শিমুলিয়াঘাটে যানবাহনের দীর্ঘ সারি, ফেরিতে মানুষের ঢল
jugantor
শিমুলিয়াঘাটে যানবাহনের দীর্ঘ সারি, ফেরিতে মানুষের ঢল

  যুগান্তর প্রতিবেদন, মুন্সীগঞ্জ  

২৬ জুলাই ২০২১, ১৪:০৮:৫২  |  অনলাইন সংস্করণ

ফেরিতে ভিড়

লকডাউন উপেক্ষা করে ১৪দিনের কঠোর বিধিনিষেধের ৪র্থ দিনে স্বাস্থ্যবিধি নানা মেনেই মুন্সীগঞ্জে শিমুলিয়াঘাটে দেখা গেছে উভয়মুখি যাত্রী ও যানবাহনের চাপ ।

সোমবার ভোররাত থেকে গাদাগাদি করে যাত্রী ও যানবাহন পারাপার হতে দেখা গেছে ফেরি গুলোতে।

লকডাউন এর প্রথম দিনের তুলনায় আজ যাত্রী ও যানবাহনের চাপ অনেকটাই বেড়েছে ঘাট এলাকায়।

জানা যায়, বাংলা বাজার থেকে শিমুলিয়া ঘাট হয়ে ঢাকামুখী যাত্রীদের চাপ ছিল অনেকটাই চোখে পড়ার মতো। এ সময় ঢাকামুখী ব্যক্তিগত প্রাইভেটকারসহ ঘাট এলাকায় দেখা গেছে যানবাহনের দীর্ঘ সারি।

এছাড়াও ঘাট এলাকায় পারাপারের অপেক্ষায় থাকতে দেখা গেছে প্রায় শতাধিক ব্যক্তিগত ও পণ্যবাহী যানবাহন। তবে পরিবহনসংকটে ঢাকামুখী যাত্রীদের পোহাতে হয়েছে বাড়তি ভোগান্তি। তাই দীর্ঘ পথ পায়ে হেঁটেই তাদের পৌঁছাতে হচ্ছে গন্তব্যে।

চলমান কঠোর বিধি-নিষেধের সময় আরও বাড়তে পারে এমন আশঙ্কায় আজও ঢাকা ছাড়তে দেখা গেছে দক্ষিণাঞ্চলগামী অনেক মানুষকে।

এছাড়াও ঢাকার বেসরকারি কিছু কিছু কর্মস্থল খোলার সিদ্ধান্তে মালিকপক্ষের চাপে পড়ে অনেকেই ফিরতে হচ্ছে ঢাকার পথে। তবে লকডাউনে বাস্তবায়নসহ মানুষকে স্বাস্থ্যবিধি মানাতে ঘাট এলাকায় ছিল পুলিশ ও বিজিবি বাড়তি নজরদারি।

বিআইডাব্লিউটিসি শিমুলিয়া ঘাটের টার্মিনাল ব্যবস্থাপক মো. ফয়সাল জানান, নৌরুটে বর্তমানে ৬টি ফেরি দিয়ে সীমিত পরিসরে চলছে যাত্রী ও যানবাহন পারাপার। তবে সকাল থেকে ঘাট এলাকায় বাড়ি ফেরা ও ঢাকামুখি যাত্রীদের ছিল বাড়তি চাপ।

শিমুলিয়াঘাটে যানবাহনের দীর্ঘ সারি, ফেরিতে মানুষের ঢল

 যুগান্তর প্রতিবেদন, মুন্সীগঞ্জ 
২৬ জুলাই ২০২১, ০২:০৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ফেরিতে ভিড়
ছবি: যুগান্তর

লকডাউন উপেক্ষা করে ১৪দিনের কঠোর বিধিনিষেধের ৪র্থ দিনে স্বাস্থ্যবিধি নানা মেনেই মুন্সীগঞ্জে শিমুলিয়াঘাটে দেখা গেছে উভয়মুখি যাত্রী ও যানবাহনের চাপ ।

সোমবার ভোররাত থেকে গাদাগাদি করে যাত্রী ও যানবাহন পারাপার হতে দেখা গেছে ফেরি গুলোতে।

লকডাউন এর প্রথম দিনের তুলনায় আজ যাত্রী ও যানবাহনের চাপ অনেকটাই বেড়েছে ঘাট এলাকায়।

জানা যায়, বাংলা বাজার থেকে শিমুলিয়া ঘাট হয়ে ঢাকামুখী যাত্রীদের চাপ ছিল অনেকটাই চোখে পড়ার মতো। এ সময় ঢাকামুখী ব্যক্তিগত প্রাইভেটকারসহ ঘাট এলাকায় দেখা গেছে যানবাহনের দীর্ঘ সারি।

এছাড়াও ঘাট এলাকায় পারাপারের অপেক্ষায় থাকতে দেখা গেছে প্রায় শতাধিক ব্যক্তিগত ও পণ্যবাহী যানবাহন।  তবে পরিবহনসংকটে ঢাকামুখী যাত্রীদের পোহাতে হয়েছে বাড়তি ভোগান্তি। তাই দীর্ঘ পথ পায়ে হেঁটেই তাদের পৌঁছাতে হচ্ছে গন্তব্যে।

চলমান কঠোর বিধি-নিষেধের সময় আরও বাড়তে পারে এমন আশঙ্কায় আজও ঢাকা ছাড়তে দেখা গেছে দক্ষিণাঞ্চলগামী অনেক মানুষকে।

এছাড়াও ঢাকার বেসরকারি কিছু কিছু কর্মস্থল খোলার সিদ্ধান্তে মালিকপক্ষের চাপে পড়ে অনেকেই ফিরতে হচ্ছে ঢাকার পথে।  তবে লকডাউনে বাস্তবায়নসহ মানুষকে স্বাস্থ্যবিধি মানাতে ঘাট এলাকায় ছিল পুলিশ ও বিজিবি বাড়তি নজরদারি।

বিআইডাব্লিউটিসি শিমুলিয়া ঘাটের টার্মিনাল ব্যবস্থাপক মো. ফয়সাল জানান, নৌরুটে বর্তমানে ৬টি ফেরি দিয়ে সীমিত পরিসরে চলছে যাত্রী ও যানবাহন পারাপার। তবে সকাল থেকে ঘাট এলাকায় বাড়ি ফেরা ও ঢাকামুখি যাত্রীদের ছিল বাড়তি চাপ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন