সিটি করপোরেশনের স্টিকার লাগিয়ে যাত্রী পরিবহণ
jugantor
সিটি করপোরেশনের স্টিকার লাগিয়ে যাত্রী পরিবহণ

  বরিশাল ব্যুরো  

২৪ জুলাই ২০২১, ২১:২৬:১০  |  অনলাইন সংস্করণ

মোটরসাইকেলে বরিশাল সিটি করপোরেশনের স্টিকার সাঁটিয়ে যাত্রী পরিবহণ করতে দেখা যায়।

মোটরসাইকেলে বরিশাল সিটি করপোরেশনের স্টিকার সাঁটিয়ে যাত্রী পরিবহণের ঘটনা ঘটেছে। শনিবার দুপুরে নগরীর কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল সংলগ্ন এলাকায় এমন ঘটনা দেখা যায়।

সূত্র জানায়, লকডাউনে মোটরসাইকেলে সিটি করপোরেশনের স্টিকার লাড়িয়ে যাত্রী পরিবহণ নিয়ে বরিশাল মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের সামনে স্থানীয়দের সঙ্গে এক যুবকের বাগবিতণ্ডা হয়েছে।

গোলাপ আহম্মেদ নামে একজন বলেন, লকডাউন উপেক্ষা করে মোটরসাইকেলের সামনে বরিশাল সিটি করপোরেশনের স্টিকার সাঁটিয়ে এক যুবক যাত্রী তুলছিল। বিষয়টি আমাদের কয়েকজনের নজরে আসলে আমরা ওই যুবকের পরিচয় জানতে চাই। সে তার নাম জানায় রানা এবং বরিশাল সিটি করপোরেশনে চাকরি করে। পরে বিষয়টি নিয়ে তর্কাতর্কি শুরু হলে সে জানায় তার চাচা সিটি করপোরেশনে চাকরি করেন।

একপর্যায়ে ভুল স্বীকার করে ওই যুবক স্টিকার তুলে ফেলেন।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত নগরীর কাউনিয়া বিসিক এলাকার বাসিন্দা রানা বলেন, আমার চাচা চাকরি করায় আমি স্টিকার লাগিয়েছিলাম।

বরিশাল সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ গোলাম ফারুখকে এই বিষয়ে একাধিকবার কল করা হলেও তাকে মন্তব্যের জন্যপাওয়া যায়নি।

তবে সিটি করপোরেশনের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেন, সিটি করপোরেশনের লোগোযুক্ত স্টিকার যাতে প্রকৃত কর্মকর্তা বা কর্মচারীরা ব্যবহার করতে পারে সেদিকে নজর দেওয়া হবে।

সিটি করপোরেশনের স্টিকার লাগিয়ে যাত্রী পরিবহণ

 বরিশাল ব্যুরো 
২৪ জুলাই ২০২১, ০৯:২৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
মোটরসাইকেলে বরিশাল সিটি করপোরেশনের স্টিকার সাঁটিয়ে যাত্রী পরিবহণ করতে দেখা যায়।
মোটরসাইকেলে বরিশাল সিটি করপোরেশনের স্টিকার সাঁটিয়ে যাত্রী পরিবহণ করতে দেখা যায়। ছবি: যুগান্তর

মোটরসাইকেলে বরিশাল সিটি করপোরেশনের স্টিকার সাঁটিয়ে যাত্রী পরিবহণের ঘটনা ঘটেছে। শনিবার দুপুরে নগরীর কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল সংলগ্ন এলাকায় এমন ঘটনা দেখা যায়। 

সূত্র জানায়, লকডাউনে মোটরসাইকেলে সিটি করপোরেশনের স্টিকার লাড়িয়ে যাত্রী পরিবহণ নিয়ে বরিশাল মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের সামনে স্থানীয়দের সঙ্গে এক যুবকের বাগবিতণ্ডা হয়েছে। 

গোলাপ আহম্মেদ নামে একজন বলেন, লকডাউন উপেক্ষা করে মোটরসাইকেলের সামনে বরিশাল সিটি করপোরেশনের স্টিকার সাঁটিয়ে এক যুবক যাত্রী তুলছিল। বিষয়টি আমাদের কয়েকজনের নজরে আসলে আমরা ওই যুবকের পরিচয় জানতে চাই। সে তার নাম জানায় রানা এবং বরিশাল সিটি করপোরেশনে চাকরি করে। পরে বিষয়টি নিয়ে তর্কাতর্কি শুরু হলে সে জানায় তার চাচা সিটি করপোরেশনে চাকরি করেন। 

একপর্যায়ে ভুল স্বীকার করে ওই যুবক স্টিকার তুলে ফেলেন। 

এ বিষয়ে অভিযুক্ত নগরীর কাউনিয়া বিসিক এলাকার বাসিন্দা রানা বলেন, আমার চাচা চাকরি করায় আমি স্টিকার লাগিয়েছিলাম।

বরিশাল সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ গোলাম ফারুখকে এই বিষয়ে একাধিকবার কল করা হলেও তাকে মন্তব্যের জন্য পাওয়া যায়নি। 

তবে সিটি করপোরেশনের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেন, সিটি করপোরেশনের লোগোযুক্ত স্টিকার যাতে প্রকৃত কর্মকর্তা বা কর্মচারীরা ব্যবহার করতে পারে সেদিকে নজর দেওয়া হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন