ফেসবুকে ভাইরাল অস্ত্রধারী লুকিয়ে ছিলেন ওয়ারড্রবে
jugantor
ফেসবুকে ভাইরাল অস্ত্রধারী লুকিয়ে ছিলেন ওয়ারড্রবে

  কুমিল্লা ব্যুরো ও তিতাস প্রতিনিধি  

০৯ আগস্ট ২০২১, ১৯:১২:৩২  |  অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লার তিতাসে ফেসবুকে ভাইরাল অস্ত্রধারী চাঁদাবাজ সাগরকে তার ব্যবহৃত পিস্তল ও দুই রাউন্ড গুলিসহ গ্রেফতার করেছে পুলিশ। অস্ত্রধারী সাগর উপজেলার শাহপুর গ্রামের হাবুল বেপারীর ছেলে।

রোববার রাতে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মুরাদনগর (সার্কেল) মীর আবিদুর রহমানের নেতৃত্বে কুমিল্লা ডিবি ও তিতাস থানা পুলিশ যৌথ অভিযান চালিয়ে সাগরকে ঢাকা মাতুয়াইল এলাকার একটি বাসার ওয়ারড্রবের বক্সে লুকিয়ে থাকা অবস্থায় গ্রেফতার করে।

জানা যায়, সাগর (৩২) রোববার বিকালে শাহপুর গ্রামের মৃত নুর মোহাম্মদের ছেলে পল্লী চিকিৎসক সামসুল হুদার শাহপুর শান্তির বাজারের দোকানে ঢুকে চিকিৎসককে পিস্তল ঠেকিয়ে নগদ ৩৯ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয় এবং আরও দুই লাখ টাকা দিতে হবে বলে হুমকি দিয়ে যায়। এ ঘটনার ভিডিও ভুক্তভোগী পল্লী চিকিৎসক সামসুল হুদার ফেসবুক আইডি থেকে ভাইরাল করে এবং ভুক্তভোগী লাইভে এসে তাকেসহ তার পরিবারের সদস্যদের নিরাপত্তা চেয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীসহ এলাকাবাসীর সহযোগিতা কামনা করে কান্নায় ভেঙে পড়েন।

এ ঘটনাটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে এলাকাবাসীর দৃষ্টিগোচর হলে নিন্দার ঝড় উঠে এবং অবিলম্বে এই অস্ত্রধারী সাগরকে গ্রেফতারের দাবি জানান এলাকাবাসী, রাজনৈতিক নেতা, সুশীল সমাজ ও সাংবাদিকরা।

ভুক্তভোগী পল্লী চিকিৎসক সামছুল হুদা বলেন, আমি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি এবং সাগর গ্রুপের হাত থেকে আমার পরিবারের নিরাপত্তা চাচ্ছি। তাদের ভয়ে আমি এখনো আত্মগোপনে আছি।

এ বিষয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মুরাদনগর (সার্কেল) মীর আবিদুর রহমান রহমান বলেন, আমরা ঘটনাটি ফেসবুকে দেখার পরপরই তথ্যপ্রযুক্তি এবং সোর্সের মাধ্যমে সাগরের অবস্থান নিশ্চিত হয়ে রাতেই কুমিল্লার ডিবির টিমসহ তিতাস থানা পুলিশ নিয়ে অভিযানে যাই। সোমবার ভোরে সাগরকে ঢাকার মাতুয়াইল এলাকার একটি বাসায় ওয়ারড্রবে লুকিয়ে থাকা অবস্থায় গ্রেফতার করতে সক্ষম হই।

তিনি বলেন, সাগরকে ঢাকা থেকে তিতাসে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তার স্বীকারোক্তি মোতাবেক তার নিজ ঘরে খাটের তোশকের নিচ থেকে দুই রাউন্ড গুলিভর্তি একটি দেশীয় পিস্তল ও কিছু মাদক উদ্ধার করি। সাগরের নামে অস্ত্র, মাদক ও অন্যান্য ৮টি মামলা রয়েছে।

ফেসবুকে ভাইরাল অস্ত্রধারী লুকিয়ে ছিলেন ওয়ারড্রবে

 কুমিল্লা ব্যুরো ও তিতাস প্রতিনিধি 
০৯ আগস্ট ২০২১, ০৭:১২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লার তিতাসে ফেসবুকে ভাইরাল অস্ত্রধারী চাঁদাবাজ সাগরকে তার ব্যবহৃত পিস্তল ও দুই রাউন্ড গুলিসহ গ্রেফতার করেছে পুলিশ। অস্ত্রধারী সাগর উপজেলার শাহপুর গ্রামের হাবুল বেপারীর ছেলে।

রোববার রাতে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মুরাদনগর (সার্কেল) মীর আবিদুর রহমানের নেতৃত্বে কুমিল্লা ডিবি ও তিতাস থানা পুলিশ যৌথ অভিযান চালিয়ে সাগরকে ঢাকা মাতুয়াইল এলাকার একটি বাসার ওয়ারড্রবের বক্সে লুকিয়ে থাকা অবস্থায় গ্রেফতার করে।

জানা যায়, সাগর (৩২) রোববার বিকালে শাহপুর গ্রামের মৃত নুর মোহাম্মদের ছেলে পল্লী চিকিৎসক সামসুল হুদার শাহপুর শান্তির বাজারের দোকানে ঢুকে চিকিৎসককে পিস্তল ঠেকিয়ে নগদ ৩৯ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয় এবং আরও দুই লাখ টাকা দিতে হবে বলে হুমকি দিয়ে যায়। এ ঘটনার ভিডিও ভুক্তভোগী পল্লী চিকিৎসক সামসুল হুদার ফেসবুক আইডি থেকে ভাইরাল করে এবং ভুক্তভোগী লাইভে এসে তাকেসহ তার পরিবারের সদস্যদের নিরাপত্তা চেয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীসহ এলাকাবাসীর সহযোগিতা কামনা করে কান্নায় ভেঙে পড়েন।

এ ঘটনাটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে এলাকাবাসীর দৃষ্টিগোচর হলে নিন্দার ঝড় উঠে এবং অবিলম্বে এই অস্ত্রধারী সাগরকে গ্রেফতারের দাবি জানান এলাকাবাসী, রাজনৈতিক নেতা, সুশীল সমাজ ও সাংবাদিকরা।

ভুক্তভোগী পল্লী চিকিৎসক সামছুল হুদা বলেন, আমি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি এবং সাগর গ্রুপের হাত থেকে আমার পরিবারের নিরাপত্তা চাচ্ছি। তাদের ভয়ে আমি এখনো আত্মগোপনে আছি।

এ বিষয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মুরাদনগর (সার্কেল) মীর আবিদুর রহমান রহমান বলেন, আমরা ঘটনাটি ফেসবুকে দেখার পরপরই তথ্যপ্রযুক্তি এবং সোর্সের মাধ্যমে সাগরের অবস্থান নিশ্চিত হয়ে রাতেই কুমিল্লার ডিবির টিমসহ তিতাস থানা পুলিশ নিয়ে অভিযানে যাই। সোমবার ভোরে সাগরকে ঢাকার মাতুয়াইল এলাকার একটি বাসায় ওয়ারড্রবে লুকিয়ে থাকা অবস্থায় গ্রেফতার করতে সক্ষম হই।

তিনি বলেন, সাগরকে ঢাকা থেকে তিতাসে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তার স্বীকারোক্তি মোতাবেক তার নিজ ঘরে খাটের তোশকের নিচ থেকে দুই রাউন্ড গুলিভর্তি একটি দেশীয় পিস্তল ও কিছু মাদক উদ্ধার করি। সাগরের নামে অস্ত্র, মাদক ও অন্যান্য ৮টি মামলা রয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন