া কঠোর লকডাউন বাস্তবায়নে সেনাবাহিনী, বিজিবি, র‌্যাব ও পুলিশ সার্বক্ষণিক মাঠে টহল ছিল চোখে পড়ার মতো। রয়েছে জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

এরকম কঠোর বিধি নিষেধের মধ্যে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর চোখ ফাঁকি দিয়ে মাছবাহী ট্রাকের পিঠে ড্রামে ভেতর চেপে বাড়ি ফিরছিলেন ১০ জন যাত্রী। তারা ঢাকা থেকে ওই ড্রামের ভেতরে উঠে বসেন।

গাজীপুর সিটি করপোরেশনের টঙ্গী থেকে চান্দনা চৌরাস্তা পর্যন্ত বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ চেক পোস্ট পাড় হলেও রাজেন্দ্রপুর এলাকায় এসে ধরা পড়ে যায়। ওই পয়েন্টের দায়িত্বরত ট্রাফিক পুলিশের সন্দেহ হলে ট্রাকটি আটক করে চেক করলে বেরিয়ে আসে মাছে ড্রামে লুকিয়ে থাকা যাত্রীরা।

পরে তাদেরকে ট্রাকে থাকা মাছের খালি ড্রাম থেকে বের করে এনে ছেড়ে দিলেও ট্রাক চালকের বিরুদ্ধে প্রচলিত আইনে মামলা দায়ের করা হয়। শুক্রবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন ট্রাফিক পুলিশের এসি (উত্তর) মেহেদী হাসান জানান, লকডাউন বাস্তবায়নে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের রাজেন্দ্রপুর চৌরাস্তায় চেকপোস্ট বসিয়ে বিভিন্ন গাড়িতে তল্লাশি চালানো হচ্ছিল। এমন সময় ঢাকা থেকে ময়মনসিংহগামী একটি মাছের ট্রাক সন্দেহ হলে থামিয়ে তল্লাশি করা হয়। এ সময় ওই ট্রাকে মাছের ড্রামের ভেতর থেকে প্রায় ১০ জন যাত্রী বের করে আনা হয়। পরে ড্রামের ভেতর থেকে যাত্রীদের নামিয়ে এনে ছেড়ে দিলেও চালকের বিরুদ্ধে প্রচলিত আইন ব্যবস্থা এবং ট্রাকটি আটক রাখা হয়েছে।

ট্রাকে মাছের ড্রামের ভেতর মানুষ! (ভিডিও)

 গাজীপুর প্রতিনিধি 
২৪ জুলাই ২০২১, ১২:৪৭ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনাভাইরাস সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে সারা দেশের ন্যায় গাজীপুরেও সরকার ঘোষিত ১৪ দিনের কঠোর লকডাউন শুরু হয়েছে। প্রথম দিন শুক্রবার সকাল থেকে রাস্তায় জরুরি সেবার গাড়ি ছাড়া অন্য কোনো যানবাহন চলাচল করতে দেখা যায়নি।

মহাসড়কে মানুষের চলাচল ছিল না বললেই চলে। ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট গুলোতে রয়েছে চেক পোস্ট। এছাড়া কঠোর লকডাউন বাস্তবায়নে সেনাবাহিনী, বিজিবি, র‌্যাব ও পুলিশ সার্বক্ষণিক মাঠে টহল ছিল চোখে পড়ার মতো। রয়েছে জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

এরকম কঠোর বিধি নিষেধের মধ্যে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর চোখ ফাঁকি দিয়ে মাছবাহী ট্রাকের পিঠে ড্রামে ভেতর চেপে বাড়ি ফিরছিলেন ১০ জন যাত্রী। তারা ঢাকা থেকে ওই ড্রামের ভেতরে উঠে বসেন।

গাজীপুর সিটি করপোরেশনের টঙ্গী থেকে চান্দনা চৌরাস্তা পর্যন্ত বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ চেক পোস্ট পাড় হলেও রাজেন্দ্রপুর এলাকায় এসে ধরা পড়ে যায়। ওই পয়েন্টের দায়িত্বরত ট্রাফিক পুলিশের সন্দেহ হলে ট্রাকটি আটক করে চেক করলে বেরিয়ে আসে মাছে ড্রামে লুকিয়ে থাকা যাত্রীরা।

পরে তাদেরকে ট্রাকে থাকা মাছের খালি ড্রাম থেকে বের করে এনে ছেড়ে দিলেও ট্রাক চালকের বিরুদ্ধে প্রচলিত আইনে মামলা দায়ের করা হয়। শুক্রবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন ট্রাফিক পুলিশের এসি (উত্তর) মেহেদী হাসান জানান, লকডাউন বাস্তবায়নে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের রাজেন্দ্রপুর চৌরাস্তায় চেকপোস্ট বসিয়ে বিভিন্ন গাড়িতে তল্লাশি চালানো হচ্ছিল। এমন সময় ঢাকা থেকে ময়মনসিংহগামী একটি মাছের ট্রাক সন্দেহ হলে থামিয়ে তল্লাশি করা হয়। এ সময় ওই ট্রাকে মাছের ড্রামের ভেতর থেকে প্রায় ১০ জন যাত্রী বের করে আনা হয়। পরে ড্রামের ভেতর থেকে যাত্রীদের নামিয়ে এনে ছেড়ে দিলেও চালকের বিরুদ্ধে প্রচলিত আইন ব্যবস্থা এবং ট্রাকটি আটক রাখা হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন