শেবাচিম হাসপাতালের করোনা ইউনিটে হাজার ছাড়াল মৃত্যুর সংখ্যা  
jugantor
শেবাচিম হাসপাতালের করোনা ইউনিটে হাজার ছাড়াল মৃত্যুর সংখ্যা  

  বরিশাল ব্যুরো  

২৫ জুলাই ২০২১, ১৮:১৭:৩৩  |  অনলাইন সংস্করণ

বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে।

এরমধ্যে আইসোলেশন (অবজারবেশন) ওয়ার্ডে ১১ জন এবং করোনা ওয়ার্ডে ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে।

আর এ নিয়ে গত বছরের শুরু থেকে এ পর্যন্ত শেবাচিম হাসপাতালের করোনা ইউনিটে মোট মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ১ জনের। এর মধ্যে হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডেই উপসর্গ নিয়ে ৭২৪ জন এবং করোনা ওয়ার্ডে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ২০৭ জনের মৃত্যু হয়েছে।

এদিকে উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুবরণ করা ৭২৪ জনের মধ্যে ৬১ জনের কোভিড টেস্টের রিপোর্ট এখনো হাতে পাওয়া যায়নি।

রোববার সকালে হাসপাতালের পরিচালক ডা. এইচএম সাইফুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

হাসপাতাল পরিচালক কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে করোনা ও আইসোলেশন ওয়ার্ডে এখন ৩৩০ জন চিকিৎসাধীন। এদের মধ্যে ১৩৬ জন করোনা ওয়ার্ডে এবং ১৯৪ জন আইসোলেশন ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এছাড়া এ পর্যন্ত এ হাসপাতালের করোনা ৪ হাজার ১৭৫ আইসোলেশন ওয়ার্ডে এবং ১ হাজার ৮০৭ জন করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি হয়েছেন। যার মধ্যে আইসোলেশন ওয়ার্ড থেকে ৩ হাজার ২৫১ এবং করোনা ওয়ার্ড থেকে ১ হাজার ৪০১ জন রোগীকে ছাড়পত্র প্রদান করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত বছরের ১০ মার্চ শেবাচিম হাসপাতালের নতুন পাঁচতলা বিশিষ্ট ভবনে করোনা ইউনিটের যাত্রা শুরু হয় এবং ১৭ মার্চ থেকে এখানে রোগী ভর্তি হয়ে চিকিৎসাসেবা গ্রহণ শুরু করেন।

শেবাচিম হাসপাতালের করোনা ইউনিটে হাজার ছাড়াল মৃত্যুর সংখ্যা  

 বরিশাল ব্যুরো 
২৫ জুলাই ২০২১, ০৬:১৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। 
 
এরমধ্যে আইসোলেশন (অবজারবেশন) ওয়ার্ডে ১১ জন এবং করোনা ওয়ার্ডে ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে।
 
আর এ নিয়ে গত বছরের শুরু থেকে এ পর্যন্ত শেবাচিম হাসপাতালের করোনা ইউনিটে মোট মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ১ জনের। এর মধ্যে হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডেই উপসর্গ নিয়ে ৭২৪ জন এবং করোনা ওয়ার্ডে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ২০৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। 
 
এদিকে উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুবরণ করা ৭২৪ জনের মধ্যে ৬১ জনের কোভিড টেস্টের রিপোর্ট এখনো হাতে পাওয়া যায়নি।
 
রোববার সকালে হাসপাতালের পরিচালক ডা. এইচএম সাইফুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

হাসপাতাল পরিচালক কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে করোনা ও আইসোলেশন ওয়ার্ডে এখন ৩৩০ জন চিকিৎসাধীন। এদের মধ্যে ১৩৬ জন করোনা ওয়ার্ডে এবং ১৯৪ জন আইসোলেশন ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। 
 
এছাড়া এ পর্যন্ত এ হাসপাতালের করোনা ৪ হাজার ১৭৫ আইসোলেশন ওয়ার্ডে এবং ১ হাজার ৮০৭ জন করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি হয়েছেন। যার মধ্যে আইসোলেশন ওয়ার্ড থেকে ৩ হাজার ২৫১ এবং করোনা ওয়ার্ড থেকে ১ হাজার ৪০১ জন রোগীকে ছাড়পত্র প্রদান করা হয়েছে।
 
উল্লেখ্য, গত বছরের ১০ মার্চ শেবাচিম হাসপাতালের নতুন পাঁচতলা বিশিষ্ট ভবনে করোনা ইউনিটের যাত্রা শুরু হয় এবং ১৭ মার্চ থেকে এখানে রোগী ভর্তি হয়ে চিকিৎসাসেবা গ্রহণ শুরু করেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন