ফেসবুকে বিজ্ঞাপন দিয়ে লকডাউনে যাত্রী পরিবহন!
jugantor
ফেসবুকে বিজ্ঞাপন দিয়ে লকডাউনে যাত্রী পরিবহন!

  ভাঙ্গুরা (পাবনা) প্রতিনিধি  

২৫ জুলাই ২০২১, ২২:৪৮:৩২  |  অনলাইন সংস্করণ

গোটাদেশ কঠোর বিধিনিষেধের আওতায়। করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে জনগণকে অযথা ঘোরাঘুরি বন্ধ করতে দিনরাত কাজ করে যাচ্ছে প্রশাসন ও বিভিন্ন সংগঠন। বন্ধ রয়েছে সব ধরনের গণপরিবহণ।

এ সুযোগে পাবনার ভাঙ্গুরায় ফেসবুকে বিজ্ঞাপন দিয়ে ঢাকায় লোক পরিবহনের প্রচারণা চালাচ্ছেন বেশ কিছু মাইক্রোবাস, প্রাইভেটকার মালিক ও চালকরা।

উপজেলাকেন্দ্রিক বিভিন্ন ফেসবুক গ্রুপে আব্দুল মালেক নামে একজন তার গাড়ির ছবিসহ লিখেছেন- ‘আগামীকাল থেকে নিয়মিতভাবে ভাঙ্গুরা হইতে ঢাকা হাইস ও নোহা গাড়ি চলাচল করবে। যদি কেউ ভাঙ্গুরা থেকে ঢাকা বা ঢাকা থেকে ভাঙ্গুরা আসতে চান তাহলে যোগাযোগ করুন (মালেক) ভাঙ্গুরা বাসস্ট্যান্ড ভাঙ্গুরা পাবনা।'

পোস্টে থাকা নম্বরে ফোন করলে আব্দুল মালেক জানান, ঢাকায় জনপ্রতি ভাড়া দেড় হাজার টাকা আর ঢাকা থেকে ফিরতে জনপ্রতি ভাড়া ১ হাজার ২শ টাকা। সাধারণত প্রতি হাইয়েস গাড়িতে ১০ থেকে ১২ জন যাত্রী পরিবহন করা হয়।

লকডাউনে বিধিনিষেধে চলাচলে সমস্যা হবে কিনা- জানতে চাইলে তিনি বলেন, যাত্রীদের এ বিষয় নিয়ে কোনো চিন্তা নেই। রাস্তার সব সমস্যা ড্রাইভার সামলে নেবে। ঢাকায় চলাচলের জন্য একটি শক্তিশালী সিন্ডিকেট কাজ করছেন বলেও তিনি জানান। এছাড়া প্রাইভেটকারে ১০ হাজার টাকা রিজার্ভে ৩ থেকে ৪ জন যাত্রী পরিবহন করা হচ্ছে।

যাত্রী পরিবহনের এ ব্যবস্থার কোনো আইনগত বৈধতা আছে কিনা- এমন প্রশ্নের জবাবে ভাঙ্গুরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ আশরাফুজ্জামান বলেন, চলমান বিধিনিষেধে যাত্রী পরিবহনের কোনো সুযোগ নেই। বিষয়টি সম্পর্কে ভাঙ্গুরা থানা পুলিশকে অবহিত করা হয়েছে তারা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

ফেসবুকে বিজ্ঞাপন দিয়ে লকডাউনে যাত্রী পরিবহন!

 ভাঙ্গুরা (পাবনা) প্রতিনিধি 
২৫ জুলাই ২০২১, ১০:৪৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

গোটাদেশ কঠোর বিধিনিষেধের আওতায়। করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে জনগণকে অযথা ঘোরাঘুরি বন্ধ করতে দিনরাত কাজ করে যাচ্ছে প্রশাসন ও বিভিন্ন সংগঠন। বন্ধ রয়েছে সব ধরনের গণপরিবহণ।

এ সুযোগে পাবনার ভাঙ্গুরায় ফেসবুকে বিজ্ঞাপন দিয়ে ঢাকায় লোক পরিবহনের প্রচারণা চালাচ্ছেন বেশ কিছু মাইক্রোবাস, প্রাইভেটকার মালিক ও চালকরা।

উপজেলাকেন্দ্রিক বিভিন্ন ফেসবুক গ্রুপে আব্দুল মালেক নামে একজন তার গাড়ির ছবিসহ লিখেছেন- ‘আগামীকাল থেকে নিয়মিতভাবে ভাঙ্গুরা হইতে ঢাকা হাইস ও নোহা গাড়ি চলাচল করবে। যদি কেউ ভাঙ্গুরা থেকে ঢাকা বা ঢাকা থেকে ভাঙ্গুরা আসতে চান তাহলে যোগাযোগ করুন (মালেক) ভাঙ্গুরা বাসস্ট্যান্ড ভাঙ্গুরা পাবনা।'

পোস্টে থাকা নম্বরে ফোন করলে আব্দুল মালেক জানান, ঢাকায় জনপ্রতি ভাড়া দেড় হাজার টাকা আর ঢাকা থেকে ফিরতে জনপ্রতি ভাড়া ১ হাজার ২শ টাকা।  সাধারণত প্রতি হাইয়েস গাড়িতে ১০ থেকে ১২ জন যাত্রী পরিবহন করা হয়।

লকডাউনে বিধিনিষেধে চলাচলে সমস্যা হবে কিনা- জানতে চাইলে তিনি বলেন, যাত্রীদের এ বিষয় নিয়ে কোনো চিন্তা নেই। রাস্তার সব সমস্যা ড্রাইভার সামলে নেবে। ঢাকায় চলাচলের জন্য একটি শক্তিশালী সিন্ডিকেট কাজ করছেন বলেও তিনি জানান। এছাড়া প্রাইভেটকারে ১০ হাজার টাকা রিজার্ভে ৩ থেকে ৪ জন যাত্রী পরিবহন করা হচ্ছে।

যাত্রী পরিবহনের এ ব্যবস্থার কোনো আইনগত বৈধতা আছে কিনা- এমন প্রশ্নের জবাবে ভাঙ্গুরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ আশরাফুজ্জামান বলেন, চলমান বিধিনিষেধে যাত্রী পরিবহনের কোনো সুযোগ নেই। বিষয়টি সম্পর্কে ভাঙ্গুরা থানা পুলিশকে অবহিত করা হয়েছে তারা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন