বিবস্ত্র করে গৃহবধূকে নির্যাতন: সাক্ষ্য দিলেন বাদী
jugantor
বিবস্ত্র করে গৃহবধূকে নির্যাতন: সাক্ষ্য দিলেন বাদী

  নোয়াখালী প্রতিনিধি  

১৯ আগস্ট ২০২১, ০১:১৮:১২  |  অনলাইন সংস্করণ

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জের একলাশপুর ইউনিয়নের জয়কৃষ্ণপুর গ্রামে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের শিকার গৃহবধূ ধর্ষণের মামলায় বাদী সাক্ষ্য দিয়েছেন। এর আগে গত ১৭ ফেব্রুয়ারি আসামিদের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করেন আদালত।

বুধবার দুপুরে জেলা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক জয়নাল আবেদিন এ মামলায় বাদীর সাক্ষ্য নেন।

এ সময় মামলার দুই আসামি দেলোয়ার বাহিনীপ্রধান দেলোয়ার হোসেন দেলু ও আবুল কালাম আবু আদালতে উপস্থিত ছিলেন। সাক্ষী হিসেবে ভিকটিম ডকে থাকা দুই ধর্ষককে শনাক্ত করে কান্নায় ভেঙে পড়েন।

রাষ্ট্রপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের পিপি অ্যাডভোকেট মামুনুর রশিদ লাবলু। তিনি জানান, বাদীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে দুই আসামিকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০১৯ সালের ৪ সেপ্টেম্বর রাতে দেলোয়ার হোসেন দেলু ও আবুল কালাম আবু ভিকটিমকে বাড়ি থেকে তুলে পার্শ্ববর্তী খালে নৌকায় নিয়ে উপর্যুপরি ধর্ষণ করে। এছাড়াও গৃহবধূর ঘরে ও একাধিক স্থানে দেলোয়ার তাকে ধর্ষণ করে।

এরপর ২০২০ সালের ৪ অক্টোবর ওই ভিকটিমকে বিবস্ত্র নির্যাতনের ভিডিওচিত্র ফেসবুকে ভাইরাল হলে দেশব্যাপী তোলপাড় সৃষ্টি হয়।

ধর্ষণের ঘটনায় ২০২০ সালের ৬ অক্টোবর ভুক্তভোগী বাদী হয়ে দেলোয়ার হোসেন ও আবুল কালমকে আসামি করে বেগমগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পরে ওই মামলায় অভিযুক্ত দুই আসামিকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

বিবস্ত্র করে গৃহবধূকে নির্যাতন: সাক্ষ্য দিলেন বাদী

 নোয়াখালী প্রতিনিধি 
১৯ আগস্ট ২০২১, ০১:১৮ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জের একলাশপুর ইউনিয়নের জয়কৃষ্ণপুর গ্রামে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের শিকার গৃহবধূ ধর্ষণের মামলায় বাদী সাক্ষ্য দিয়েছেন। এর আগে গত ১৭ ফেব্রুয়ারি আসামিদের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করেন আদালত।

বুধবার দুপুরে জেলা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক জয়নাল আবেদিন এ মামলায় বাদীর সাক্ষ্য নেন।

এ সময় মামলার দুই আসামি দেলোয়ার বাহিনীপ্রধান দেলোয়ার হোসেন দেলু ও আবুল কালাম আবু আদালতে উপস্থিত ছিলেন। সাক্ষী হিসেবে ভিকটিম ডকে থাকা দুই ধর্ষককে শনাক্ত করে কান্নায় ভেঙে পড়েন।

রাষ্ট্রপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের পিপি অ্যাডভোকেট মামুনুর রশিদ লাবলু। তিনি জানান, বাদীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে দুই আসামিকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০১৯ সালের ৪ সেপ্টেম্বর রাতে দেলোয়ার হোসেন দেলু ও আবুল কালাম আবু ভিকটিমকে বাড়ি থেকে তুলে পার্শ্ববর্তী খালে নৌকায় নিয়ে উপর্যুপরি ধর্ষণ করে। এছাড়াও গৃহবধূর ঘরে ও একাধিক স্থানে দেলোয়ার তাকে ধর্ষণ করে।

এরপর ২০২০ সালের ৪ অক্টোবর ওই ভিকটিমকে বিবস্ত্র নির্যাতনের ভিডিওচিত্র ফেসবুকে ভাইরাল হলে দেশব্যাপী তোলপাড় সৃষ্টি হয়।

ধর্ষণের ঘটনায় ২০২০ সালের ৬ অক্টোবর ভুক্তভোগী বাদী হয়ে দেলোয়ার হোসেন ও আবুল কালমকে আসামি করে বেগমগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পরে ওই মামলায় অভিযুক্ত দুই আসামিকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন