প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে প্রতিবেশী গ্রেফতার
jugantor
প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে প্রতিবেশী গ্রেফতার

  বগুড়া ব্যুরো  

২৯ জুলাই ২০২১, ২২:৩৯:৫২  |  অনলাইন সংস্করণ

বগুড়ার আদমদীঘিতে বিয়ের আশ্বাসে প্রবাসীর স্ত্রীকে দীর্ঘদিন ধরে ধর্ষণের অভিযোগে পুলিশ মোতাহার হোসেন তোফা (৪৫) নামের এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে। উপজেলার ছোট ঝাঁখইর জিরাগাড়ী গ্রামে এ ঘটনায় ওই গৃহবধূ বুধবার রাতে আদমদীঘি থানায় তোফার বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।

বৃহস্পতিবার মোতাহার হোসেন তোফাকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। ওসি জালাল উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ ও এজাহার সূত্র জানায়, ওমর ফারুক দীর্ঘ সাত বছর কাতারে কর্মরত আছেন। এ সুযোগে প্রতিবেশী দুই সন্তানের জনক মোতাহার হোসেন তোফা তার স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন। তিনি বিয়ের প্রলোভনে তাকে দীর্ঘদিন ধরে ধর্ষণ করে আসছেন।

সর্বশেষ ২৭ জুলাই রাত ৯টার দিকে ঘরে ঢুকে গৃহবধূকে ধর্ষণ করেন। স্থানীয়রা টের পেয়ে তোফাকে আটক করেন। তার পক্ষের লোকজন ঘটনাটি চাপা দিতে রাতভর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন। আদমদীঘি থানা পুলিশ টের পেয়ে বুধবার দুপুরে ভিকটিম গৃহবধূকে উদ্ধার ও ধর্ষণের অভিযোগে তোফাকে গ্রেফতার করে।

আদমদীঘি থানার ওসি জালাল উদ্দিন জানান, রাতে প্রবাসীর স্ত্রী থানায় তাকে ধর্ষণের অভিযোগে তোফার বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। বৃহস্পতিবার তোফাকে আদালতের মাধ্যমে বগুড়া জেলহাজতে পাঠানো হয়। এছাড়া গৃহবধূর ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে।

প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে প্রতিবেশী গ্রেফতার

 বগুড়া ব্যুরো 
২৯ জুলাই ২০২১, ১০:৩৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বগুড়ার আদমদীঘিতে বিয়ের আশ্বাসে প্রবাসীর স্ত্রীকে দীর্ঘদিন ধরে ধর্ষণের অভিযোগে পুলিশ মোতাহার হোসেন তোফা (৪৫) নামের এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে। উপজেলার ছোট ঝাঁখইর জিরাগাড়ী গ্রামে এ ঘটনায় ওই গৃহবধূ বুধবার রাতে আদমদীঘি থানায় তোফার বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।

বৃহস্পতিবার মোতাহার হোসেন তোফাকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। ওসি জালাল উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ ও এজাহার সূত্র জানায়, ওমর ফারুক দীর্ঘ সাত বছর কাতারে কর্মরত আছেন। এ সুযোগে প্রতিবেশী দুই সন্তানের জনক মোতাহার হোসেন তোফা তার স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন। তিনি বিয়ের প্রলোভনে তাকে দীর্ঘদিন ধরে ধর্ষণ করে আসছেন।

সর্বশেষ ২৭ জুলাই রাত ৯টার দিকে ঘরে ঢুকে গৃহবধূকে ধর্ষণ করেন। স্থানীয়রা টের পেয়ে তোফাকে আটক করেন। তার পক্ষের লোকজন ঘটনাটি চাপা দিতে রাতভর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন। আদমদীঘি থানা পুলিশ টের পেয়ে বুধবার দুপুরে ভিকটিম গৃহবধূকে উদ্ধার ও ধর্ষণের অভিযোগে তোফাকে গ্রেফতার করে।

আদমদীঘি থানার ওসি জালাল উদ্দিন জানান, রাতে প্রবাসীর স্ত্রী থানায় তাকে ধর্ষণের অভিযোগে তোফার বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। বৃহস্পতিবার তোফাকে আদালতের মাধ্যমে বগুড়া জেলহাজতে পাঠানো হয়। এছাড়া গৃহবধূর ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন