মোটরসাইকেল আরোহীদের নিয়ে ডাক্তারের আবেগঘন পোস্ট
jugantor
মোটরসাইকেল আরোহীদের নিয়ে ডাক্তারের আবেগঘন পোস্ট

  গোলাম কবির বিলু, পীরগঞ্জ (রংপুর)  

২৫ জুলাই ২০২১, ২২:২৮:২৬  |  অনলাইন সংস্করণ

রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাক্তার মোসাদ্দেকুল ইসলাম সজীব। তিনি তার ফেসবুকে মোটরসাইকেল আরোহীদের নিয়ে একটি আবেগঘন পোস্ট দিয়েছেন।

নিজের ফেসবুক টাইমলাইনে তার লেখা পোস্টটি হুবহু তুলে ধরা হলো:

‘প্রিয় পীরগঞ্জবাসী আসসালামুয়ালাইকুম। আমি পীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের একজন ডাক্তার। এবারে ঈদুল আজহার দিনে আমি পীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ইমারজেন্সি নাইট ডিউটি করি। এতে কষ্ট নাই। কিন্তু যখন মানুষ bike accident করে হাত, পা কেটে/ভেঙ্গে নিয়ে আসে (বেশির ভাগই অল্পবয়সী) তখন খুবই কষ্ট পাই।

এবারের ঈদে এ রকম ৭/৮টি মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় ১০/১২ জন আহত হয়েছেন। যেগুলো আমাদের জীবনে ভয়াবহ ও দুর্বিষহ জীবনের দিকে নিয়ে যায়। ঈদের আনন্দে উঠতি বয়সী, তরুণ ও যুবকরা একই মোটরসাইকেলে ৩/৪ জন উঠে দুর্বারগতিতে চালাতে গিয়ে দুর্ঘটনায় পতিত হচ্ছেন। আর দুর্ঘটনার শিকার হয়ে অনেককেই আজীবনের জন্য পঙ্গুত্ব বরণ করতে হচ্ছে।

সুতরাং এই অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা এড়াতে পরিবারের লোকজনকে সচেতন হতে হবে, যেন আপনার সন্তান সাবধানে মোটরসাইকেল চালায়। কিংবা মোটরসাইকেল চালাতে দিবেন না।'

ঈদের দিন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে নাইট ডিউটিতে থাকা ডা. মোসাদ্দেকুল ইসলাম সজীব বলেন, ‘ঈদ বছরে দুইটা; কিন্তু মানুষের জীবন একটা। নিজেদের ছোট ছোট বাচ্চাদের হাতে bike দেওবার আগে ভাবুন। bikeটা তার জন্য কতটা ক্ষতিকর!’

তিনি মানুষদের সচেতন হতে আরও বলেন, ‘সাবধানে চালাবেন গাড়ি, নিরাপদে ফিরবেন বাড়ি।'

তিনি পোস্টের শেষে আরও লেখেন- ‘বি. দ্র: পোস্ট দেবার উদ্দেশ্য, আজ (ঈদের দিন) emergency-তে accident-এর রোগী বেশি।’

মোটরসাইকেল আরোহীদের নিয়ে ডাক্তারের আবেগঘন পোস্ট

 গোলাম কবির বিলু, পীরগঞ্জ (রংপুর) 
২৫ জুলাই ২০২১, ১০:২৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাক্তার মোসাদ্দেকুল ইসলাম সজীব। তিনি তার ফেসবুকে মোটরসাইকেল আরোহীদের নিয়ে একটি আবেগঘন পোস্ট দিয়েছেন।

নিজের ফেসবুক টাইমলাইনে তার লেখা পোস্টটি হুবহু তুলে ধরা হলো:

‘প্রিয় পীরগঞ্জবাসী আসসালামুয়ালাইকুম। আমি পীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের একজন ডাক্তার। এবারে ঈদুল আজহার দিনে আমি পীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ইমারজেন্সি নাইট ডিউটি করি। এতে কষ্ট নাই। কিন্তু যখন মানুষ bike accident করে হাত, পা কেটে/ভেঙ্গে নিয়ে আসে (বেশির ভাগই অল্পবয়সী) তখন খুবই কষ্ট পাই।

এবারের ঈদে এ রকম ৭/৮টি মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় ১০/১২ জন আহত হয়েছেন। যেগুলো আমাদের জীবনে ভয়াবহ ও দুর্বিষহ জীবনের দিকে নিয়ে যায়। ঈদের আনন্দে উঠতি বয়সী, তরুণ ও যুবকরা একই মোটরসাইকেলে ৩/৪ জন উঠে দুর্বারগতিতে চালাতে গিয়ে দুর্ঘটনায় পতিত হচ্ছেন। আর দুর্ঘটনার শিকার হয়ে অনেককেই আজীবনের জন্য পঙ্গুত্ব বরণ করতে হচ্ছে।

সুতরাং এই অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা এড়াতে পরিবারের লোকজনকে সচেতন হতে হবে, যেন আপনার সন্তান সাবধানে মোটরসাইকেল চালায়। কিংবা মোটরসাইকেল চালাতে দিবেন না।'

ঈদের দিন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে নাইট ডিউটিতে থাকা ডা. মোসাদ্দেকুল ইসলাম সজীব বলেন, ‘ঈদ বছরে দুইটা; কিন্তু মানুষের জীবন একটা। নিজেদের ছোট ছোট বাচ্চাদের হাতে bike দেওবার আগে ভাবুন। bikeটা তার জন্য কতটা ক্ষতিকর!’

তিনি মানুষদের সচেতন হতে আরও বলেন, ‘সাবধানে চালাবেন গাড়ি, নিরাপদে ফিরবেন বাড়ি।'

তিনি পোস্টের শেষে আরও লেখেন- ‘বি. দ্র: পোস্ট দেবার উদ্দেশ্য, আজ (ঈদের দিন) emergency-তে accident-এর রোগী বেশি।’

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন