এক মিনিটের ব্যবধানে করোনার ২ ডোজ টিকা!
jugantor
এক মিনিটের ব্যবধানে করোনার ২ ডোজ টিকা!

  বাহুবল (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি  

০৯ আগস্ট ২০২১, ১৯:৪৩:১৫  |  অনলাইন সংস্করণ

হবিগঞ্জের বাহুবলে রবি কালিন্দী নামের এক চা শ্রমিক ১ মিনিটের ব্যবধানে করোনাভাইরাসের দুই ডোজ টিকা পেয়েছেন। বাহুবল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের টিকাদান কেন্দ্রে সোমবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

রবি কালিন্দী (৫৪) উপজেলার পুটিজুরী ইউনিয়নের অন্তর্গত বৃন্দাবন চা বাগানের বাসিন্দা। দুই ডোজ টিকা গ্রহণকারী ওই চা শ্রমিক বর্তমানে স্বাস্থ্য বিভাগের পর্যবেক্ষণে আছেন।

জানা গেছে, সোমবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বাহুবল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের টিকাদান কেন্দ্রে যান উপজেলার বৃন্দাবন চা বাগানের রবি কালিন্দী নামের ওই শ্রমিক। তার নামীয় টিকার রেজিস্ট্রেশন ফরমটি অনলাইনে যাচাই করার পর টিকাদানকর্মীদের সামনের চেয়ারে বসতে বলা হয়। প্রথমে তার বাম হাতে একটি টিকা দেওয়া হয়। টিকা নেওয়ার পরও ওই চা শ্রমিক চেয়ারটিতেই বসে ছিলেন।

এ সময় ওই টিকাদানকর্মী বিপরীত দিকে ঘুরে টিকাভর্তি আরেকটি সিরিঞ্জ হাতে নেন এবং চেয়ারে বসে থাকা চা শ্রমিককে শার্ট খুলে হাত বের করতে বলেন। সঙ্গে সঙ্গে ওই চা শ্রমিক ডান হাতের বাহু উন্মুক্ত করে দেন। পরে ওই টিকাদান কর্মী আরেক ডোজ টিকা প্রদান করেন। লাইনে দাঁড়ানো অন্যান্য লোকজন বিষয়টি টিকাদান কাজে নিয়োজিত স্বাস্থ্য কর্মীদের অবগত করলে সঙ্গে সঙ্গে ওই চা শ্রমিককে পর্যবেক্ষণে নেওয়া হয়।

বাহুবল উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. বাবুল কুমার দাশ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, সোমবার সকাল থেকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের টিকাদান কেন্দ্রে উপচেপড়া ভিড় ছিল। ভিড় সামাল দিতে গলদগর্ম টিকাদাতা স্বাস্থ্যকর্মী ও টিকা গ্রহীতার ভুল বোঝাবুঝি এবং অসাবধানতার কারণে ১ মিনিটে দুই ডোজ টিকাদানের ঘটনা ঘটেছে।

তিনি বলেন, বিষয়টি জানার সঙ্গে সঙ্গে টিকা গ্রহীতা ওই ব্যক্তিকে পর্যবেক্ষণে নেওয়া হয়েছে। কয়েক ঘণ্টা পর্যবেক্ষণের পর তার শারীরিক কোনো সমস্যা দেখা না দেওয়ায় তাকে বাড়িতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। পরবর্তীতে তার শারীরিক অবস্থার নিয়মিত খোঁজখবর নেওয়া হবে।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি আরও বলেন, এ ব্যাপারে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে।

এক মিনিটের ব্যবধানে করোনার ২ ডোজ টিকা!

 বাহুবল (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি 
০৯ আগস্ট ২০২১, ০৭:৪৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

হবিগঞ্জের বাহুবলে রবি কালিন্দী নামের এক চা শ্রমিক ১ মিনিটের ব্যবধানে করোনাভাইরাসের দুই ডোজ টিকা পেয়েছেন। বাহুবল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের টিকাদান কেন্দ্রে সোমবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

রবি কালিন্দী (৫৪) উপজেলার পুটিজুরী ইউনিয়নের অন্তর্গত বৃন্দাবন চা বাগানের বাসিন্দা। দুই ডোজ টিকা গ্রহণকারী ওই চা শ্রমিক বর্তমানে স্বাস্থ্য বিভাগের পর্যবেক্ষণে আছেন।

জানা গেছে, সোমবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বাহুবল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের টিকাদান কেন্দ্রে যান উপজেলার বৃন্দাবন চা বাগানের রবি কালিন্দী নামের ওই শ্রমিক। তার নামীয় টিকার রেজিস্ট্রেশন ফরমটি অনলাইনে যাচাই করার পর টিকাদানকর্মীদের সামনের চেয়ারে বসতে বলা হয়। প্রথমে তার বাম হাতে একটি টিকা দেওয়া হয়। টিকা নেওয়ার পরও ওই চা শ্রমিক চেয়ারটিতেই বসে ছিলেন।

এ সময় ওই টিকাদানকর্মী বিপরীত দিকে ঘুরে টিকাভর্তি আরেকটি সিরিঞ্জ হাতে নেন এবং চেয়ারে বসে থাকা চা শ্রমিককে শার্ট খুলে হাত বের করতে বলেন। সঙ্গে সঙ্গে ওই চা শ্রমিক ডান হাতের বাহু উন্মুক্ত করে দেন। পরে ওই টিকাদান কর্মী আরেক ডোজ টিকা প্রদান করেন। লাইনে দাঁড়ানো অন্যান্য লোকজন বিষয়টি টিকাদান কাজে নিয়োজিত স্বাস্থ্য কর্মীদের অবগত করলে সঙ্গে সঙ্গে ওই চা শ্রমিককে পর্যবেক্ষণে নেওয়া হয়।

বাহুবল উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. বাবুল কুমার দাশ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, সোমবার সকাল থেকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের টিকাদান কেন্দ্রে উপচেপড়া ভিড় ছিল। ভিড় সামাল দিতে গলদগর্ম টিকাদাতা স্বাস্থ্যকর্মী ও টিকা গ্রহীতার ভুল বোঝাবুঝি এবং অসাবধানতার কারণে ১ মিনিটে দুই ডোজ টিকাদানের ঘটনা ঘটেছে।

তিনি বলেন, বিষয়টি জানার সঙ্গে সঙ্গে টিকা গ্রহীতা ওই ব্যক্তিকে পর্যবেক্ষণে নেওয়া হয়েছে। কয়েক ঘণ্টা পর্যবেক্ষণের পর তার শারীরিক কোনো সমস্যা দেখা না দেওয়ায় তাকে বাড়িতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। পরবর্তীতে তার শারীরিক অবস্থার নিয়মিত খোঁজখবর নেওয়া হবে।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি আরও বলেন, এ ব্যাপারে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন