পদ্মার তীরে ভয়ঙ্কর ‘রাসেল ভাইপার’, ছোবলে প্রাণ গেল নারীর
jugantor
পদ্মার তীরে ভয়ঙ্কর ‘রাসেল ভাইপার’, ছোবলে প্রাণ গেল নারীর

  সুজানগর (পাবনা) প্রতিনিধি  

২৬ আগস্ট ২০২১, ১৪:৫৬:৪১  |  অনলাইন সংস্করণ

সাপের ছোবল

পাবনার সুজানগর উপজেলায় পদ্মার নদীর তীর থেকে একটি ভয়ঙ্কর ‘রাসেল ভাইপা ‘ সাপ দেখা গেছে। এ সময় ওই সাপটির ছোবলে স্বপ্না খাতুন (৪০) নামে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকাল ৭টার দিকে উপজেলার সাতবাড়িয়া ইউনিয়নের গুপিনপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত স্বপ্না ওই গ্রামের মৃত হবিবর রহমানের মেয়ে এবং উপজেলার হাটখালী ইউনিয়নের সৈয়দপুর (ভাদুরভাগ) গ্রামের মৃত আব্দুল মান্নানের স্ত্রী।

স্থানীয় ইউপি সদস্য জয়নাল আবেদীন জানান, বিগত ৪৫ দিন পূর্বে স্বপ্না খাতুনের স্বামী মারা যাওয়ায় তিনি বাবার বাড়ি সাতবাড়িয়ার গুপিনপুরে এসে অবস্থান করছিলেন।

বৃহস্পতিবার সকাল ৭টার দিকে স্বপ্না খাতুন বাড়ির নিকটে পদ্মা নদীর ধারে হাঁটাহাঁটি করতে গেলে একটি বিষধর সাপ তার পায়ে কামড় দেয়। এ সময় স্থানীয়রা সাপটিকে পিটিয়ে মেরে ফেলে এবং স্বপ্না খাতুনকে ওঝা ডেকে ঝাড়ফুক দেওয়া হয়। কিন্তু রোগীর অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় তাকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

সুজানগর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. সেলিম মোরশেদ ওই নারীর রাসেল ভাইপার সাপের কামড়ে মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ভয়ঙ্কর ওই রাসেল ভাইপারের বাংলা নাম চন্দ্রবোড়া। তবে রাসেল ভাইপার নামেই বেশি পরিচিত। এদের বিষের এত তীব্রতা যে, কাউকে কামড় দিলে খুব কম রোগীই বাঁচে।

পদ্মার তীরে ভয়ঙ্কর ‘রাসেল ভাইপার’, ছোবলে প্রাণ গেল নারীর

 সুজানগর (পাবনা) প্রতিনিধি 
২৬ আগস্ট ২০২১, ০২:৫৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
সাপের ছোবল
ফাইল ছবি

পাবনার সুজানগর উপজেলায় পদ্মার নদীর তীর থেকে একটি ভয়ঙ্কর ‘রাসেল ভাইপা ‘ সাপ দেখা গেছে। এ সময় ওই সাপটির ছোবলে স্বপ্না খাতুন (৪০) নামে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকাল ৭টার দিকে উপজেলার সাতবাড়িয়া ইউনিয়নের গুপিনপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত স্বপ্না ওই গ্রামের মৃত হবিবর রহমানের মেয়ে এবং উপজেলার হাটখালী ইউনিয়নের সৈয়দপুর (ভাদুরভাগ) গ্রামের মৃত আব্দুল মান্নানের স্ত্রী।

স্থানীয় ইউপি সদস্য জয়নাল আবেদীন জানান, বিগত ৪৫ দিন পূর্বে স্বপ্না খাতুনের স্বামী মারা যাওয়ায় তিনি বাবার বাড়ি সাতবাড়িয়ার গুপিনপুরে এসে অবস্থান করছিলেন।

বৃহস্পতিবার সকাল ৭টার দিকে স্বপ্না খাতুন বাড়ির নিকটে পদ্মা নদীর ধারে হাঁটাহাঁটি করতে গেলে একটি বিষধর সাপ তার পায়ে কামড় দেয়। এ সময়  স্থানীয়রা সাপটিকে পিটিয়ে মেরে ফেলে এবং স্বপ্না খাতুনকে ওঝা ডেকে ঝাড়ফুক দেওয়া হয়। কিন্তু রোগীর অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় তাকে পাবনা জেনারেল  হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

সুজানগর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. সেলিম মোরশেদ ওই নারীর রাসেল ভাইপার সাপের কামড়ে মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ভয়ঙ্কর ওই রাসেল ভাইপারের বাংলা নাম চন্দ্রবোড়া। তবে রাসেল ভাইপার নামেই বেশি পরিচিত। এদের বিষের এত তীব্রতা যে, কাউকে কামড় দিলে খুব কম রোগীই বাঁচে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন