বিয়ের ৩ দিন পর নববধূর লাশ 
jugantor
বিয়ের ৩ দিন পর নববধূর লাশ 

  ডামুড্যা (শরীয়তপুর) প্রতিনিধি  

২৯ জুলাই ২০২১, ১৮:১৯:১০  |  অনলাইন সংস্করণ

শরীয়তপুরের ডামুড্যায় বিয়ের মেহেদীর রং না শুকাতেই লামিয়া (১৮) নামে এক তরুণীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গত সোমবার তার বিয়ে হয়েছিল।

পরিবারের দাবি, বৃহস্পতিবার সে নিজ বাড়ির ছাদে বিষপান করে। পরে বিষয়টি পরিবারের লোকজন বুঝতে পেরে তাকে ডামুড্যা উপজেলা সরকারি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে যান।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ডামুড্যা উপজেলার ধানকাটি ইউনিয়নের চরপাতালিয়া গ্রামের আবু কালাম সরদারের মেয়ে লামিয়ার সঙ্গে একই ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের মোল্লাকান্দি গ্রামের মৃত নুর মোহাম্মাদ বেপারীর দুবাই প্রবাসী ছেলে জহিরুল ইসলামের (২৮) বিয়ে হয়েছিল।

বৃহস্পতিবার সকালে বাবার বাড়িতে থাকা অবস্থায় বিষ খায় মেয়েটি। পরে পরিবারের লোকজন মেয়েকে খোঁজাখুঁজি করে, কোথাও না পেয়ে এক পর্যায়ে বাড়ির ছাদে লামিয়াকে পড়ে থাকতে দেখেন। পরে পরিবারের লোকজন তাকে ডামুড্যা হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মানসী সাহা তুলি তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নতুন বিয়ের পরে কেন সে বিষপান করে মৃত্যুবরণ করল তা কেউই বলতে পারছেন না।

ডামুড্যা থানার ওসি শরীফ আহম্মেদ জানান, মেয়ের বাবা বাদী হয়ে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করেন। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

বিয়ের ৩ দিন পর নববধূর লাশ 

 ডামুড্যা (শরীয়তপুর) প্রতিনিধি 
২৯ জুলাই ২০২১, ০৬:১৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

শরীয়তপুরের ডামুড্যায় বিয়ের মেহেদীর রং না শুকাতেই লামিয়া (১৮) নামে এক তরুণীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গত সোমবার তার বিয়ে হয়েছিল।  

পরিবারের দাবি, বৃহস্পতিবার সে নিজ বাড়ির ছাদে বিষপান করে। পরে বিষয়টি পরিবারের লোকজন বুঝতে পেরে তাকে ডামুড্যা উপজেলা সরকারি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে যান। 

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ডামুড্যা উপজেলার ধানকাটি ইউনিয়নের চরপাতালিয়া গ্রামের আবু কালাম সরদারের মেয়ে লামিয়ার সঙ্গে একই ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের মোল্লাকান্দি গ্রামের মৃত নুর মোহাম্মাদ বেপারীর দুবাই প্রবাসী ছেলে জহিরুল ইসলামের (২৮) বিয়ে হয়েছিল।

বৃহস্পতিবার সকালে বাবার বাড়িতে থাকা অবস্থায় বিষ খায় মেয়েটি। পরে পরিবারের লোকজন মেয়েকে খোঁজাখুঁজি করে, কোথাও না পেয়ে এক পর্যায়ে বাড়ির ছাদে লামিয়াকে পড়ে থাকতে দেখেন। পরে পরিবারের লোকজন তাকে ডামুড্যা হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মানসী সাহা তুলি তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নতুন বিয়ের পরে কেন সে বিষপান করে মৃত্যুবরণ করল তা কেউই বলতে পারছেন না।

ডামুড্যা থানার ওসি শরীফ আহম্মেদ জানান, মেয়ের বাবা বাদী হয়ে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করেন। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন