মসজিদের কাঁঠালের নিলাম নিয়ে সংঘর্ষ, যুবলীগ সভাপতিসহ আহত ১৪
jugantor
মসজিদের কাঁঠালের নিলাম নিয়ে সংঘর্ষ, যুবলীগ সভাপতিসহ আহত ১৪

  ওসমানীনগর (সিলেট) প্রতিনিধি  

২৪ জুলাই ২০২১, ০২:২১:৫৩  |  অনলাইন সংস্করণ

সিলেটের ওসমানীনগরে মসজিদের গাছের কাঁঠালের নিলাম ডাকাকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের সংঘর্ষে উপজেলা যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতিসহ ১৪ জন আহত হয়েছেন। শুক্রবার জুমার নামাজের পর উপজেলার উমরপুর ইউপির কামালপুর গ্রামে ঘটনাটি ঘটে।

আহত সবাইকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আহতদের মধ্যে ৪ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে।

শুক্রবার সন্ধ্যার পর ওসমানীনগর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মাছুদুল আমীন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

আহতরা হলেন- মাওলানা সুয়েব (৪৫), ওসমানীনগর উপজেলা যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ইকবাল আহমদ (৪০), সোহেল আহমদ (৩০), জুয়েল আহমদ (২৮), রুবেল আহমদ (২৪), হুমায়ুন রশীদ (৩২) ও কাওছার আহমদের পক্ষের- কাওছার আহমদ (৫৫), উমরপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নেছাওর আলী (৬০), আওয়ামী লীগ নেতা আবু বকর সিদ্দিকী (৭০), কাওছার আহমদ (৫৫), শাহীন মিয়া (৪৫), মুজিব মিয়া (৫০), সোহাগ মিয়া (২৩), শাকিল আহমদ (২৪)।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার দুপুর আড়াইটার দিকে উপজেলার উমরপুর ইউনিয়নের কামালপুর জামে মসজিদের গাছের কাঁঠালের নিলাম অনুষ্ঠিত হয়। নিলাম ডাকাকে কেন্দ্র করে উপজেলা খেলাফত মজলিসের সভাপতি মাওলানা সুয়েব ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক কাওছার আহমদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুটি পক্ষ দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। আধঘণ্টা ব্যাপী সংঘর্ষে মসজিদের পার্শ্ববর্তী এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়।

এ সময় উভয় পক্ষের ১৪ জন আহত হন। পরে এলাকাবাসীর হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এলে আহতদের উদ্ধার করে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

ওসমানীনগর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মাছুদুল আমীর ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আহতরা হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এখন পর্যন্ত কেউ কোনো অভিযোগ থানায় দেয়নি। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মসজিদের কাঁঠালের নিলাম নিয়ে সংঘর্ষ, যুবলীগ সভাপতিসহ আহত ১৪

 ওসমানীনগর (সিলেট) প্রতিনিধি 
২৪ জুলাই ২০২১, ০২:২১ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সিলেটের ওসমানীনগরে মসজিদের গাছের কাঁঠালের নিলাম ডাকাকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের সংঘর্ষে উপজেলা যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতিসহ ১৪ জন আহত হয়েছেন। শুক্রবার জুমার নামাজের পর উপজেলার উমরপুর ইউপির কামালপুর গ্রামে ঘটনাটি ঘটে।

আহত সবাইকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আহতদের মধ্যে ৪ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে।

শুক্রবার সন্ধ্যার পর ওসমানীনগর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মাছুদুল আমীন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

আহতরা হলেন- মাওলানা সুয়েব (৪৫), ওসমানীনগর উপজেলা যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ইকবাল আহমদ (৪০), সোহেল আহমদ (৩০), জুয়েল আহমদ (২৮), রুবেল আহমদ (২৪), হুমায়ুন রশীদ (৩২) ও কাওছার আহমদের পক্ষের- কাওছার আহমদ (৫৫), উমরপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নেছাওর আলী (৬০), আওয়ামী লীগ নেতা আবু বকর সিদ্দিকী (৭০), কাওছার আহমদ (৫৫), শাহীন মিয়া (৪৫), মুজিব মিয়া (৫০), সোহাগ মিয়া (২৩), শাকিল আহমদ (২৪)।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার দুপুর আড়াইটার দিকে উপজেলার উমরপুর ইউনিয়নের কামালপুর জামে মসজিদের গাছের কাঁঠালের নিলাম অনুষ্ঠিত হয়। নিলাম ডাকাকে কেন্দ্র করে উপজেলা খেলাফত মজলিসের সভাপতি মাওলানা সুয়েব ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক কাওছার আহমদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুটি পক্ষ দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। আধঘণ্টা ব্যাপী সংঘর্ষে মসজিদের পার্শ্ববর্তী এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়।

এ সময় উভয় পক্ষের ১৪ জন আহত হন। পরে এলাকাবাসীর হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এলে আহতদের উদ্ধার করে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

ওসমানীনগর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মাছুদুল আমীর ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আহতরা হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এখন পর্যন্ত কেউ কোনো অভিযোগ থানায় দেয়নি। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন