তাজিয়া মিছিলের নেতৃত্ব নিয়ে মতভেদ, চাচাকে কুপিয়ে হত্যা
jugantor
তাজিয়া মিছিলের নেতৃত্ব নিয়ে মতভেদ, চাচাকে কুপিয়ে হত্যা

  দৌলতপুর (কুষ্টিয়া) প্রতিনিধি  

২৮ জুলাই ২০২১, ২৩:৩০:৩৮  |  অনলাইন সংস্করণ

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে তাজিয়া মিছিলের নেতৃত্বকে কেন্দ্র করে কথা কাটাকাটির জেরে ভাতিজার হাতে চাচা খুন হয়েছেন। এ ঘটনায় আরও দুজন আহত হয়েছেন।

বুধবার রাত পৌনে ৯টার দিকে উপজেলার ফিলিপনগর ইউনিয়নের সিরাজনগর রিফিউজি পাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত রিয়াজ উদ্দিন খাঁ (৭০) ওই গ্রামের মৃত মজি খাঁর ছেলে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, আসন্ন মহররমের তাজিয়া মিছিলে নেতৃত্ব কে দেবেন- এ নিয়ে ওই এলাকায় মতভেদ তৈরি হয়। কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে নিজ বাড়ির সামনে ভাতিজা দিরাজ খাঁ (৪৬) ও তার ছেলে সাদ্দাম খাঁ (২৬) রামদা দিয়ে রিয়াজ উদ্দিন খাঁর গলায় কোপ দেন।

এতে ঘটনাস্থলেই রিয়াজ উদ্দিন নিহত হন। এ সময় রিয়াজ উদ্দিনের ছেলে স্বপন (৪৫) ও প্রতিবেশী আরজিনা খাতুন হামলাকারীদের ঠেকাতে গিয়ে আহত হন। তাদেরকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

হামলাকারী দিরাজ নিহত রিয়াজ উদ্দিনের ভাতিজা এবং ওই গ্রামের সিরাজ উদ্দীন খাঁর ছেলে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ভেড়ামারা সার্কেল) ইয়াসির আরাফাত ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, পুলিশ হত্যাকারীদের গ্রেফতারের জন্য অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে। ঘটনার পর থেকে সেখানে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

তাজিয়া মিছিলের নেতৃত্ব নিয়ে মতভেদ, চাচাকে কুপিয়ে হত্যা

 দৌলতপুর (কুষ্টিয়া) প্রতিনিধি 
২৮ জুলাই ২০২১, ১১:৩০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে তাজিয়া মিছিলের নেতৃত্বকে কেন্দ্র করে কথা কাটাকাটির জেরে ভাতিজার হাতে চাচা খুন হয়েছেন। এ ঘটনায় আরও দুজন আহত হয়েছেন। 

বুধবার রাত পৌনে ৯টার দিকে উপজেলার ফিলিপনগর ইউনিয়নের সিরাজনগর রিফিউজি পাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। 

নিহত রিয়াজ উদ্দিন খাঁ (৭০) ওই গ্রামের মৃত মজি খাঁর ছেলে। 

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, আসন্ন মহররমের তাজিয়া মিছিলে নেতৃত্ব কে দেবেন- এ নিয়ে ওই এলাকায় মতভেদ তৈরি হয়। কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে নিজ বাড়ির সামনে ভাতিজা দিরাজ খাঁ (৪৬) ও তার ছেলে সাদ্দাম খাঁ (২৬) রামদা দিয়ে রিয়াজ উদ্দিন খাঁর গলায় কোপ দেন। 

এতে ঘটনাস্থলেই রিয়াজ উদ্দিন নিহত হন। এ সময় রিয়াজ উদ্দিনের ছেলে স্বপন (৪৫) ও প্রতিবেশী আরজিনা খাতুন হামলাকারীদের ঠেকাতে গিয়ে আহত হন। তাদেরকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। 

হামলাকারী দিরাজ নিহত রিয়াজ উদ্দিনের ভাতিজা এবং ওই গ্রামের সিরাজ উদ্দীন খাঁর ছেলে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ভেড়ামারা সার্কেল) ইয়াসির আরাফাত ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, পুলিশ হত্যাকারীদের গ্রেফতারের জন্য অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে। ঘটনার পর থেকে সেখানে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।  

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন