কলেজছাত্রীকে অপহরণ করে ধর্ষণের ঘটনায় মামলা
jugantor
কলেজছাত্রীকে অপহরণ করে ধর্ষণের ঘটনায় মামলা

  কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি  

২৭ জুলাই ২০২১, ২৩:১৫:২৫  |  অনলাইন সংস্করণ

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় এইচএসসি পড়ুয়া এক কলেজছাত্রীকে অপহরণ করে ধর্ষণ করেছে এক কলেজছাত্র। সোমবার দুপুরে উপজেলার ধানখালী ইউনিয়নের পাঁচজুনিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় ধর্ষিতা বাদী হয়ে মঙ্গলবার ধর্ষক আবু বক্কর সিদ্দিককে (২৪) আসামি করে কলাপাড়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, পার্শ্ববর্তী গলাচিপা উপজেলার একটি কলেজের এইচএসসির ওই শিক্ষার্থীর সঙ্গে কলাপাড়া উপজেলার ধানখালী ইউনিয়নের পাঁচজুনিয়া গ্রামের বাসিন্দা মো. মহসিন হাওলাদারের ছেলে আবু বক্করের ফেসবুকের মাধ্যমে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এরপর আবু বক্কর সিদ্দিক তাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে কৌশলে তাকে অপহরণ করে পাঁচজুনিয়া তার বাড়িতে নিয়ে আসে। এক পর্যায়ে তাকে ধর্ষণ করে ওই বাড়িতে একা রেখে পালিয়ে যায়। এ সময় ওই বাড়িতে অন্য কোনো সদস্য ছিল না। পরে ৯৯৯ এ ফোন করে পুলিশের সহায়তায় ওই ছাত্রী উদ্ধার হয়।

কলাপাড়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আসাদুর রহমান জানান, কলেজছাত্রীকে বিয়ের আশ্বাস দিয়ে বাড়িতে এনে ধর্ষণ করে আবু বক্কর। ভিকটিমকে উদ্ধার করে ডাক্তারি পরীক্ষার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মো. ইমরান হোসেন জানান, আবু বক্কর সিদ্দিককে আটকের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

কলেজছাত্রীকে অপহরণ করে ধর্ষণের ঘটনায় মামলা

 কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি 
২৭ জুলাই ২০২১, ১১:১৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় এইচএসসি পড়ুয়া এক কলেজছাত্রীকে অপহরণ করে ধর্ষণ করেছে এক কলেজছাত্র। সোমবার দুপুরে উপজেলার ধানখালী ইউনিয়নের পাঁচজুনিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় ধর্ষিতা বাদী হয়ে মঙ্গলবার ধর্ষক আবু বক্কর সিদ্দিককে (২৪) আসামি করে কলাপাড়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, পার্শ্ববর্তী গলাচিপা উপজেলার একটি কলেজের এইচএসসির ওই শিক্ষার্থীর সঙ্গে কলাপাড়া উপজেলার ধানখালী ইউনিয়নের পাঁচজুনিয়া গ্রামের বাসিন্দা মো. মহসিন হাওলাদারের ছেলে আবু বক্করের ফেসবুকের মাধ্যমে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এরপর আবু বক্কর সিদ্দিক তাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে কৌশলে তাকে অপহরণ করে পাঁচজুনিয়া তার বাড়িতে নিয়ে আসে। এক পর্যায়ে তাকে ধর্ষণ করে ওই বাড়িতে একা রেখে পালিয়ে যায়। এ সময় ওই বাড়িতে অন্য কোনো সদস্য ছিল না। পরে ৯৯৯ এ ফোন করে পুলিশের সহায়তায় ওই ছাত্রী উদ্ধার হয়।

কলাপাড়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আসাদুর রহমান জানান, কলেজছাত্রীকে বিয়ের আশ্বাস দিয়ে বাড়িতে এনে ধর্ষণ করে আবু বক্কর। ভিকটিমকে উদ্ধার করে ডাক্তারি পরীক্ষার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মো. ইমরান হোসেন জানান, আবু বক্কর সিদ্দিককে আটকের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন