গফরগাঁওয়ে আ.লীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম
jugantor
গফরগাঁওয়ে আ.লীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম

  গফরগাঁও (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি  

৩১ জুলাই ২০২১, ১৬:৪১:০৫  |  অনলাইন সংস্করণ

ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে রুবেল (৪০) নামের এক আওয়ামী লীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম করেছে সন্ত্রাসীরা।

ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার রাতে উপজেলার পাগলা থানাধীন উস্থি ইউনিয়নের কান্দিপাড়া বাজারে।

স্থানীয়রা উদ্ধার করে প্রথমে তাকে গফরগাঁও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। অবস্থার অবনতি হলে রুবেলকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন স্বজনরা।

রুবেল লংগাইর ইউনিয়নের বাঙাল কান্দি গ্রামের সিরাজুল হক মন্ডলের ছেলে।

আহতের বাবা সিরাজুল হক জানান, রুবেল কান্দিপাড়া বাজার থেকে রাত সাড়ে ১০টার দিকে বাড়িতে ফেরার পথে এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী বাঙাল কান্দি গ্রামের ফরিদ (৪০), মাহিন (৩০), জজ মিয়া (২৮), বাবু (২৫), জুনায়েত (১৮), স্বপন (৪২), আক্তার (৫৪), বাচ্চু (৪৯), খোকন (৫২) ও হায়দর (৩৫) পথ রোধ করে ধারাল অস্ত্র, চাপাতি, চাইনিজ কুড়াল দিয়ে এলোপাথাড়ি কোপায়। এতে রুবেলের মাথা, ডান হাতের কব্জি, বাম হাতের বাহু ও দুই পা গুরুতর জখম হয়। পরে সন্ত্রাসীরা রুবেলকে মৃত ভেবে রাস্তায় ফেলে চলে যায়। স্থানীয়রা এসে তাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠান।

তিনি বলেন, আমার ছেলেকে হত্যার উদ্দেশ্যে সন্ত্রাসীরা এই হামলা করেছে। আমি এর বিচার চাই।

লংগাইর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক নিজাম উদ্দিন জানান, রুবেল ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের একজন সক্রিয় সদস্য।

লংগাইর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল আমিন বিপ্লব বলেন, কয়েকজন সন্ত্রাসীর অত্যাচারে এলাকাবাসী অতিষ্ট। দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হওয়া দরকার।

পাগলা থানার ওসি রাশেদুজ্জামান বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। অভিযোগের ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

গফরগাঁওয়ে আ.লীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম

 গফরগাঁও (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি 
৩১ জুলাই ২০২১, ০৪:৪১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে রুবেল (৪০) নামের এক আওয়ামী লীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম করেছে সন্ত্রাসীরা।

ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার রাতে উপজেলার পাগলা থানাধীন উস্থি ইউনিয়নের কান্দিপাড়া বাজারে। 

স্থানীয়রা উদ্ধার করে প্রথমে তাকে গফরগাঁও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। অবস্থার অবনতি হলে রুবেলকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন স্বজনরা।

রুবেল লংগাইর ইউনিয়নের বাঙাল কান্দি গ্রামের সিরাজুল হক মন্ডলের ছেলে।

আহতের বাবা সিরাজুল হক জানান, রুবেল কান্দিপাড়া বাজার থেকে রাত সাড়ে ১০টার দিকে বাড়িতে ফেরার পথে এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী বাঙাল কান্দি গ্রামের ফরিদ (৪০), মাহিন (৩০), জজ মিয়া (২৮), বাবু (২৫), জুনায়েত (১৮), স্বপন (৪২), আক্তার (৫৪), বাচ্চু (৪৯), খোকন (৫২) ও হায়দর (৩৫) পথ রোধ করে ধারাল অস্ত্র, চাপাতি, চাইনিজ কুড়াল দিয়ে এলোপাথাড়ি কোপায়। এতে রুবেলের মাথা, ডান হাতের কব্জি, বাম হাতের বাহু ও দুই পা গুরুতর জখম হয়। পরে সন্ত্রাসীরা রুবেলকে মৃত ভেবে রাস্তায় ফেলে চলে যায়। স্থানীয়রা এসে তাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠান। 

তিনি বলেন, আমার ছেলেকে হত্যার উদ্দেশ্যে সন্ত্রাসীরা এই হামলা করেছে। আমি এর বিচার চাই।

লংগাইর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক নিজাম উদ্দিন জানান, রুবেল ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের একজন সক্রিয় সদস্য। 

লংগাইর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল আমিন বিপ্লব বলেন, কয়েকজন সন্ত্রাসীর অত্যাচারে এলাকাবাসী অতিষ্ট। দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হওয়া দরকার।

পাগলা থানার ওসি রাশেদুজ্জামান বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। অভিযোগের ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন