উপজেলা চেয়ারম্যানের ছেলের বিরুদ্ধে অস্ত্র-মাদক বেচাকেনা-ভাংচুরের অভিযোগ (ভিডিও)
jugantor
উপজেলা চেয়ারম্যানের ছেলের বিরুদ্ধে অস্ত্র-মাদক বেচাকেনা-ভাংচুরের অভিযোগ (ভিডিও)

  বুড়িচং (কুমিল্লা) প্রতিনিধি  

০৩ আগস্ট ২০২১, ২৩:১৮:৪৮  |  অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লার বুড়িচংয়ের উপজেলা চেয়ারম্যান আখলাক হায়দারের ছেলে আদনান হায়দারের বিরুদ্ধে অস্ত্র ও মাদক বেচাকেনার অভিযোগ উঠেছে। এ খবর ফাঁস হয়ে গেলে একটি ট্রান্সপোর্ট অফিসে ভাংচুর করারও অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে বুড়িচং উপজেলার ময়নামতি ফরিজপুরের একটি ট্রান্সপোর্ট অফিসে অস্ত্র ও বহিরাগত সন্ত্রাসী নিয়ে হামলা করে আদনান হায়দার ১ কোটি টাকা চাঁদা দাবি করে। চাঁদা না পেয়ে হামলা করে নগদ ৮৫ লাখ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায়। কয়েক লাখ টাকা মূল্যের ওয়াইফাই মেশিন ও সিসি ক্যামরা ভাংচুর করে হার্ডডিস্ক খুলে নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা।

সন্ত্রাসী আদনান হায়দারের চাচা কুমিল্লা জেলা পরিষদের সদস্য তারেক হায়দার যুগান্তরকে বলেন, বাহিরে সন্ত্রাসী চাঁদাবাজি ও অস্ত্র মাদক বেচাকেনার পর পরিবারের লোকের ওপরও অত্যাচার করেছে। আমাকেও গুলি করে হত্যার হুমকি দিচ্ছে। আমি পুলিশ সুপার কুমিল্লা ও জেলা প্রশাসককে অনুরোধ করছি আদনানকে গ্রেফতার করার জন্য।

এমন ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসেন কুমিল্লা-৫ আসনের নবনির্বাচিত এমপি অ্যাডভোকেট আবুল হাশেম খান। তিনি যুগান্তরকে বলেন, বিষয়টি পারিবারিকভাবে সমাধান করার চেষ্টা করছি।

উপজেলা চেয়ারম্যান আখলাক হায়দার বলেন, ছেলে আমার কথা শুনে না। এমপি সাহেব বিষয়টি পারিবারিকভাবে সমাধান করার চেষ্টা করবেন বলে জানিয়েছেন।

উপজেলা চেয়ারম্যানের ছেলের বিরুদ্ধে অস্ত্র-মাদক বেচাকেনা-ভাংচুরের অভিযোগ (ভিডিও)

 বুড়িচং (কুমিল্লা) প্রতিনিধি 
০৩ আগস্ট ২০২১, ১১:১৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লার বুড়িচংয়ের উপজেলা চেয়ারম্যান আখলাক হায়দারের ছেলে আদনান হায়দারের বিরুদ্ধে অস্ত্র ও মাদক বেচাকেনার অভিযোগ উঠেছে। এ খবর ফাঁস হয়ে গেলে একটি ট্রান্সপোর্ট অফিসে ভাংচুর করারও অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে বুড়িচং উপজেলার ময়নামতি ফরিজপুরের একটি ট্রান্সপোর্ট অফিসে অস্ত্র ও বহিরাগত সন্ত্রাসী নিয়ে হামলা করে আদনান হায়দার ১ কোটি টাকা চাঁদা দাবি করে। চাঁদা না পেয়ে হামলা করে নগদ ৮৫ লাখ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায়। কয়েক লাখ টাকা মূল্যের ওয়াইফাই মেশিন ও সিসি ক্যামরা ভাংচুর করে হার্ডডিস্ক খুলে নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা।

সন্ত্রাসী আদনান হায়দারের চাচা কুমিল্লা জেলা পরিষদের সদস্য তারেক হায়দার যুগান্তরকে বলেন, বাহিরে সন্ত্রাসী চাঁদাবাজি ও অস্ত্র মাদক বেচাকেনার পর পরিবারের লোকের ওপরও অত্যাচার করেছে। আমাকেও গুলি করে হত্যার হুমকি দিচ্ছে। আমি পুলিশ সুপার কুমিল্লা ও জেলা প্রশাসককে অনুরোধ করছি আদনানকে গ্রেফতার করার জন্য।

এমন ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসেন কুমিল্লা-৫ আসনের নবনির্বাচিত এমপি অ্যাডভোকেট আবুল হাশেম খান। তিনি যুগান্তরকে বলেন, বিষয়টি পারিবারিকভাবে সমাধান করার চেষ্টা করছি। 

উপজেলা চেয়ারম্যান আখলাক হায়দার বলেন, ছেলে আমার কথা শুনে না। এমপি সাহেব বিষয়টি পারিবারিকভাবে সমাধান করার চেষ্টা করবেন বলে জানিয়েছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন