উদ্বোধনের সাড়ে ৭ মাস পর ভারত থেকে আসছে পণ্যবাহী ট্রেন
jugantor
উদ্বোধনের সাড়ে ৭ মাস পর ভারত থেকে আসছে পণ্যবাহী ট্রেন

  ডোমার (নীলফামারী) প্রতিনিধি  

২৯ জুলাই ২০২১, ২২:২৩:১৫  |  অনলাইন সংস্করণ

উদ্বোধনের সাড়ে সাত মাস পর আগামী ১ আগস্ট থেকে ভারতের জলপাইগুড়ি থেকে নিয়মিত পণ্যবাহী ট্রেন আসবে নীলফামারীর চিলাহাটি স্টেশনে।

এ উপলক্ষে ভারতীয় রেলওয়ের দুটি ইঞ্জিন ট্রায়াল করেছে হলদিবাড়ি-চিলাহাটি রেলপথ দিয়ে নিউ জলপাইগুড়ি স্টেশন থেকে চিলাহাটি স্টেশন পর্যন্ত।

বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা ১০ মিনিটে ভারতের নিউ জলপাইগুড়ি স্টেশন থেকে ছেড়ে হলদিবাড়ি রেলপথ হয়ে নীলফামারীর চিলাহাটি স্টেশনে এসে পৌঁছায় বেলা ১২টা ৩৮ মিনিটে।

ভারতীয় রেলওয়ের ট্রায়াল ইঞ্জিন দুটি চিলাহাটি স্টেশনে পৌঁছলে ইঞ্জিন দুটির চালক ও গার্ড, পরিচালকসহ ১২ জনের প্রতিনিধি দলকে ফুল দিয়ে বরণ করে নেন বাংলাদেশ রেলওয়ে (পশ্চিমাঞ্চল) ঊর্ধ্বতন উপসহকারী প্রকৌশলী সুলতান মৃধা ও চিলাহাটি স্টেশনমাস্টার আশরাফুল ইসলাম। এ সময় পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

পরে ইমিগ্রেশন ও অন্যান্য আনুষ্ঠানিকতা শেষে দুপুর ১টা ৫৮ মিনিটে চিলাহাটি স্টেশন থেকে ভারতের নিউ জলপাইগুড়ি স্টেশনের উদ্দেশে ছেড়ে যায় ভারতীয় ইঞ্জিন দুটি।

ভারতীয় রেলওয়ের জ্যেষ্ঠ গুডস গার্ড মুকেশ কুমার সিং বলেন, আগামী ১ আগস্ট থেকে নিউ জলপাইগুড়ি স্টেশন থেকে পণ্যসামগ্রী নিয়ে বাংলাদেশের চিলাহাটি স্টেশেন আসবে ভারতের পণ্যবাহী ট্রেন। ওই দিন ৩০টি রেল ওয়াগানে পাথর ও গম নিয়ে পণ্যবাহী ট্রেনটি চিলাহাটি আসার কথা রয়েছে। সেই লক্ষ্যে আজ (বৃহস্পতিবার) আমাদের দুটি ইঞ্জিন ট্রায়াল দিচ্ছি এই রুটে। সকাল ১০টা ১০ মিনিটে নিউ জলপাইগুড়ি স্টেশন থেকে ছেড়ে দুটি ইঞ্জিন নিয়ে চিলাহাটি স্টেশনে পৌঁছে বেলা ১২টা ৩৮ মিনিটে।

বাংলাদেশ পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের ঊর্ধ্বতন উপসহকারী প্রকৌশলী সুলতান মৃধা বলেন, আগামী ১ আগস্ট থেকে হলদিবাড়ি-চিলাহাটি রুট্রে পণ্যবাহী ট্রেন চলাচলের সিদ্ধান্ত নিয়েছে দুই দেশের রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। সেই লক্ষ্যে ভারতীয় রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ আজ এই রুট দিয়ে নিউ জলপাইগুড়ি-চিলাহাটি-নিউ জলপাইগুড়ি স্টেশন পর্যন্ত তাদের দুটি ইঞ্জিন ট্রায়াল সম্পন্ন করে।

তিনি আরও বলেন, সপ্তাহে কয়দিন এবং কয়টি পণ্যবাহী ট্রেন আসবে তা নিয়ে দুই দেশের রেল কর্তৃপক্ষের চূড়ান্ত সিডিউল এখনো আমরা হাতে পায়নি। তবে আমরা প্রস্তুত রয়েছি।

উল্লেখ্য, দীর্ঘ ৫৫ বছর বন্ধ থাকার পর ২০২০ সালের ১৭ ডিসেম্বর হলদিবাড়ি-চিলাহাটি রেলপথে পণ্যবাহী ট্রেন এবং চলতি বছরের ২৭ মার্চ একই রুটে যাত্রীবাহী মিতালী এক্সপ্রেস ট্রেন চলাচলের উদ্বোধন করেন দুই দেশের প্রধানমন্ত্রী। তবে মহামারি করোনার কারণে বর্তমানে বন্ধ রয়েছে হলদিবাড়ি-চিলাহাটি রেলপথে ট্রেন চলাচল।

উদ্বোধনের সাড়ে ৭ মাস পর ভারত থেকে আসছে পণ্যবাহী ট্রেন

 ডোমার (নীলফামারী) প্রতিনিধি 
২৯ জুলাই ২০২১, ১০:২৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

উদ্বোধনের সাড়ে সাত মাস পর আগামী ১ আগস্ট থেকে ভারতের জলপাইগুড়ি থেকে নিয়মিত পণ্যবাহী ট্রেন আসবে নীলফামারীর চিলাহাটি স্টেশনে। 

এ উপলক্ষে ভারতীয় রেলওয়ের দুটি ইঞ্জিন ট্রায়াল করেছে হলদিবাড়ি-চিলাহাটি রেলপথ দিয়ে নিউ জলপাইগুড়ি স্টেশন থেকে চিলাহাটি স্টেশন পর্যন্ত।

বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা ১০ মিনিটে ভারতের নিউ জলপাইগুড়ি স্টেশন থেকে ছেড়ে হলদিবাড়ি রেলপথ হয়ে নীলফামারীর চিলাহাটি স্টেশনে এসে পৌঁছায় বেলা ১২টা ৩৮ মিনিটে। 

ভারতীয় রেলওয়ের ট্রায়াল ইঞ্জিন দুটি চিলাহাটি স্টেশনে পৌঁছলে ইঞ্জিন দুটির চালক ও গার্ড, পরিচালকসহ ১২ জনের প্রতিনিধি দলকে ফুল দিয়ে বরণ করে নেন বাংলাদেশ রেলওয়ে (পশ্চিমাঞ্চল) ঊর্ধ্বতন উপসহকারী প্রকৌশলী সুলতান মৃধা ও চিলাহাটি স্টেশনমাস্টার আশরাফুল ইসলাম। এ সময় পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

পরে ইমিগ্রেশন ও অন্যান্য আনুষ্ঠানিকতা শেষে দুপুর ১টা ৫৮ মিনিটে চিলাহাটি স্টেশন থেকে ভারতের নিউ জলপাইগুড়ি স্টেশনের উদ্দেশে ছেড়ে যায় ভারতীয় ইঞ্জিন দুটি।

ভারতীয় রেলওয়ের জ্যেষ্ঠ গুডস গার্ড মুকেশ কুমার সিং বলেন, আগামী ১ আগস্ট থেকে নিউ জলপাইগুড়ি স্টেশন থেকে পণ্যসামগ্রী নিয়ে বাংলাদেশের চিলাহাটি স্টেশেন আসবে ভারতের পণ্যবাহী ট্রেন। ওই দিন ৩০টি রেল ওয়াগানে পাথর ও গম নিয়ে পণ্যবাহী ট্রেনটি চিলাহাটি আসার কথা রয়েছে। সেই লক্ষ্যে আজ (বৃহস্পতিবার) আমাদের দুটি ইঞ্জিন ট্রায়াল দিচ্ছি এই রুটে। সকাল ১০টা ১০ মিনিটে নিউ জলপাইগুড়ি স্টেশন থেকে ছেড়ে দুটি ইঞ্জিন নিয়ে চিলাহাটি স্টেশনে পৌঁছে বেলা ১২টা ৩৮ মিনিটে।

বাংলাদেশ পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের ঊর্ধ্বতন উপসহকারী প্রকৌশলী সুলতান মৃধা বলেন, আগামী ১ আগস্ট থেকে হলদিবাড়ি-চিলাহাটি রুট্রে পণ্যবাহী ট্রেন চলাচলের সিদ্ধান্ত নিয়েছে দুই দেশের রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। সেই লক্ষ্যে ভারতীয় রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ আজ এই রুট দিয়ে নিউ জলপাইগুড়ি-চিলাহাটি-নিউ জলপাইগুড়ি স্টেশন পর্যন্ত তাদের দুটি ইঞ্জিন ট্রায়াল সম্পন্ন করে।

তিনি আরও বলেন, সপ্তাহে কয়দিন এবং কয়টি পণ্যবাহী ট্রেন আসবে তা নিয়ে দুই দেশের রেল কর্তৃপক্ষের চূড়ান্ত সিডিউল এখনো আমরা হাতে পায়নি। তবে আমরা প্রস্তুত রয়েছি।

উল্লেখ্য, দীর্ঘ ৫৫ বছর বন্ধ থাকার পর ২০২০ সালের ১৭ ডিসেম্বর হলদিবাড়ি-চিলাহাটি রেলপথে পণ্যবাহী ট্রেন এবং চলতি বছরের ২৭ মার্চ একই রুটে যাত্রীবাহী মিতালী এক্সপ্রেস ট্রেন চলাচলের উদ্বোধন করেন দুই দেশের প্রধানমন্ত্রী। তবে মহামারি করোনার কারণে বর্তমানে বন্ধ রয়েছে হলদিবাড়ি-চিলাহাটি রেলপথে ট্রেন চলাচল।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন